ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৬ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

আজ তিউনিসিয়া থে‌কে ফিরবেন ১৭ বাংলা‌দে‌শি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ জুন, ২০১৯, ৪:১১ পিএম

তিন সপ্তাহ ধরে তিউনিসিয়ার সাগরে ভে‌সে থাকা দে‌শে ফি‌রে আস‌তে রা‌জি হ‌য়ে‌ছেন ৬৪ বাংলা‌দেশি। এর ম‌ধ্যে ১৭ জন আজ বিকেল সোয়া পাঁচটায় কাতার এয়ারওয়েজের ফ্লাইটে তিউনিসিয়া থেকে ঢাকায় পৌঁছাবেন।

ভূমধ্যসাগর দি‌য়ে এভা‌বে বি‌দে‌শে যাওয়ার চেষ্টা বাংলা‌দেশের ভাবমু‌র্তি‌কে সংক‌টে ফেল‌ছে জা‌নি‌য়েছেন বেসরকা‌রি সংস্থা ব্র্যা‌কের‌ অভিবাসন কর্মসূ‌চির প্রধান শ‌রিফুল হাসান। তি‌নি ব‌লেন, আমরা খোঁজ নি‌য়ে জে‌নে‌ছি এই ১৭ জনের ম‌ধ্যে আটজনই মাদারপু‌রের। বা‌কি নয়জ‌নের মধ্যে চারজন চারজন ব্রাহ্মণবা‌ড়িয়ার। বা‌কি পাঁচজ‌নের বা‌ড়ি শরীয়তপুর, নোয়াখালী, চাঁদপু‌র, মৌলভীবাজার ও সুনামগঞ্জ জেলার। এই ধর‌নের মানবপাচার যে কোন মূ‌ল্যে বন্ধ কর‌তে হ‌বে।

‌রেড‌ক্রি‌সেন্ট সূত্র ধ‌রে আন্তর্জা‌তিক বি‌ভিন্ন গণমাধ্যম বল‌ছে, প্রায় তিন সপ্তাহ ধরে তিউনিসিয়ার সাগরে এক‌টি নৌকায় ভাস‌ছি‌লেন ৭৫ জন শরণার্থী, যা‌দের ম‌ধ্যে ৬৪ জনই বাংলা‌দে‌শি। নৌকাটি তিউনিয়ার উপকূলের কাছে পৌঁছালেও কর্তৃপক্ষ তীরে নামার অনুমতি দেয়নি।

তিউনিসিয়া কর্তৃপক্ষ জানায়, তাদের শরণার্থী কেন্দ্রে আর জায়গা দেয়া সম্ভব নয়। ফলে ওই নৌকাটি উপকূলীয় জারজিস শহর থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে সাগ‌রে ভাস‌তে থাকে। প‌রে বাংলা‌দেশ দূতাবা‌সের কর্মকর্তারা সেখা‌নে যান।

লি‌বিয়ার বাংলা‌দেশ দূতাবাস সূত্রে জানা গে‌ছে, আটকে পড়া বাংলাদেশিরা দেশে ফিরে যাবেন, দূতাবাসের পক্ষ থেকে তিউনিসিয়ার কর্তৃপক্ষক এমন নিশচয়তা প্রদানের পর সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তাদেরকে ১৮ জুন সন্ধ্যায় জারজিস বন্দরে নামার অনুমতি দেয়। তবে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ কোনোক্রমেই তাদেরকে জারজিস বা মেডেনিনে থাকার অনুমতি প্রদান করেনি।

এ অবস্থায় উদ্ধারকৃত বাংলাদেশীদের কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থায় তিউনিসে এনে রেড ক্রিসেন্ট ও আইওএম এর যৌথভাবে পরিচালিত শেল্টার হাউজে রাখার ব্যবস্থা করা হয়। সেখান থে‌কে পর্যায়ক্রমে সবাইকে দেশে পাঠা‌নো হ‌চ্ছে।

এর ম‌ধ্যে প্রথম দফায় ২০ জন‌কে টি‌কিট দি‌লেও তিনজন আসতে রা‌জি হন‌নি। বা‌কি ১৭ জন আজ বি‌কে‌লে ঢাকায় কাতার এয়ারওয়েজের কিউআর-৬৩৪ ফ্লাইটযোগে আসছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন