ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

ব্যবসা বাণিজ্য

গ্রাহকদের উন্নত সেবা প্রদানে ক্রেডিট কার্ড চালু করলো শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৯ জুন, ২০১৯, ৮:০৬ পিএম

গ্রাহকদের উন্নত সেবা দেয়ার জন্য ক্রেডিট কার্ড চালু করলো শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক। শরীয়াহ সম্মত ‘ওয়াকালাহ্’ ধারণা অনুসরণ করে এ ক্রেডিট কার্ড চালু করা হয়েছে। গ্রাহকরা প্রথম বছরের বার্ষিক ফি ছাড়াই এ কার্ড নিতে পারবেন।

শনিবার (২৯ জুন) রাজধানীর পূর্বানী হোটেলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে নতুন এ সেবার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে কার্ডের বিস্তারিত তুলে ধরেন ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম শহীদুল ইসলাম। এ সময় অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল আজিজ, উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শাহজাহান সিরাজ, এম, আখতার হোসেন, মিয়া কামরুল চৌধুরী ও কার্ড ডিভিশনের প্রধান মারুফুর রহমান খান উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, প্লাটিনাম, গোল্ড ও ক্ল্যাসিক তিন ক্যাটাগরিতে ভিসা ব্র্যান্ডের ডুয়েল কারেন্সীর এই ক্রেডিট কার্ডে থাকছে দেশে-বিদেশে লেনদেন করার সুবিধা। ইএমআই সুবিধাসহ কেনাকাটায় ও খাবারের বিল পরিশোধে বিভিন্ন আউটলেটে ডিসকাউন্ট সুবিধা পাবেন এই কার্ডের গ্রাহকরা। এই কার্ডের গ্রাহকদের আন্তর্জাতিক ভ্রমনে ব্যাংকের পক্ষ থেকে বিশেষ সেবা দেওয়া হবে। শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরের বলাকা লাউঞ্জে প্লাটিনাম কার্ডের গ্রাহকদের জন্য থাকছে আপ্যায়নের ব্যবস্থা। লেনদেনের ক্ষেত্রে রিয়েল টাইম এসএমএস ও ই-এলার্টের ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়া রিওয়ার্ড পয়েন্ট ও লেনদেনের ভিত্তিতে কার্ডের বার্ষিক ফি মওকুকের সুবিধা রয়েছে। রয়েছে বিভিন্ন ধরনের গিফট ভাউচার। এছাড়া ক্রেডিট কার্ডের গ্রাহককে বীমা সুবিধা দেবে ব্যাংক। এই ক্রেডিট কার্ডে ইএমভি সার্টিফাইড চিপ ব্যবহার করা হয়েছে, যা লেনদেনে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেবে। যেখানেই ভিসার লোগো আছে সেখানেই এই কার্ড ব্যবহার করা যাবে। লেনদেনের পর থেকে ৪৫ দিন কোনো মুনাফা নেই। মাসে একবার স্টেটমেন্ট পাবেন গ্রাহকরা। স্টেটমেন্ট ইস্যু করার ১৫ দিন পর্যন্ত গ্রাহকরা তা নিতে পারবেন। ক্রেডিট লিমিটের ৫০ শতাংশ পর্যন্ত নগদ অর্থ তোলা যাবে। অন্য অ্যাকাউন্টেও টাকা স্থানান্তর করা যাবে, তবে এক্ষেত্রে ফি প্রযোজ্য।

ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম শহীদুল ইসলাম বলেন, ব্যাংকের গ্রাহকদের দেশে ও বিদেশে সেবা দেওয়ার জন্য এই কার্ড চালু করা হয়েছে। শাহজালাল ব্যাংক সবসময় প্রগতিশীল চিন্তা কর্মের সাথে যুক্ত। এ সেবা তারই অংশ। তিনি বলেন, ইসলামী ব্যাংকগুলো ব্যাংকিং ব্যবসার ২৪ শতাংশ করে থাকে। ফলে ক্রেডিট কার্ড ব্যবসার উল্লেখযোগ্য অংশ করতে পারবে। তীব্র প্রতিযোগিতার মধ্যে গ্রাহকদের সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক ক্রেডিট কার্ডে বিশেষ বিশেষ ফিচার বা সুবিধা যোগ করেছে। এ সময় তিনি ব্যাংকের সার্বিক চিত্রও তুলে ধরেন। এম শহীদুল ইসলাম বলেন, বর্তমানে শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের পরিশোধিত মহৃলধন ৮৪৮ কোটি টাকা। মোট সম্পদের পরিমান ২৫ হাজার ৬৮২ কোটি। আর আমানত ১৯ হাজার ১৫৬ কোটি, বিনিয়োগ ১৯ হাজার ২৮০ কোটি টাকা।

২০০১ সালে ১০ মে যাত্রা শুরু করে শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক। বর্তমানে দেশব্যাপি ১২৩টি শাখা রয়েছে। বর্তমানে দেশে কার্যরত ৩৭টি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ক্রেডিট কার্ড রয়েছে। এর মধ্যে ৫টি ইসলামী ব্যাংক।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Nurulazim ৪ জুলাই, ২০১৯, ৩:৩৯ এএম says : 0
Very good news
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন