ঢাকা, রোববার ২১ জুলাই ২০১৯, ০৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৭ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

খেলাধুলা

এবার ভারত জয়ের স্বপ্ন

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ জুন, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

প্রাথমিক পর্বের শেষ তিনটি ম্যাচ বাংলাদেশের জন্য একরকম ছিল নক আউট ম্যাচ। তার প্রথমটি জেতা হয়েছে। গতপরশু সাউদাম্পটনে আফগানিস্তানকে ৬২ রানে হারিয়ে বাংলাদেশ উঠে এসেছে পয়েন্ট তালিকার পাঁচে। ম্যাচে ব্যাটে-বলে উজ্জ্বল ছিলেন সাকিব আল হাসান। তার রেকর্ডে রাঙা এক জয়ে রঙিন হয়েছে বাংলাদেশের সেমির স্বপ্নও। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার তাকিয়ে পরের ম্যাচের দিকে। আগামী ২ জুলাই, বার্মিংহামে। যেখানে অপেক্ষায় টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেভারিট ভারত।

ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের পরের ম্যাচের আগে প্রায় সপ্তাহখানেকের বিরতি। টানা ম্যাচ খেলা ও ভ্রমণের ধকল কাটিয়ে ওঠার সুযোগ দিতে তাই ক্রিকেটারদের আগামী ২৯ জুন পর্যন্ত ছুটি দেওয়া হয়েছে।

বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়ার সময়ই স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির ও কন্যা আলায়না হাসান অব্রিকে সঙ্গে নিয়ে গেছেন সাকিব। কিছুদিন আগেই ইংল্যান্ডে পৌঁছেছেন তার মা-বাবাও। টানা খেলা আর সেমির কঠিন সমীকরণ মেলাতে পরিবারকে ঠিকমত সময় দেয়া হচ্ছিল না বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের। আফগানদের একা হাতে হারিয়ে দেয়ার পর বাংলাদেশ শিবিরে লম্বা ছুটির আমেজ। এই পাঁচটি দিন তিনি দিতে চেয়েছিলেন পরিবারকে। সেটি কিভাবে করবেন তা-ও ঠিক করে রেখেছিলেন রেকর্ডের বরপুত্র। সপরিবারে ফ্রান্স ও সুইজারল্যান্ড যাওয়ার ব্যাপারে মনস্থিরও করে ফেলেছিলেন সাকিব। তবে আপাতত সে পরিকল্পনা বাদ দিয়ে লন্ডনেই থেকে গেছেন বাংলাদেশের তিন জয়ে তিনটিতেই ম্যাচসেরা হওয়া এই তারকা। মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম নিশ্চিত করেছেন ফ্রান্স কিংবা সুইজারল্যান্ডের কোথাও যাচ্ছেন না সাকিব। বরং লন্ডনেই সময় কাটাবেন পরিবারের সঙ্গে, ‘সাকিব গতকাল (পরশু) খেলা শেষে সাউদাম্পটনে হোটেলে ফিরে সপরিবারে লন্ডন চলে গেছেন। সেখানেই থাকবেন ছুটির পাঁচদিন। ঘুরে বেড়াবেন শহরের দর্শনীয় স্থানগুলো। তবে কী কারণে তিনি ফ্রান্স-সুইজারল্যান্ড যাত্রা স্থগিত করেছেন, সে ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি।’

৭ ম্যাচে পয়েন্ট ৭ নিয়ে তালিকার পাঁচে বাংলাদেশ। পরের দুই ম্যাচের একটি জিতলেও অন্যান্য ম্যাচের সমীকরণ মিলিয়ে সেমি-ফাইনালে খেলা সম্ভব। তবে দুটি ম্যাচ জিতলে সম্ভাবনা খানিকটা উজ্জ্বল হবে। সাকিব তাকিয়ে সেই সম্ভাবনার দিকে। তবে বাংলাদেশ এগোতে চায় প্রতিটি ম্যাচ ধরে। ব্যাটে-বলে টুর্নামেন্টের সবচেয়ে ভারসাম্যপূর্ণ দলগুলির একটি ভারত। তবে নিজেদের সেরাটা দিলে জয় খুবই সম্ভব, বিশ্বাস সাকিবের, ‘ভারতের বিপক্ষে খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি ম্যাচ আসছে। তারা শীর্ষ দলগুলির একটি, তাদের লক্ষ্য শিরোপা জয়। আমাদের কাজটি সহজ হবে না। তবে সর্বোচ্চ চেষ্টা করব আমরা। অভিজ্ঞতা সাহায্য করে বটে, তবে অভিজ্ঞতাই শেষ কথা নয়। ভারতকে হারাতে হলে নিজেদের সেরাটা খেলতে হবে আমাদের। তাদের এমন সব ক্রিকেটার আছেন, যারা একাই ম্যাচ ঘুরিয়ে দিতে পারেন। যেটা বললাম, নিজেদের সেরাটা দিতে হবে আমাদের এবং আমাদের সামর্থ্য আছে জয়ের।’

ছুটি কাজে লাগাতে যার যার মতো পরিকল্পনা করছেন দলের বাকি সদস্যরাও। টাইগার দলনেতা মাশরাফি বিন মুর্তজা, তামিম ইকবাল, মুস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ মিঠুন আর আবু জায়েদ রাহী এখনই দলের বাকিদের সঙ্গে বার্মিংহামে যাননি। ছুটি শেষে আগামী ৩০ জুন শুরু হবে ভারত ম্যাচের জন্য আনুষ্ঠানিক প্রস্তুতি।

বাংলাদেশের হাতে থাকা দুটি ম্যাচই এখন নক-আউটে রূপ নিয়েছে। বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে সেরা ফল করার কোনো বিকল্প নেই। ভারতের পর পাকিস্তানের বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচ ৫ জুলাই।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন