ঢাকা, রোববার ২১ জুলাই ২০১৯, ০৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৭ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

মাদারীপুরে ধর্ষণের পর পুলিশের হাতে ছাত্রী লাঞ্ছিতের অভিযোগ

সোনারগাঁয়ে চলন্ত বাসে ধর্ষণচেষ্টা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ জুন, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

সোনারগাঁয়ে চলন্ত বাসে এক কিশোরীকে ধর্ষণ চেষ্টা করা হয়েছে। এ ঘটনায় স্বদেশ সার্ভিস নামের একটি বাসের চালককে পুলিশে সোপর্দ এলাকাবাসী। মাদারীপুরের কালকিনিতে এক স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের পর পুলিশের কাছে অভিযোগ দিতে দিয়ে লাঞ্ছিত হওয়ায় অভিযোগ উঠেছে। রাজবাড়ীতে ৮ম শ্রেণির ছাত্রীকে অপহরণের পর জোরপূর্বক ধর্ষণ এবং ঈদে বেড়াতে গিয়ে মাগুরায় গৃহবধূকে গণধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ করে মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করা হয়েছে। এছাড়া নারায়ণগঞ্জে তরুণী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ আম দেয়ার প্রলোভনে শিশু, নেত্রকোণায় প্রতিবন্ধী কিশোরী, সিরাজগঞ্জের বুদ্ধি প্রতিবন্ধী তরুণী, ময়মনসিংহে এক শিশু ও নরসিংদীর বেলাবতে এক কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এসকল অভিযোগে পুলিশ ৭জনকে আটক করেছে।

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে স্বদেশ বাসে চলন্ত অবস্থায় এক কিশোরী ধর্ষণরত অবস্থায় স্বদেশ সার্ভিস নামের একটি বাসের চালককে আটক করে জনতা। পরে সোনারগাঁ থানা পুলিশকে খবর দিলে চালক শামীম মিয়া ও বাসটি জব্দ করে সোনারগাঁ থানা হেফাজতে রাখা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের মেঘনা নিউটাউনের ব্যবসায়ীরা দোকান বন্ধ করে রাত সাড়ে ১০টায় বাড়ির উদ্দেশে গাড়ির জন্যে অপেক্ষা করছিল, এমন সময় ঢাকা টু মেঘনায় চলাচলরত একটি স্বদেশ গাড়ি দেখে থামাতে বললে গাড়িটি আরো দ্রুতবেগে ছুটে যেতেই বাস থেকে এক কিশোরীর বাঁচাও বাঁচাও চিৎকার শুনতে পেয়ে সাবই দৌড়ে গাড়ির সামনে দাঁড়ায়।

গাড়ি থামলে স্থানীয় লোকজন ও ব্যবসায়ীরা গাড়িতে উঠে দেখতে পায় হেলপার গাড়ি চালাচ্ছে আর গাড়ির চালক এক কিশোরী যাত্রীকে ধর্ষণ করছে। পরে সোনারগাঁ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গাড়ির চালক এবং স্বদেশ বাস (ঢাকা মেট্টো-ব-১১-৭২৬৫) গাড়িটি আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

ব্যবসায়ী জসিমউদ্দিন জানান, মেয়ে কণ্ঠে বাঁচাও বাঁচাও চিৎকার শুনে আমরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বাসের সামনে মানব দেয়াল তৈরি করি। বাসে উঠে ধর্ষণ চেষ্টারত অবস্থায় চালককে আটক করি এ ফাঁকে সুযোগ বুঝে হেলপার পালিয়ে যায়। আমরা এ ঘটনায় দৃষ্টান্তম‚লক শাস্তি চাই। এস আই তাওহিদ উল্লাহ জানান, ধর্ষক শামীম মিয়া নানাখি মধ্যপাড়া গ্রামের আ. রব ভ‚ইয়ার ছেলে।

মাদারীপুর : মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার লক্ষীপুর গ্রামে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় পুলিশ প্রথমে মামলা না নিয়ে কিশোরী ও তার স্বজনদের শারিরীকভাবে লাঞ্ছিত করেছে বলে অভিযোগ করেছেন কিশোরীর পরিবার।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কালকিনি উপজেলা লক্ষীপুর গ্রামের এক কিশোরীকে রবিবার গভীর রাতে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে পাশের পাটক্ষেতে ধর্ষণ করে একই এলাকার ওয়ারেশ খানের ছেলে রাজিব খান। পরে স্থানীয়রা বিষয়টি টের পেয়ে রাজিবকে আটকে রাখে। এসময় খাসেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে খবর দিলে খাসেরখাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই বেল্লালসহ ৫ পুলিশ কিশোরীকে ও তার স্বজনদের শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে।

বিষয়টি পুলিশ সুপার জানতে পেরে তার হস্তক্ষেপে রাতেই কালকিনি থানায় মামলা হয়। কিশোরীর পরিবারের দাবি পুলিশের হুমকিতে রাতেই মাদারীপুর সদর হাসপাতালে থেকে কিশোরীকে বাড়ি নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তবে গ্রেফতার হয়নি অভিযুক্ত আসামি।

ওই কিশোরী বলেন, পুলিশ আমাকে চর থাপ্পর দিয়েছে। এছাড়াও পুলিশ আমার আত্মীয়-স্বজনদেরও মারধর করেছে। আমি এর বিচার চাই। তবে অভিযোগের ব্যাপারে খাসেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই বেল্লাল হোসেনের সাথে যোগাযোগ করতে পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে গেলে তাকে পাওয়া যায়নি। মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বদরুল আলম মোল্লা দাবী করেছেন পুলিশের নির্যাতনের অভিযোগ সত্য নয়। তিনি আরো বলেন, ধর্ষণের ঘটনায় মামলা হয়েছে।

মাগুরা : মাগুরায় ঈদের ছুটিতে বেড়াতে এসে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক গৃহবধূ। সদর উপজেলার বারাশিয়া গ্রামে গত রোববার এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় মাগুরা সদর থানায় একটি মামলা হয়েছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার রাত আনুমানিক সাড়ে আঁটার দিকে স্বামীর সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বলতে বাড়ির বাইরে আসেন তিনি। এ সুযোগে স্থানীয় লিটু মোল্যা (২৭), রেজোয়ান মোল্যা (২১) ও শামিম বিশ্বাস (২১) তাকে তুলে নিয়ে গিয়ে একটি পাট খেতে গণধর্ষণ করেন।

এসময় ধর্ষণের নগ্ন ছবি ও ভিডিও ধারণ করে লিটু মোল্যা ওই নারীর স্বামীর কাছে ফোনে মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করেন। এ বিষয়ে মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম বলেন, সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা হয়েছে এবং অভিযুক্তদের গ্রেফতারের অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

নেত্রকোনা : নেত্রকোনায় প্রথমে জঙ্গলে পরে গোয়ালঘরে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। গত সোমবার বিকেলে কেন্দুয়া উপজেলায় উপজেলার গড়াডোবা ইউনিয়নের সাখরা গ্রাম এলাকার কাছে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গতকাল পুলিশ চন্দলাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে কাজল (৪০),আব্দুর রহমানের ছেলে হুমায়‚ন (২৫) ও রইছ উদ্দিনের ছেলে জামরুল (২৮)নামে তিন যুবককে আটক করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানা গেছে, কিশোরী একই ইউনিয়নের আউজহাটি শিবপুর গ্রামের ফুফুর বাড়ি থেকে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে বিকাল তিনটার দিকে সাখরা গ্রামের কাছে পৌঁছলে চার যুবক মিলে মেয়েটিকে প্রথমে স্থানীয় একটি জঙ্গলে এবং পরে পুবাইল গ্রামের মুন্নাফ মিয়ার গোয়াল ঘরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় বিষয়টি টের পেয়ে স্থানীয়রা মেয়েটিকে উদ্ধার করে।

সিরাজগঞ্জ : সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার কৈজুরি ইউনিয়নের জয়পুরা গ্রামের রিকশা চালক নুরুল ইসলামের বুদ্ধি প্রতিবন্ধী মেয়েকে একই গ্রামের আমিরুল ইসলামের কলেজ পড়ুয়া ছেলে আব্দুল মমিন মুন্না ফুসলিয়ে যমুনা নদীর ধারের কাঁশবনে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় গত রোববার দুপুরে মেয়েটির বাবা নুরুল ইসলাম শাহজাদপুর থানায় মামলা করেছেন। বুদ্ধি প্রতিবন্ধী মেয়ের মা মনোয়ারা বেগম জানান, গত শুক্রবার বিকেলে বাড়ির পাশের যমুনা নদীর ধারের চরা থেকে রত্মা ছাগল আনতে যায়। সেখানে আগে থেকে উপস্থিত মমিন তাকে ফুসলিয়ে পাশের কাঁশবনে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ ব্যাপারে শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আতাউর রহমান বলেন, মামলার তদন্ত চলছে।

ফুলপুর (ময়মনসিংহ) : ময়মনসিংহের তারাকান্দায় ১২ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ করার অভিযোগে পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে শিশুটির মা মনোয়ারা খাতুন বাদী হয়ে গত রোববার তারাকান্দা থানায় মামলা করেন। তারাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান আকন্দ জানান, দ্রুত সময়ে আসামি হাফিজুলসহ সকলকে গ্রেফতার করা হবে।

বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী) : রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে অষ্টম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক মাদাসা ছাত্রীকে অপহরণের পর জোড়পূর্বক ধর্ষণের ঘটনায় গত সোমবার পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতের নাম, ইকরাম শেখ (২০) উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের হুলাইল গ্রামের ফারুক শেখের ছেলে ।

বালিয়াকান্দি থানার এস, আই হাবিবুর রহমান বলেন, ইকরাম শেখ অষ্টম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক মাদরাসা ছাত্রীকে যাতায়াতের পথে উত্যক্ত করে আসছিল। তার প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় গত রোববার সন্ধ্যা ৮টার দিকে বাড়ী থেকে অপহরণ করে নিয়ে সারুটিয়া গ্রামের বিষু শেখের ছেলে একেন শেখের পরিত্যক্ত ঘরে আঁকে রেখে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। এব্যাপারে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে গত সোমবার মামলা দায়ের করেন।

চাঁপাইনবাবঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার বারোঘরিয়া এলাকায় আট বছর বয়সী এক শিশুকে আম দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে সেলিম রেজা (৪৫) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত সেলিম বারোঘরিয়া নীলকুটিপাড়ার মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে।

নরসিংদী : নরসিংদীর বেলাবতে এক কলেজছাত্রীকে (১৮) ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে গত সোমবার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করা হয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য ওই ছাত্রীকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মামলায় অভিযুক্তরা হলেন, চর উজিলাব ইউনিয়নের চর আমলাব গ্রামের মজনু মিয়ার বখাটে ছেলে রাসেল (১৮) ও শামসুল হকের ছেলে নুরুল ইসলাম(২০)।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাত ১০টার দিকে কলেজছাত্রী ঘর থেকে বাইরে বের হয়। ওই সময় পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা বখাটে রাসেল ও নুরুল ইসলাম তার মুখ কাপড় দিয়ে বেঁধে বাড়ির পাশে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এসময় তারা ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে মেয়েটির শরীরের বিভিন্ন স্থানে কামড়িয়ে ও কিলঘুষি দিয়ে গুরুত্বর আহত করে। এতে মেয়েটি জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। পরে বখাটেরা তাকে মৃত ভেবে পালিয়ে যায়।

নারায়ণগঞ্জ : চট্টগ্রাম থেকে নারায়ণগঞ্জে প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে এসে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক তরুণী। এ ঘটনায় সোমবার দুপুরে প্রেমিক সানিসহ তার মা ও ভাইকে আসামি করে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় মামলা করেছেন ধর্ষণের শিকার তরুণী। ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত রবিউল ইসলাম সানি মুন্সীগঞ্জের ফুলতলা এলাকার ন‚রুল হক বেপারীর ছেলে।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, প্রেমিকের দাওয়াত পেয়ে গত শুক্রবার চট্টগ্রাম থেকে নারায়ণগঞ্জে আসেন তরুণী। পরে শহরের একটি বাড়িতে নিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ করে সানি। নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশের ওসি কামরুল ইসলাম বলেন, তরুণীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। ধর্ষককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
arif ১২ জুন, ২০১৯, ১০:৩৪ এএম says : 0
eta dukkho jonok
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন