ঢাকা, শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯, ০৫ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৬ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

খেলাধুলা

দক্ষিণ আফ্রিকাকে বিদায় করে টিকে থাকলো পাকিস্তান

আইসিসি বিশ্বকাপ ২০১৯

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ জুন, ২০১৯, ১১:৩৭ পিএম

উইকেটের খাতা খুলতে পারতেন আরো আগেই। ফিল্ডারদের অসাবধানী হাত তা হতে দেয়নি। ক্যাচ মিসের মহড়ায় বঞ্চিত হয়েছেন উল্লাস করা থেকে। অবশেষে আর কারো মুখাপেক্ষী না হওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেন, ওয়াহাব রিয়াজ পেলেন তার প্রতিদানও।

ম্যাচের শেষদিকে এসে একে একে সরাসরি বোল্ডে তুলে নিলেন তিন প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানকে। ঝড় তোলার চেষ্টায় থাকা ক্রিস মরিসকে ফিরিয়ে শুরু, তার পরের ওভারেই তুলে নিলেন রাবাদাকে। আর এনগিডিকে যে বলটিতে স্ট্যাম্প ওড়ালেন তাতে হিমশিম খেত বাঘা বাঘা বোলাররাও!

তার বোলিংয়েই দক্ষিণ আফ্রিকাকে বিদায় করে নিশ্চিত করলেন পাকিস্তানের সহজ জয়। ৭ উইকেটে করা পাকিস্তানের দেয়া ৩০৮ রানের জবাবে দক্ষিণ আফ্রিকা থামে ৯ উইকেটে ২৫৯-এ। বিরানব্বইয়ের চ্যাম্পিয়নদের জয়টি ৪৯ রানের।

ডু প্লেসিসের দলের আশার বাতি জ্বলিয়ে ৪৬ রানে অপরাজিত ছিলেন ফেলুকাওয়ে। আফগানিস্তানের পর দ্বিতীয় দল হিসেবে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিল দক্ষিণ আফ্রিকা। সেই সঙ্গে টিকে থাকলো সরফরাজ আহমেদের দলের সেমির স্বপ্নও।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

পাকিস্তান: ৫০ ওভারে ৩০৮/৭ (ইমাম ৪৪, ফখর ৪৪, বাবর ৬৯, হাফিজ ২০, সোহেল ৮৯, ইমাদ ২৩, ওয়াহাব ৪, সরফরাজ ২*, শাদাব ১*; রাবাদা ১০-০-৬৫-০, এনগিডি ৯-০-৬৪-৩, মরিস ৯-০-৬১-০, ফেলুকোয়ায়ো ৮-০-৪৯-১, তাহির ১০-০-৪১-২, মারক্রাম ৪-০-২২-১)।

দক্ষিণ আফ্রিকা: ৫০ ওভারে ২৫৯/৯ (আমলা ২, ডি কক ৪৭, দু প্লেসি ৬৩, মারক্রাম ৭, ফন ডার ডাসেন ৩৬, মিলার ৩১, ফেলুকোয়ায়ো ৪৬*, মরিস ১৬, রাবাদা ৩, এনগিডি ১, তাহির ১*; হাফিজ ২-০-১১-০, আমির ১০-১-৪৯-২, আফ্রিদি ৮-০-৫৪-১, ওয়াসিম ১০-০-৪৮-০, ওয়াহাব ১০-০-৪৬-৩, শাদাব ১০-১-৫০-৩)।

ফল: পাকিস্তান ৪৯ রানে জয়ী।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: হারিস সোহেল।

---------------------------------

ভয়ঙ্কর মিলারকে ফেরালেন আফ্রিদী

আগের ওভারেই ডুসেনকে ফিরিয়ে জুটি ভেঙেছিলেন শাদাব। সেই হতাশা থেকেই কিনা বেশিদূর এগোতে পারলেন না মিলারও (৩১)। বুদ্ধিদীপ্ত এক স্লোয়ারে এই মারমুখী ব্যাটসম্যানকে সরাসরি বোল্ড করেন শাহীন শাহ আফ্রিদী।

৪২ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারানো দক্ষিন আফ্রিকার সংগ্রহ ১৯৭। জয় থেকে এখনও ১১২ রান, হাতে মাত্র ৪৮ বল ও ৪ উইকেট।

ডুসেনকে ফিরিয়ে এবার জুটি ভাঙলেন শাদাব

বড় লক্ষ্য তাড়ায় শুরু থেকেই ধুঁকতে থাকা দক্ষিন আফ্রিকাকে টেনে নিয়ে যাচ্ছিলেন ডেভিড মিলার ও ভেন ডার ডুসান। জমে যাওয়া এই দু’জন জুটিতে যোগ করেন ৫৩ রান। ঠিক সেই সময় ফের পাকিস্তানের ত্রাতা হিসেবে প্রেক্ষাপটে শাদাব খান। দারুণ এক বলে হাফিজের দুর্দান্ত এক ক্যাচে ৪৭ বলে ৩৬ রান করা এই মিডল অর্ডারকে।

৪০ ওভার শেষে ৫ উইকেট হারানো প্রোটিয়াদের সংগ্রহ ১৯০।

আক্রমণাত্মক ডু প্লেসিসকে ফেরালেন আমির

ধীরে ধীরে আক্রমনাত্বক হয়ে ওঠা ডু প্লেসিসকে (৬৩) ফেরালেন আমির। ম্যাচে এটি তার দ্বিতীয় শিকার। দ্বিতীয় স্পেলে বল করতে এসে তৃতীয় বলেই প্রোটিয়া অধিনায়ককে সরফরাজের তালুবন্দী করেন এই বাহাতি পেসার। ডুসেন ১৭ রানে ও মিলার ১ রানে অপরাজিত আছেন। এই উইকেট পেয়ে বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির তালিকায় (১৫) পৌছে গেলেন তিনি। ইংলিশ বোলার আর্চারের উইকেট সংখ্যাও ১৫। তবে গড় কম থাকায় শীর্ষে থাকছেন আমির।

৩০ ওভার শেষে দক্ষিন আফ্রিকার সংগ্রহ ৪ উইকেট হারিয়ে ১৩৮ রান।

শাদাবের দ্বিতীয় শিকার মারক্রাম

মারক্রামকে ক্রিজে বেশিক্ষন থাকতে দিলেন না শাদাব। ২৩তম ওভারের প্রথম বলেই সরাসরি বোল্ড করে তাকে ফিরিয়ে দেন এই লেগি। ডু প্লেসিস ৫১ রানে ও ডুসেন ৪ রানে অপরাজিত আছেন।

২৬ ওভার শেষে দক্ষিন আফ্রিকার সংগ্রহ ৩ উইকেট হারিয়ে ১১২ রান।

ডি কককে ফেরালেন শাদাব

১৯তম ওভারে ওয়াহাবকে একটি চার ও একটি ছক্কা হাঁকানোর পরের ওভারে লেগ স্পিনার শাদাবকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে ক্যাচ আউট হয়ে ফেরেন ডি কক। ডু প্লেসিস ৪১ রানে ও মারক্রাম ১ রানে অপরাজিত আছেন।

২০ ওভারে সংগ্রহ ২ উইকেটে ৯২ রান।

পঞ্চাশ পেরুল দক্ষিন আফ্রিকা

আমলার বিদায়ের পর ডু প্লেসিস ও ডি ককের ব্যাটে পঞ্চাশ পেরিয়েছে দক্ষিন আফ্রিকা। এই দুই ব্যাটসম্যানের জুটিও পঞ্চাশ পেরিয়েছে ইতিমধ্যে। ডু প্লেসিস ৩৩ ও ডি কক ২৩ রানে অপরাজিত আছেন।

১৪ ওভারে সংগ্রহ ১ উইকেটে ৫৯ রান।

প্রথম বলেই আমলাকে ফেরালেন আমির

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে আমিরের প্রথম বলেই আমলাকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন আমির। প্রথমে আম্পায়ার নট আউটের সিদ্ধান্ত নিলে পরে রিভিউ নেন সরফরাজ। তাতে দেখা যায়, বল স্ট্যাম্পে আঘাত করে। পরে সিদ্ধান্ত বদলাতে হয় আম্পায়ারকে। ডি কক ১ রানে ও প্লেসিস ৪ রানে অপরাজিত আছেন।

দলীয় সংগ্রহ ২ ওভারে ১ উইকেটে ৮ রান।

দক্ষিন আফ্রিকাকে ৩০৯ রানের টার্গেট দিল পাকিস্তান

হারিস সোহেলের বিধ্বংসী ৮৯ রান ও বাবর আজমের ৬৯ রানে ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ৩০৮ রান করেছে পাকিস্তান। শেষ ১০ ওভারে দলটি তুলেছে ৯১ রান। ব্যাক্তিগত কোটার শেষ ২ ওভারে সোহেল, ইমাদ ও ওয়াহাবকে ফিরিয়েছেন এনগিডি। অবশ্য তার আগেই বড় সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছে সরফরাজের দল। জয়ের জন্য দক্ষিণ আফ্রিকাকে করতে হবে ৩০৯ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

পাকিস্তান: ৩০৮/৭ (৫০ ওভার) (ইমাম ৪৪, ফখর ৪৪, বাবর ৬৯, হাফিজ ২০, সোহিল ৮৯, ইমাদ ২৩, ওয়াহাব ৪, সরফরাজ ২*, শাদাব ১*; রাবাদা ৬৫/০, এনগিডি ৬৪/৩, মরিস ৬১/০, ফেলকায়ো ৪৯/১,  তাহির ৪১/২, মারক্রাম ২২/১)

সোহেলের ফিফটিতে আড়াইশ পেরিয়েছে পাকিস্তান

এবারের বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমে পেয়ে গেলেন অর্ধশত রান্ পেরিয়েছেন সোহেল। ৪৩ বলে ৬৫ রানে অপরাজিত আছেন তিনি। ইমাদ ২ বলে ৫ রানে অপরাজিত আছেন।

৪৪ ওভারে সংগ্রহ ৪ উইকেটে ২৫৮ রান।

ফেলুকায়োর প্রথম শিকার বাবর

ক্রিজে সেট হয়ে দুর্দান্ত খেলা বাবরকে ফিরিয়ে দিলেন ফেলুকায়ো। এনগিডির ক্যাচে পরিনত হওয়ার আগে ৬৯ রান করেন তিনি। সোহেল ৪৫ রানে ও ইমাদ ০ রানে অপরাজিত আছেন।

৪২ ওভারে সংগ্রহ ৪ উইকেটে ২২৯ রান।

বাবরের ব্যাটে এগুচ্ছে পাকিস্তান

বাবরের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে এগিয়ে যাচ্ছে পাকিস্তান। পাকিস্তান ইনিংসে আজ প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে অর্ধশত রান পূর্ণ করেন তিনি। বাবর ৫২ রানে ও সোহেল ৩০ রানে অপরাজিত আছেন। ইতিমধ্যে এই দুই ব্যাটসম্যানের জুটিও পঞ্চাশ পেরিয়েছে।

দলীয় সংগ্রহ ৩৭ ওভারে ৩ উইকেটে ১৯৬ রান।

হাফিজকে ফেরালেন মারক্রাম

হাফিজকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে ৪৫ রানের জুটি ভেঙে দেন মারক্রাম। ফেরার আগে তিনি ২০ রান করেন। বাবর ৩১ রানে ও সোহেল ০ রানে অপরাজিত আছেন।

৩০ ওভারে সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১৪৩ রান।

রিভিউ হারাল দক্ষিন আফ্রিকা

তাহিরের ওভারের পঞ্চম বলে ছক্কা মারার পরে আবারও আক্রমনাত্বক শর্ট খেলার চেষ্টা করেন হাফিজ। কিন্তু বলটি তার ব্যাটে স্টর্শ করেনি। তাহিরের আবেদনে সাড়া দেননি আম্পায়ার। তবে রিভিউ নেয়ার পর দেখা যায় বেলটি স্ট্যাম্পের বাইরে আঘাত করছে। তাই রিভিউটি বাতিল হয়ে যায়। এ ম্যাচে দক্ষিন আফ্রিকার আর কোন রিভিউ নেই।

তাহিরের দ্বিতীয় শিকার ইমাম

ফখরকে ফেরানোর পর এবার আরেক ওপেনার ইমামকে নিজের দ্বিতীয় শিকারে পরিনত করলেন তাহির। নিজের বলে ফলোথ্রুতে নিজেই ক্যাচ ধরে বিদায় করেন ইমামকে (৪৪)। বাবর  ৮ রানে ও হাফিজ ০ রানে অপরাজিত আছেন।

২১ ওভারে সংগ্রহ ২ উইকেটে ৯৮ রান।

ফখরকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙলেন তাহির

দুর্দান্ত খেলতে থাকা ফখরকে নিজের প্রথম ওভারেই ফিরিয়ে দিলেন তাহির। তাহিরকে স্কুপ করতে গিয়ে স্লিপে আমলার তালুবন্দী হন এই বাহাতি। ইমাম ৩৫ রানে ও বাবর ০ রানে অপরাজিত আছেন্

দলীয় সংগ্রহ ১৫ ওভারে ১ উইকেটে ৮১ রান।

পাকিস্তানের দুর্দান্ত শুরু

টস জিতে ব্যাটিং নেয়ার পর দুর্দান্ত শুরু করেছেন দুই পাকিস্তানি ওপেনার ইমাম ও ফখর। চারটি চার ও একটি ছয়ে ফখর ২৪ রানে এবং তিন চারে ২১ রানে অপরাজিত আছেন ইমাম।

৭ ওভারে দলীয় সংগ্রহ বিনা উইকেটে ৪৬ রান।

টসে জিতে ব্যাটিংয়ে পাকিস্তান

টসে জিতে ব্যাটিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পাকিস্তান অধিনায়ক সবফরাজ আহমেদ। টসে জিতলে দক্ষিন আফ্রিকার অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস বলেছেন, টস হারাটা তার জন্য ভালো হয়েছে। তিনি টসে জিতলে বোলিং নিতেন।

পাকিস্তান দলে আছে দুটি পরিবর্তন। হারিস সোহেল ও শাহিন আফ্রিদি একাদশে খেলছেন, বাদ পড়েছেন শোয়েব মালিক ও হাসান আলী। অন্যদিকে দক্ষিন আফ্রিকা আজ আগের একাদশ নিয়েই মাঠে নামবে।

পাকিস্তান একাদশ: ফখর জামান, ইমাম উল হক, মোহাম্মদ হাফিজ, হারিস সোহেল, সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), ইমাদ ওয়াসিম, শাদাব খান, ওয়াহাব রিয়াজ, মোহাম্মদ আমির, শাহিন আফ্রিদি।

দক্ষিন আফ্রিকা একাদশ: হাশিম আমলা, কুইন্টন ডি কক (উইকেটরক্ষক), ফাফ ডু প্লেসিস (অধিনায়ক), এইডেন মারক্রাম, র‌্যাসি ভ্যান দার ডুসেন, ডেভিড মিলার, আন্দিলে ফেলুকায়ো, ক্রিস মরিস, কাগিসো রাবাদা, ইমরান তাহির, লুঙ্গি এনগিডি।

টিকে থাকার লড়াইয়ে দক্ষিন আফ্রিকার মুখোমুখি পাকিস্তান

বিশ্বকাপের ৩০তম ম্যাচে টিকে থাকার লড়াইয়ে দক্ষিন আফ্রিকার মুখোমুখি পাকিস্তান। লর্ডসে বাংলাদেশ সময় দুপুর সাড়ে তিনটায় ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। পাঁচ ম্যাচে এক জয়ে ৩ পয়েন্ট সিয়ে টেবিলের ৯ম স্থানে পাকিস্তান। শেষ চারের দৌড়ে টিকে থাকতে হলের্ আজকের ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই। অন্যদিকে ছয় ম্যাচে এক জয়ে তিন পয়েন্ট নিয়ে প্রোটিয়ারা আছে টেবিলের আটে। তবে তাদের সম্ভাবনা প্রায় শেষ হয়ে গেছে।

পরিসংখ্যান:

মু্খোমুখি লড়াইয়ে অনেকটা এগিয়ে দক্ষিন আফ্রিকা। বিশ্বকাপের দেখায়ও এগিয়ে দলটি। তবে এ মুহুর্তে ছন্দে না থাকায় সমীকরনাটা পাল্টেও যেতে পারে।

ওয়ানডেতে:

ম্যাচ: ৭৮টি

দক্ষিন আফ্রিকা জয়ী: ৫০

পাকিস্তান জয়ী: ২৭

পরিত্যক্ত: ১

বিশ্বকাপে:

ম্যাচ: ৪

দক্ষিন আফ্রিকা জয়ী: ৩

পাকিস্তান জয়ী: ১

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন