ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ সফর ১৪৪১ হিজরী

ইসলামী প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন : জনৈক আলেম দীনি আলোচনার সময় বলেছেন, ‘জুতা আবিষ্কার হয়ে খড়মকে বিতাড়িত করে দিয়েছে- বলেন সুবহানাল্লাহ’। এখানে ‘সুবহানাল্লাহ’ বলা কি শোভনীয় হল?

ইলিয়াদ আদনান
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ৩ জুলাই, ২০১৯, ৮:৩১ পিএম

উত্তর : কোনো কারণ বা ক্ষেত্র ছাড়া এমনিতেই ‘সুবহানাল্লাহ’ পড়তে তো কোনো দোষ নেই? এ তো আল্লাহর পবিত্রতা বর্ণনা এবং তার জিকর। একবার সুবহানাল্লাহ বলায় অনেক সওয়াব পাওয়া যায়। তবে সাধারণত আল্লাহপাকের কুদরত, মহত্ব ও গুণাবলী বর্ণনা বা কোনো বিস্ময়কর কথা আলোচনার সময়ই মানুষ ‘সুবহানাল্লাহ’ বলে থাকে; কিন্তু আপনার ‘জুতা দাপটে খড়ম বিদায় হওয়ার ঘটনায়’ কি উদ্দেশ্যে সুবহানাল্লাহ বলেছেন, তা ওই আলেম সাহেবের পক্ষেই বলা সম্ভব। তার নিকট থেকেই এর কারণটি জেনে নিন। 

সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতাওয়া বিশ্বকোষ।
উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন