ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

আন্তর্জাতিক সংবাদ

৫ মাত্রায় সমৃদ্ধ করবে ইউরেনিয়াম

পরমাণু চুক্তি রক্ষায় আলোচনার ক্ষেত্রগুলো নিয়ে ভাববে ইরান ও ফ্রান্স

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

পরমাণু সমঝোতায় দেয়া নিজের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন স্থগিত রাখার অংশ হিসেবে ইরান ৭ জুলাই থেকে পাঁচ মাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করার কাজ শুরু করতে পারে। এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতার সিনিয়র উপদেষ্টা আলী আকবর বেলায়েতি। তিনি বলেছেন, পরমাণু সমঝোতায় ৩.৬৭ মাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের যে বাধ্যবাধকতা রয়েছে, ৭ জুলাই থেকে তা আর মানবে না তার দেশ। খবর ডেইলি হুরিয়াতের। বেলায়েতি বলেন, ইরান নিজের শান্তিপূর্ণ পরমাণু কর্মসূচির প্রয়োজন অনুযায়ী যেকোনো মাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করবে। তবে তিনি এ কথাও বলেন, ইউরোপীয়রা পরমাণু সমঝোতায় দেয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করলে তেহরান এটি মেনে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের মাত্রা আবারও ৩.৬৭-এ নামিয়ে আনবে। বেসামরিক কাজে নিম্নমাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করার প্রয়োজন হলেও উচ্চমাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করার মাধ্যমে পরমাণু অস্ত্র তৈরি করা সম্ভব। তবে ইরান শুরু থেকে সুস্পষ্টভাবে বলে এসেছে- পরমাণু অস্ত্র তৈরি করার কোনো অভিপ্রায় তার নেই। ছয় বিশ্ব শক্তির সঙ্গে ২০১৫ সালে স্বাক্ষরিত ইরানের পরমাণু সমঝোতা লঙ্ঘন করে যুক্তরাষ্ট্র ২০১৮ সালের ৮ মে বেরিয়ে যায়। এর পর এটির বাকি পাঁচ দেশ ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন পরমাণু সমঝোতা মেনে চলার জন্য ইরানের প্রতি আহ্বান জানানোর পাশাপাশি এ সমঝোতায় ইরানকে দেয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের আশ্বাস দেয়। অপরদিকে, প্যারিস পরমাণু চুক্তিকে টিকিয়ে রাখতে নতুন করে আলোচনার ক্ষেত্রগুলো বিবেচনা করার ব্যাপারে সম্মত হয়েছে ইরান ও ফ্রান্স। শনিবার রাতে এক ফোনালাপে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি ও ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাখোঁ এ ব্যাপারে সম্মতি জানান। পরমাণু সমঝোতায় ইউরোপের দেওয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের জন্য তেহরানের পক্ষ থেকে দেওয়া ৬০ দিনের আল্টিমেটাম শেষ হওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগে এ টেলিফোন সংলাপ অনুষ্ঠিত হলো। খবরে বলা হয়, ছয় শক্তিধর দেশের সঙ্গে স্বাক্ষরিত পরমাণু চুক্তিতে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের জন্য তেহরানকে বেঁধে দেওয়া মাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা ঘোষণা করেছে ইরান। পরমাণু সমঝোতায় দেওয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের জন্য ইউরোপকে তেহরানের দেওয়া ৬০ দিনের আল্টিমেটাম শেষ হওয়ার পর এ ঘোষণা এলো। রবিবার ইরানের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্বাস আরাকশি বলেন, তার দেশ এখনও চুক্তিটিকে বাঁচিয়ে রাখতে চায়। তার আক্ষেপ, ইউরোপীয় দেশগুলো তাদের নিজেদের প্রতিশ্রুতি রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে। চুক্তিতে স্বাক্ষরকারী দেশগুলো যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা থেকে ইরানকে রক্ষায় যথাযথ পদক্ষেপ না নিলে প্রতি ৬০ দিন পর পর নিজেদের প্রতিশ্রুতি থেকে একটু একটু করে সরে আসার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আরাকশি। রবিবার এক সংবাদ সম্মেলনে ইরানের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্বাস আরাকশি বলেন, ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের মাত্রা ৩.৬৭% শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৫% করবে তার দেশ। তিনি আরও বলেন, কূটনৈতিকভাবে ইরান যথেষ্ট সময় দিয়েছে। তবে ইউরোপীয় দেশগুলোর সরকার তাদের প্রতিশ্রুতি রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে। ২০১৫ সালের জুনে ভিয়েনায় ইরানের সঙ্গে নিরাপত্তা পরিষদের ৫ সদস্য রাষ্ট্র- যুক্তরাষ্ট্র,যুক্তরাজ্য,ফ্রান্স,রাশিয়া,চীন (পি-ফাইভ) ও জার্মানি (ওয়ান) পরমাণু চুক্তিতে স্বাক্ষর করে। চুক্তি অনুযায়ী, ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ কার্যক্রম চালিয়ে গেলেও পারমাণবিক অস্ত্র তৈরি না করার প্রতিশ্রুতি দেয় তেহরান। পূর্বসূরী ওবামা আমলে স্বাক্ষরিত এই চুক্তিকে ‘ক্ষয়িষ্ণু ও পচনশীল’ আখ্যা দিয়ে গত বছরের মে মাসে তা থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। রয়টার্স, ইরনা, আইআরআইবি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Kamal Pasha Jafree ৮ জুলাই, ২০১৯, ৯:৫৯ এএম says : 0
খুব ভাল।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন