ঢাকা, সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯, ০৭ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৮ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

এবার চলন্ত ট্রেনে ধর্ষণ চেষ্টা

ফরিদগঞ্জ-সাভারে দুই স্কুলছাত্রী : আটক ৩

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ জুন, ২০১৯, ১২:০৭ এএম

এবার ঢাকা-রাজশাহী আন্তঃনগর সিল্কসিটি এক্সপ্রেসের টয়লেটে এক কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। এ ঘটনায় ওই বখাটেকে অন্যান্য যাত্রীরা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে ট্রেনের ‘ঝ’ বগির টয়লেটে এ ঘটনা ঘটে। আটক যুবক মমিনুল ইসলাম (২৭) বর্তমানে ঈশ্বরদী রেল থানায় (জিআরপি) রয়েছে। এছাড়া ফরিদগঞ্জে ষষ্ঠ শ্রেণির ও সাভারে স্কুলছাত্রী ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এদিকে, সখিপুরে ৫ম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণ চেষ্টায় একজনসহ বিভিন্ন্ স্থানে ৩ জন আটক করেছে পুলিশ।

রাজশাহী ব্যুরো জানায়, ঢাকা থেকে রাজশাহীগামী ‘সিল্কসিটি এক্সপ্রেস’ ট্রেনের টয়লেটে এক কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মমিনুল নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। তার বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরে। সে একজন নির্মাণ শ্রমিক।

চলন্ত ট্রেনে শ্লীলতাহানির শিকার ১৪ বছর বয়সী ওই কিশোরীর বাড়ি সিরাজগঞ্জে। সে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী। তার নানা বাড়ি রাজশাহীর পবা উপজেলার দামকুড়াহাট এলাকায়। নানি ও খালার সঙ্গে সে রাজশাহী আসছিল। সিরাজগঞ্জের মনসুর আলী স্টেশনে তারা সিল্কসিটি এক্সপ্রেস ট্রেনের ‘ঝ’ বগিতে ওঠে। এই ট্রেনে দায়িত্ব পালন করছিলেন সিরাজগঞ্জ রেলওয়ে থানার সহকারি উপ-পরিদর্শক (এএসআই) উজ্জ্বল চন্দ্র বিশ্বাস। তিনিই ওই কিশোরিকে ট্রেনের টয়লেট থেকে উদ্ধার করেন। তিনি জানান, রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী স্টেশন আসা পর্যন্ত প্রায় ৪০ মিনিট সে ওই কিশোরিকে টয়লেটে আটকে রেখে ধর্ষণ চেষ্টা করে।

এএসআই উজ্জ্বল বলেন, ট্রেনের শব্দের কারণে ওই কিশোরীর চিৎকার শোনা যায়নি। তবে যাত্রীরা লক্ষ্য করেন অনেকক্ষণ ধরেই টয়লেটের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ। তারা দরজায় ধাক্কা দিয়ে খুলতে বলেন। কিন্তু দরজা খোলা হচ্ছিল না। এক পর্যায়ে তারা ওই কিশোরির চিৎকার শুনতে পান। এরপরই দায়িত্বরত পুলিশ এসে টয়লেটের দরজা খুলতে বাধ্য করে। এ সময় কাঁদতে কাঁদতে ওই কিশোরি বেরিয়ে আসে। তখন ট্রেনের যাত্রীরা মমিনুলকে মারধর শুরু করে। এ সময় যাত্রীদের হাত থেকে উদ্ধার করে পুলিশ মমিনুলকে নিজেদের হেফাজতে নেয়। রাত পৌনে ১১টার দিকে ট্রেনটি রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছে। অভিযুক্ত যুবক, ওই কিশোরী এবং তার খালা ও নানিকে রাজশাহী রেলওয়ে থানায় নিয়ে এসে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

রাজশাহী রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাঈদ ইকবাল জানান, নির্মাণ শ্রমিক মমিনুল ঢাকা থেকে বাড়ি আসছিল। কিশোরির ভাষ্য অনুযায়ী, ট্রেনের টয়লেটের ভেতর মমিনুল দীর্ঘ সময় ধরে ওই কিশোরীর মুখ চেপে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। তবে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেনি। কিš ‘ধর্ষণ চেষ্টা ঘটেছে। ওসি বলেন, ঘটনাস্থল রেলওয়ের ঈশ্বরদী থানার অধীনে। তাই রাত ১২টার ঢাকাগামী ‘ধূমকেতু এক্সপ্রেস’ ট্রেনে অভিযুক্ত যুবককে ঈশ্বরদী থানায় পাঠানো হয়েছে। ওই কিশোরিকে নিয়ে তার নানি এবং খালাও গেছেন। ঈশ্বরদী থানায় তারা মমিনুলের বির”দ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা করেছে।

স্টাফ রিপোর্টার, চাঁদপুর থেকে জানান, চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে ষষ্ঠ শ্রেণির এক শিক্ষার্থী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। দীর্ঘ সময় ধর্ষণের শিকার ছাত্রীটির প্রাণ নাশের ভয়ে বিষয়টি নীরব ছিল। কিন্তু অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরণের ফলে ছাত্রীকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে আসলে বিষয়টি ধরা পড়ে। পরবর্তীতে শিক্ষার্থী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে তার মাকে জানায়।

ধর্ষণের শিকার শিক্ষার্থীর মা জানান, গত রাববার রাতে একই বাড়ির নুর মোহাম্মদের লম্পট ছেলে সালামত উল্লা কৌশলে তার মেয়েকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে। কিন্তু ধর্ষক সালামত আমার মেয়েকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়ায় সে বিষয়টি আমাকে জানায়নি। ঘটনার পর মেয়েটির রক্তক্ষরণ শুর” হলে প্রথমত ভেবেছি হয়তো প্রকৃতির নিয়মে তা হচ্ছে। কিন্তু অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ শুর” হওয়ায় তাকে একজন চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাই। তখন বিষয়টি ধরা পড়ে। এরপর মেয়েটি প্রকৃত ঘটনাটি আমার কাছে খুলে বলে। এখন মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছি। আমি ঘটনার উপযুক্ত বিচার চাই।

স্টাফ রিপোর্টার, সাভার থেকে জানান, ঢাকার সাভারে ১০ বছরের এক শিশু স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে সাদ্দাম হোসেন (২৬) নামের এক বখাটে যুবককে গ্রেফতর করেছে পুলিশ। গতকাল সকালে তাকে সাভারের তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের শ্যামপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। সে শ্যামপুর এলাকার কুতুব উদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে শ্যামপুর এলাকায় স্থানীয় একটি স্কুলের ছাত্রীকে কৌশলে এক পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণকরে বখাটে যুবক সাদ্দাম হোসেন। পরে সকালে ওই স্কুল ছাত্রীর বাবা সাভার মডেল থানায় ধর্ষণকারীর বির”দ্ধে অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ শ্যামপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে বখাটে সাদ্দামকে গ্রেফতার করে।

এদিকে, সাভারের আশুলিয়ার ধনাইদে করলা কেটে দেয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে তরুণীকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করা সেই যুকককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১। বৃহস্পতিবার বিকেলে ধনাইদের ইউসুফ মার্কেট সংলগ্ন এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে সন্ধ্যায় র‌্যাব ধর্ষক জামশেদকে আশুলিয়া থানায় হস্তান্তর করে। গ্রেফতার জামশেদ গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার ভাঙাবুনিয়া গ্রামের মো. আব্দুল হান্নানের ছেলে।

সখিপুর (টাঙ্গাইল) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, টাঙ্গাইলের সখিপুরে ৫মশ্রেনীর ছাত্রী ধর্ষণ চেষ্টাকারী মসজিদের মোয়াজ্জিন র”হুল আমিনকে গ্রেফতার করেছে সখিপুর থানা পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার রাতে ময়মনসিংহ জেলার ফুলবাড়িয়া উপজেলার বড়কা গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয় বলে পুলিশ জানায়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
আকাশ ২২ জুন, ২০১৯, ১২:১৭ এএম says : 0
বাসের পর এবার ট্রেন? কি আর বলবো
Total Reply(0)
MAHMUD ২২ জুন, ২০১৯, ৭:১৫ এএম says : 0
No have any language how to hate the rapacious. Everyday see the rape tidings in news paper, rape is running in BUS, BOAT, LAUNCH,TRAIN and others places like as virus. Womankind are no safety in any place from the rape. So very sadly telling, Rape is here, Rape is there and Rape is everywhere. Who will control this? Hi ALLAH save the womankind in our country from rape and rapacious.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন