ঢাকা, বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৯, ০২ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৩ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

খেলাধুলা

লাল জার্সিতে শুরু লালেই শেষ

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ মে, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে জার্সি দেখা যায় ফুটবলে। জার্সির রং বদলালেই নাকি দলের ফর্মও বদলে যায় অনেক দলের। ক্রিকেটেও এর প্রচলন শুরু হয়ে গেছে। ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেই অনেক দল দুটি জার্সি নিয়ে গিয়েছিল ভারতে। দুই রঙের জার্সি ছিল ২০১৭ চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতেও। এবার ওয়ানডে বিশ্বকাপেও আছে হোম-অ্যাওয়ে জার্সি। ভিন্ন রঙের জার্সি আছে বাংলাদেশেরও।
বিশ্বকাপে একাধিক দলের মূল জার্সির রং প্রায় একই হওয়াতে ক্রিকেটেও অ্যাওয়ে জার্সির পরিকল্পনা করেছে। আর গতকাল বাংলাদেশ দল নিজেদের অ্যাওয়ে জার্সি হিসেবে লাল রঙের জার্সিটা সবার কাছে নতুন করে সামনে এনেছে।
এবার বিশ্বকাপে অবশ্য সব দলই অ্যাওয়ে জার্সি নেয়নি। ভারত, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ, দক্ষিণ আফ্রিকা ও পাকিস্তানকেই শুধু অ্যাওয়ে জার্সি বানাতে হচ্ছে। এর মধ্যে প্রথম দুই দলের মূল জার্সির রং নীল। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলার সময় ভারত-শ্রীলঙ্কা দুই দলকেই অ্যাওয়ে জার্সি পরতে হবে। নীল জার্সির ইংল্যান্ড এ ক্ষেত্রে স্বাগতিক দলের সুবিধা পাবে। ফলে তারা তাদের হোম জার্সি পরেই মাঠে নামবে।
বাংলাদেশ, দক্ষিণ আফ্রিকা ও পাকিস্তান দলের মূল জার্সির রং সবুজ। এর মাঝেই ‘প্রায় পাকিস্তানের মতো’- এ যুক্তিতে প্রথম জার্সিটা পরিবর্তন করেছে বাংলাদেশ। তবুও সবুজ রং তো আর বদলে যায়নি। ওদিকে দক্ষিণ আফ্রিকার এবারের জার্সিটাও বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের কাছাকাছি। ফলে এ তিন দলের ম্যাচগুলোতে যেকোনো এক দলকে অ্যাওয়ে জার্সি পরতে হবে।
পাকিস্তান অবশ্য এ দিক থেকে ভাগ্যবান। সবুজ জার্সি গায়ে দিয়েই প্রতিটি ম্যাচেই মাঠে নামতে পারবে তারা। পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকাকে অ্যাওয়ে জার্সি পরতে হবে। বিভিন্ন সূত্র জানিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষেও বাংলাদেশকে অ্যাওয়ে জার্সি পরতে হবে।
সম্পূর্ণ ভিন্ন রঙ্গের জার্সি থাকায় হোম বা অ্যাওয়ে জার্সির ঝামেলায় যেতে হয়নি নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। গতকালই পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচেই লাল জার্সি দেখার সুযোগ ছিল। তবে ম্যাচটি বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হওয়ায় বিশ্বকাপেই দেখা যাবে লাল জার্সির বাংলাদেশকে।
বিশ্বকাপের সূচি অনুযায়ী বাংলাদেশের গ্রুপপর্ব শুরু ও শেষ হবে লাল জার্সি দিয়ে। কাকতালই বটে!

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (9)
Al Sadik ২৭ মে, ২০১৯, ২:১৫ এএম says : 0
বাংলাদেশকে দুটি ম্যাচেই বিশেষ করে পাকিস্তানের বিপক্ষে কেন অ্যাওয়ে জার্সি পড়তে হবে এ নিয়ে আশা করি নতুন কোনো বিতর্ক শুরু হবে না। ভালো খেলাটাই বেশি আশা করব। আর গত T20 বিশ্বকাপে র্যাংকিংয়ে যে দল নিচে ছিল তাদের অ্যাওয়ে জার্সি পড়তে হয়েছিল। সে হিসেবে এটা ঠিকই আছে, যেহেতু বাংলাদেশই আপাতত নিচে আছে। আর বিশ্বকাপ শেষে বাংলাদেশের র্যাংকিংয়ে ওপরে উঠে আসার ভালো সম্বাবনা আছে।
Total Reply(0)
জয় খান ২৭ মে, ২০১৯, ২:১৫ এএম says : 1
যে কয়টায় লাল পড়ে নামবে অই কয়টা হারার সম্ভাবনা ৯০ ভাগ।
Total Reply(0)
দাউদ খান ২৭ মে, ২০১৯, ২:১৬ এএম says : 0
জার্সিতে সবুজ অল্প কেন? আমাদের পতাকায় কি এতো অল্প সবুজ? লাল রং টা এমন চটচটে কেন? চোখে লাগে না? কেমন যেন জিম্বাবুয়ে জিম্বাবুয়ে লাগছে না? লাল রং তো বিপদজনক, ট্রাফিক সিগনালের থমকে দাড়ানো, অপেক্ষা করা।আমরা তো ট্রফির জন্য অপেক্ষা করতে যাচ্ছি না, যাচ্ছি? জার্সিতে লাল না থাকলে যদি সমস্যা হয়, জার্সিতে না থাকার মতো অল্প একটু সবুজ থাকাও তো সমস্যাই, তাই না?
Total Reply(0)
তবিবুর রহমান ২৭ মে, ২০১৯, ২:১৬ এএম says : 0
খেলোয়াড়দের ব্যবহার করা জার্সিগুলো সংগ্রহে রেখে পরে নিলামে তুললে সেই অর্থ ক্রীড়া উন্নয়নে ব্যয় করা যাবে।
Total Reply(0)
Siam Ahmed ২৭ মে, ২০১৯, ২:১৭ এএম says : 0
Nice jarsi best of luck team Bangladesh
Total Reply(0)
Dewan Nazmul ২৭ মে, ২০১৯, ২:১৭ এএম says : 1
বাংলাদেশের জার্সি দেখে মনে হয় পাকিস্তান ও জিম্বাবুয়ের সংমিশ্রণে তৈরি অর্থাৎ জিম্বাকিস্তান।
Total Reply(0)
Mohammad Nur Islam ২৭ মে, ২০১৯, ২:১৭ এএম says : 0
লাল জার্সিটা সব চাইতে বেস্ট হইছে মাঠে নামলেই জলজল করবে টাইগার বাহিনি
Total Reply(0)
Md Sakil ২৭ মে, ২০১৯, ২:১৮ এএম says : 0
এই জার্সি আমাদের কেন সবার ভালোবাসার প্রতিক হিসেবে থাকবে ইন্শাআল্লাহ,,,শুভ কামনা আমার প্রিয় বাংলার জন্য
Total Reply(0)
#MR ২৭ মে, ২০১৯, ৯:০৩ এএম says : 1
সেবার যখন লাল জার্সি পরে খেলেছিল,, জিম্বাবুয়ে মনে করে পাকিস্তান যে ধোলাই টাই না দিছিল,,,,, এবার জানি কি হয়!!!!!
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন