ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ০৬ ভাদ্র ১৪২৬, ১৯ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

ভৈরবে গণধোলাইয়ের শিকার দুই এসআই প্রত্যাহার

শিক্ষার্থীকে মাদক দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগ

ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ৮ জুন, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে এক কলেজ শিক্ষার্থীর শরীরে মদ ছিটিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগে গণধোলাইয়ের শিকার দুই এসআইকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে। তারা হলেন, ভৈরব থানার এসআই আবুল খায়ের ও এসআই আজিজুল হক। কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ লিখিত আদেশে অভিযুক্ত পুলিশের দুই এসআইকে প্রত্যাহার করেন।

মঙ্গলবার সকাল থেকে এই আদেশ কার্যকর হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন ঘটনার তদন্ত কর্মকর্তা কিশোরগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. মিজানুর রহমান।

পুলিশ সুপার জানান, অভিযুক্ত দুই পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে সাদা পোশাকে চেকপোস্ট বসানো এবং মাদকের সিজার লিস্ট না করার অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আর তদন্তকারী কর্মকর্তারা অভিযোগকারী ছাত্র সজিবের সাথে কথা বলতে পারেনি। তারা সজিবের বক্তব্য নিয়ে চূড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করলে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

স্থানীয় লোকজন জানায়, ভৈরবের শম্ভুপুর পাক্কারমাথা এলাকার সাবু মিয়ার ছেলে ভৈরব সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী সজিব। গত শনিবার দুই বন্ধুকে নিয়ে সজিব মোটর সাইকেলে করে ঈদের কেনাকাটার জন্য ভৈরব বাজারে যান। সেখান থেকে ফেরার পথে চান্দ ভান্ডার দরবার শরীফের সামনে সাদা পোশাকে পুলিশের দুইজন সদস্য সজিবকে আটক করে। এ সময় তারা সজিবের গায়ে মদ ঢেলে দিয়ে তাকে মাদক ব্যবসায়ী সাজানোর চেষ্টা করে বলে সজিবের পরিবারের অভিযোগ। সজিব কৌশলে সেখান থেকে সটকে পড়ে পাক্কার মাথা এলাকায় চলে যান। পুলিশ সদস্যরাও তার পিছু নেয়। পরে সজিবকে জোর পূর্বক ধরে হাতকড়া পড়াতে চাইলে পুলিশের পোষাক পড়া না থাকায় স্থানীয় লোকজন ছিনতাইকারী ভেবে দুজনকে গণধোলাই দেয়। এক পর্যায়ে এসআই আজিজুল হক ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

ঘটনার খবর পেয়ে ভৈরব থানার এসআই মোখলেছুর রহমান রাসেল ও অভিজিৎসহ কয়েকজন পুলিশ সদস্য গিয়ে আবুল খায়েরকে উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় পুলিশ সজিবের বাবা সাবু মিয়াসহ ৫ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

পরে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে মর্মে থানায় বিষয়টি মীমাংসা করা হয়। মীমাংসার পর আটক ৫জনকে ছেঁড়ে দেয় পুলিশ।

ঘটনাটি নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদের নজরে আসে। পরে সোমবার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মিজানুর রহমানকে প্রধান করে দুই সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করে দেন। তদন্ত কমিটি মঙ্গলবার দুপুরে সরেজমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে প্রাথমিকভাবে পুলিশের দুই সদস্যের বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা পায়।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (9)
Md Akram Hossin ৮ জুন, ২০১৯, ১:৩৪ এএম says : 0
এরাই নাকি জনগণের বন্ধু।
Total Reply(0)
M R Rubel ৮ জুন, ২০১৯, ১:৩৪ এএম says : 0
এসআই আবুল খায়ের মদ ছিটিয়ে কলেজ ছাত্রকে ফাঁসাতে গিয়ে খেল গণধোলাই।
Total Reply(0)
ahad adnan ৮ জুন, ২০১৯, ১:৩৫ এএম says : 0
প্রত্যাহার করলে কি হয়? এইটা কোন শাস্তির পর্যায়ে পড়ে? একজনকে কয়বার প্রত্যাহার করা যায়?
Total Reply(1)
Mohammad Nasir ৮ জুন, ২০১৯, ১০:৫৯ এএম says : 0
Yes Mr. Adnan, I agree with you, those officers should be fired!
ahmed ৮ জুন, ২০১৯, ১:৩৫ এএম says : 0
ঘটনার সময় পুলিশের গায়ে যেহেতু উনিফরম ছিল না । তাই জনগণের উচিত ছিল তাদের ধরে গণ পিটানি দেয়া । যেখানে অন্যায় , অবিচার সেইখানে জনগণকে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে । অপহরণ, মানহানি, নির্যাতন, চাঁদাবাজির ঘটনা উল্লেখ করে সজিবের বাবা আদালতে সরাসরি দুই পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা করতে পারে ।।
Total Reply(0)
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ৮ জুন, ২০১৯, ১:৩৬ এএম says : 0
অনেক টাকা ঢেলে পজিশন পেয়েছে। সেটা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ১০ গুন হারে তুলে আনতে হবে না! পজিশন ধরে রাখতে হবে না! সেজন্য নিরীহ মানুষ হল সবচেয়ে বড় মুরগী।
Total Reply(0)
Mahbub Rahman ৮ জুন, ২০১৯, ১:৩৬ এএম says : 0
সঠিক পদক্ষেপ
Total Reply(0)
MD Manik Ahammd ৮ জুন, ২০১৯, ১:৩৬ এএম says : 0
নিজেদের ইজ্জত বাঁচাতে প্রত্যাহার হয়েছে আর কি,
Total Reply(0)
Mohammed Kowaj Ali khan ৮ জুন, ২০১৯, ১০:১০ এএম says : 0
এবারে নিরবাচনে যাহা করেছেন? মারাত্মক অন্যায়। এখন ভোট চুর, ভোট চুন্নিকে ধরেন। না হয় আপনাদের খবর আছে, ধংস হইয়া যাইবেন। ইনশাআল্লাহ।
Total Reply(0)
dr.noor muhammad ৮ জুন, ২০১৯, ৮:৫৭ এএম says : 0
era naki jnogoner bodhu? ader k pitaiya mare fela dorkar chil.tahole 2 ta januar komto.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন