ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ০৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

আন্তর্জাতিক সংবাদ

কুর্দিবিরোধী অভিযান তুরস্কের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ মে, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

উত্তর ইরাকের পাহাড়ি অঞ্চলে কুর্দিশ যোদ্ধাদের বিরুদ্ধে কামান ও বিমান হামলার সহায়তায় কমান্ডো অভিযান চালাচ্ছে তুরস্কের সেনাবাহিনী। মঙ্গলবার দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এমন তথ্য জানিয়েছে। এক বিবৃতিতে তুরস্ক জানায়, সোমবার বিকালে সেনাবাহিনীর কামান ও বিমান হামলা শুরু হয়েছে। আর কমান্ডো ব্রিগেডসের অভিযান শুরু হয়েছে রাত আটটার দিকে। সন্ত্রাসীদের উৎখাত ও তাদের আশ্রয়কে ধ্বংস করে দিতেই এই অভিযান বলে জানিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী। তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় সীমান্তে ইরাকের হাকুর্ক অঞ্চলে এই অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। এ অঞ্চলির অবশ্য ইরানের সঙ্গেও সীমান্ত রয়েছে। উত্তর ইরাকভিত্তিক কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি মূলত হাকুর্কের দক্ষিণের কান্দিল অঞ্চলে তৎপর। তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ভিডিওতে দেখা গেছে, পাহাড়ি অঞ্চলটিতে হেলিকপ্টার থেকে কমান্ডোরা নামছেন। এছাড়া হাউইটসার কামান থেকে গোলাবর্ষণ ও পাহাড়ির ঢালে সেনারা অবস্থান নিয়ে পর্যবেক্ষণ করার ছবিও শেয়ার করা হয়েছে। বিবৃতি জানায়, অ্যাটাক হেলিকপ্টারের সহায়তায় পরিকল্পনা অনুসারে এ অভিযান চলছে। উত্তর ইরাকের পিকেকে যোদ্ধাদের প্রায়ই বিমান হামলার নিশানা বানায় তুরস্কের সেনাবাহিনী। কিন্তু স্থল অভিযান একেবারেই বিরল। ১৯৮৪ সাল থেকে উত্তর-পূর্ব তুরস্কে বিদ্রোহ অব্যাহত রেখেছে পিকেকে। এ সংঘাতে এখন পর্যন্ত ৪০ হাজার লোক নিহত হয়েছেন। পিকেকে-কে যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও আংকারা সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে বিবেচনা করছে। রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
Yeasin Ahmed ২৯ মে, ২০১৯, ৩:০৫ এএম says : 0
এরদুগানকে আল্লাহ জেন বিজয় দান করেন আমিন
Total Reply(0)
Abdullah Hafiz Abdullah ২৯ মে, ২০১৯, ৩:০৫ এএম says : 0
জয় আমাদেরই হবে ইনশাল্লাহ
Total Reply(0)
মো হাসান ২৯ মে, ২০১৯, ৩:০৬ এএম says : 0
সাব্বাস এরদোগান
Total Reply(0)
Mohammad Ismail ২৯ মে, ২০১৯, ৩:০৬ এএম says : 0
হে আললাহ মুসলিমকে হেফাজত করুন আমিন
Total Reply(0)
আসাদুজ্জামান নূর ২৯ মে, ২০১৯, ৩:০৭ এএম says : 0
কুর্দিদের মধ্য থেকে আবির্ভাব হয়েছে সুলতান সালাহুদ্দিন আইয়ুবী নামের এক মহান বীরের। যিনি ইউরোপীয়ান ক্রুসেডার থেকে মুক্ত করেছেন বায়তুল মুকাদ্দাস এবং জেরুসালেম নগরী। এবং তিনি উদ্ধার করেছেন খৃস্টানদের হাতে দখল হওয়া আরবের অধিকৃত ভূমি সমূহ। ইতিহাসে মহান এই বিজয়ী সিপাহলারের নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে চিরকাল। কিন্তু আফসোস, আজকের কুর্দি জাতি তাদের ইতিহাস ভুলে ইহুদীদের অর্থায়নে মুসলিমদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে।
Total Reply(0)
Shariful Islam ২৯ মে, ২০১৯, ৩:০৭ এএম says : 0
সাবাস একদিন তুমাদের সাহসেই মুসলিমের জয় হবে।
Total Reply(0)
MD Zakir Hossain ২৯ মে, ২০১৯, ১০:০২ এএম says : 0
জয় হবে ইনশাল্লাহ
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন