ঢাকা, শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯, ০৪ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

বিনোদন প্রতিদিন

পাকিস্তানে আজীবন সম্মাননায় ভূষিত শবনম

পা ছুঁয়ে সালাম করলেন আতিফ আসলাম

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৭ এএম

পাকিস্তানে আজীবন সম্মাননায় ভূষিত হলেন বিশিষ্ট অভিনেত্রী শবনম। গত ৭ জুলাই করাচিতে অনুষ্ঠিত লাক্সস্টাইল অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে তাকে এই সম্মাননা দেয়া হয়। পাকিস্তান ও ভারতে জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী আতিফ আসলাম মঞ্চ থেকে নেমে এসে শবনমকে পা ছুঁয়ে সম্মান করেন। এরপর হাত ধরে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় মঞ্চে। শবনমকে গানে গানে শ্রদ্ধা জানান আতিফ। গেয়েছেন, তেরে বিনা মেরে জীবন কুছ নেহি গানটি। তখন হলভর্তি দর্শক হাততালি দিয়ে তাদের স্বাগত জানায়। অনুষ্ঠানে শবনমকে উৎসর্গ করে একটি ভিডিও দেখানো হয়। জনপ্রিয় গান ‘নিগাহ জি’ নাচের মাধ্যমে পরিবেশন করেন দেশটির চলচ্চিত্র শিল্পীরা। এ সময় স্টেজের পর্দায় দেখানো হয় শবনমের ভিডিও ও ছবি। শবনম তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আমি এখন আমার জন্মভূমি বাংলাদেশে থাকি। সেখান থেকে আয়োজকরা পাকিস্তানে এনে আমাকে সবধরনের সুবিধা দিয়ে এই সম্মাননা দিয়েছে। এটা যে কতো বড় প্রাপ্তি, কতো আনন্দের তা ব্যাখা করা সম্ভব না।’ উল্লেখ্য, ৭৯ বছর বয়সী এই শিল্পী আবার পাকিস্তানের চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেছেন। চলচ্চিত্রটির নাম আয়না-২। ১৯৭৭ সালে পাকিস্তানে মুক্তি পাওয়া আয়না সিনেমার সিক্যুয়েল এটি। এছাড়া তিনি পাকিস্তানের একটি চ্যানেলে প্রচার চলতি ধারাবাহিক ‘মোহিনী ম্যানসন কী সিনড্রেলা’তে নাম ভূমিকায় অভিনয় করছেন। এরইমধ্যে বেশকিছু পর্ব প্রচারের পর শবনম বেশ সাড়া পাচ্ছেন। শবনম ১৯৬০ থেকে ১৯৮০'র দশকে পাকিস্তানের চলচ্চিত্র শিল্প ললিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী। এরপর নব্বই দশক থেকে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র শিল্প বা ঢালিউডে অভিনয় করেছেন। ১৯৬১ সালে বাংলা চলচ্চিত্র হারানো দিন’র মাধ্যমে বিপুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেন তিনি। ১৯৬২ সালে উর্দু চলচ্চিত্র চান্দা’র মাধ্যমে তিনি জনপ্রিয়তা পান। পরের বছর তালাশ সিনেমাটি মুক্তি পেলে ঐ সময়ের সর্বাপেক্ষা ব্যবসাসফল সিনেমার স্বীকৃতি পায়। এরপর থেকে তিনি নিয়মিত পাকিস্তানে কাজ করেছেন। নব্বই দশকের শেষ দিকে বাংলাদেশের আম্মাজান সিনেমায় অভিনয় করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান। শবনম এ পর্যন্ত কাজ করেছেন ১৭০টি চলচ্চিত্রে। এরমধ্যে ১৫২টি উর্দু, ১৪টি বাংলা ও ৪টি পাঞ্জাবি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন