ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

শাকিবের ইচ্ছা-অনিচ্ছার ওপর নির্ভর করছে বুবলির নায়িকা হওয়া!

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

শেষ পর্যন্ত কি ভক্তদের ডাক শুনলেন শাকিব! বুবলির সাথে তার জুটি করা নিয়ে ভক্তরা যেভাবে সোচ্চার হয়েছিল, তাই কি বাস্তবায়িত হতে যাচ্ছে? অবস্থা দৃষ্টে তাই মনে হচ্ছে। কারণ শাকিবের প্রযোজনা সংস্থা থেকে নির্মিতব্য কাজী হায়াতের পরিচালনাধীন বীর ও হিমেল আশরাফের পরিচালনাধীন প্রিয়তমা সিনেমা দুটি থেকে বুবলিকে বাদ দেয়া হয়েছে। এ থেকে শাকিব ভক্তরা মনে করছেন, তাদের প্রতিবাদের মুখে শাকিব বুবলিকে বাদ দিয়েছেন। ভক্তদের দাবী ছিল শাকিব যেন নতুন নায়িকা নিয়ে সিনেমা করেন। এ প্রেক্ষাপটে বুবলিকে বাদ দিয়ে নতুন নায়িকা নিয়ে সিনেমা দুটি শুরু করতে যাচ্ছেন শাকিব। অথচ এ দুটি সিনেমাতেই বুবলির থাকার বিষয়টি চূড়ান্ত ছিল। অবশ্য বুবলিকে বাদ দেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন শাকিব। তিনি বলেছেন, এ খবর ভিত্তিহীন। কারা রটিয়েছে জানি না। তবে শাকিব অস্বীকার করলেও শাকিবের ঘনিষ্ট এবং সহপ্রযোজক মোহাম্মদ ইকবাল স্পষ্ট করেই বলেছেন, বীর সিনেমায় নতুন নায়িকা নেয়া হচ্ছে। আর প্রিয়তমা সিনেমায় বুবলী থাকবে কিনা তা নিশ্চিত নয়। আমাদের চলচ্চিত্রে নায়িকা সংকট রয়েছে, নতুন নায়িকা প্রয়োজন। এ কারণে আমরা নতুনদের নিয়ে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করছি। নতুন নায়িকার সন্ধান করছি। চলচ্চিত্র বিশ্লেষকরা বলছেন, এর অর্থ হচ্ছে, চলচ্চিত্রে শাকিব ছাড়া বুবলি অচল ও অচ্ছুৎ। কারণ তাকে জোর করে কেউ নায়িকা না বানালে তার নায়িকা হওয়া একেবারে অসম্ভব। শাকিব ছাড়া নিজে নায়িকা হয়ে ওঠার সক্ষমতা তার নেই। যদি থাকত, তবে অন্য নির্মাতারা শাকিব ছাড়াও তাকে নায়িকা করে সিনেমা নির্মাণ করতেন। এখন শাকিব তাকে দুই সিনেমা থেকে বাদ দেয়ায় তার ক্যারিয়ারের অবনমন হওয়া ছাড়া কোনো উপায় নেই। আবার যদি শাকিব তাকে সুযোগ দেন তবে তার কাজ করা হতে পারে। তা নাহলে এখানেই বুবলির ক্যারিয়ারের সমাপ্তি ঘটতে পারে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন