ঢাকা, বুধবার ২৪ জুলাই ২০১৯, ০৯ শ্রাবণ ১৪২৬, ২০ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

নেত্রকোনায় প্রতারণা নারায়ণগঞ্জে গ্রেফতার

নেত্রকোনা জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৫ জুন, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

নেত্রকোনার গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ রোববার রাতে নারায়নগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে অভিযান চালিয়ে প্রতারনা মামলার আসামি মো. ফখরুজ্জামান তপুকে (৪০) গ্রেফতার করেছে।

নেত্রকোনার গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের ওসি শাহ নুর এ আলম জানান, নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার থানার বড় বিনারচর গ্রামের মৃত মহিবুর রহমানের ছেলে মো. ফখরুজ্জামান তপু সক্রিয় প্রতারক চক্রের সদস্য। তপু গত ২৮ মে নেত্রকোনার সদর উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের সুরাইয়া আব্বাস ডি.এম.সি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ আহমাদুল্লাহ হারুনকে সরকারি ঠিকাদার পরিচয় দিয়ে নব নির্মিত তিনটি স্কুল ভবনের নামে সরকারি ইলেক্ট্রনিকস সামগ্রী বরাদ্দের কাগজপত্র দেখায়। পরে প্রতারক চক্রের সদস্য তপু প্রধান শিক্ষক হারুনকে নিয়ে মোক্তারপাড়া সেতু সংলগ্ন উৎসব ইলেকট্রিক এন্ড ইলেকট্রনিক্স দোকান থেকে ১টি ভাউচারে ১ লক্ষ ৮৪ হাজার ৬শত ২২ টাকা অন্য ১টি ভাউচারে ৮ হাজার ৫শত ৮৭ টাকার ইলেকট্রিক তার, ফ্যান ও অন্যান্য মালামাল ক্রয় করে জামাল ভূঁইয়া নাম ভাউচারে উল্লেখ করে। পরে মালামালগুলো সাদা রংয়ের প্রাইভেট কারে তোলে। টিকাদার মালামালের মূল্য বাবদ দোকানদারকে চেক দেয়। দোকানদার চেক নিতে অপারগতা প্রকাশ করলে সাথে থাকা প্রধান শিক্ষক দোকানদারের পূর্ব পরিচিত থাকায় তার জিম্মায় দোকানদার ঠিকাদারকে মালামাল প্রদান করে। পরে তপু মালামাল নিয়ে স্কুলের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। কিছুক্ষণ পর প্রধান শিক্ষক মোটর সাইকেল নিয়ে স্কুলে গিয়ে প্রাইভেট কার ও ঠিকাদারকে দেখতে না পাওয়ায় প্রধান শিক্ষক বুঝতে পারেন তিনি প্রতারণার শিকার হয়েছে।
এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক নিজে বাদি হয়ে গত ১৫ জুন নেত্রকোনা মডেল থানায় একটি প্রতারণা মামলা দায়ের করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন