ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ সফর ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

পশ্চিমবঙ্গে মাদরাসা ছাত্রকে মারধর

বিজেপি-তৃণমূল পরস্পর দোষারোপ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৭ এএম


‘জয় শ্রীরাম’ না বলায় এবার ১১ বছরের এক মাদরাসা ছাত্রকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনা ঘটেছে পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়ার নিতুড়িয়ায়। ওই কিশোরের অভিযোগ, বুধবার বিকালে চার যুবক পথ আটকে তাকে ‘জয় শ্রীরাম’ বলার জন্য চাপ দেয়। রাজি না হওয়ায় তাকে মাটিতে ফেলে মারধর করা হয়। বৃহস্পতিবার তার বাবা নিতুড়িয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ এই ঘটনা তদন্ত হচ্ছে বলে জানালেও ২৪ ঘণ্টা পরেও কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। এই ঘটনার পর বিজেপি ও তৃণমূলের মধ্যে পরস্পর দোষারোপ করা হচ্ছে। তৃণমূলের জেলা সভাপতি শান্তিরাম মাহাতোর দাবি, বিজেপি উগ্র হিন্দুত্বের সেøাগান তুলে সন্ত্রাস চালাচ্ছে। অপরদিকে বিজেপির জেলা সভাপতি বিদ্যাসাগর চক্রবর্তীর পাল্টা দাবি, বিজেপির ভাবমূর্তিতে কালি ছেটাতে তৃণমূল এই কাÐ ঘটিয়েছে। ওই মাদরাসা ছাত্র জানিয়েছে, এক বন্ধুকে বাসে তুলে দিয়ে মাদরাসায় ফিরছিল সে। সে সময় তার পথ আটকায় ৩০ বছর বয়সী চার যুবক। প্রথমে পরিচয় জানতে চায়। এরপর তাকে ‘জয় শ্রীরাম’ বলার জন্য চাপাচাপি করে তারা। সে জানিয়েছে, ওই যুবকদের কথা না শোনায় তাকে লাথি, ঘুষি মারা হয়। সে আরও বলে, অনেক কাকুতি-মিনতি করছিলাম। ওরা শোনেনি। পরে ওদের একজন বলল, খারাপ কিছু হলে ফেঁসে যাব। তার পরে মার থামায়। মাদরাসার মাওলানা বলেন, অনেক রাত হলেও ঘুমাচ্ছিল না বলে ছেলেটাকে ডেকে কথা বলি। তখনই জানলাম, এমন ঘটনা ঘটেছে। ছেলেটিকে বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে গেছে তার বাবা। তিনি বলেন, কোন ভরসায় ছেলেকে মাদরাসায় রাখব? যদি আরও খারাপ কিছু হয়। বাড়ি ফিরেও ছেলে ভয়ে আছে। মাসখানেক আগে কোচবিহারের তুফানগঞ্জে এক ব্যক্তিকে এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তীর এক মাদরাসা শিক্ষককেও ‘জয় শ্রীরাম’ না বলায় মারধরের অভিযোগ ওঠে। এমন ঘটনায় আতঙ্কে দিন কাটাতে হচ্ছে মুসলিমদের। এবিপি, এনডিটিভি।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন