ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

সাহিত্য

মসনবী শরীফ

মাওলানা জালাল উদ্দীন রূমী রহ.

কাব্যানুবাদ : রূহুল আমীন খান | প্রকাশের সময় : ১২ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

খোদীয়ী জ্ঞানে সমৃদ্ধ পাখিদের গুণ-বৈশিষ্ট্য

১৭৩২. প্রাণ-তোতারও হাল-হকিকত মূলে এই মতন
কিন্তু সে হাল বুঝতে পারে কোন্্ খানে সেই জন ?

১৭৩৩. বাহ্যরূপে হলেও সে জন তু’ছ হত শান
অন্তরে সে সৈন্যসহ বাদশা সোলায়মান।

১৭৩৪. নালিশ শোকর ছাড়াই যখন দিল্্ থেকে সে কাঁদে
সপ্ত আকাশ কম্পিত হয় তাঁর সে আর্তনাদে।

১৭৩৫. শত শত পত্র ও দূত নিকট আসে তাঁর
একটি বার সে ডাকলে জবাব দেন খোদা ষাট বার।

১৭৩৬. অন্য সকল বা’দা থেকে ওই খাঁটি বা’দার
বদী ভাল নেকীর চেয়ে দরবারে মাওলার।

১৭৩৭. মর্যাদা তার এত অধিক দরবারে আল্লার
আমের ঈমান হইতে তাহার কুফরিও বেহ্তর।

১৭৩৮. হর ক্ষণে হয় এই কামিলের আস্্মানে মি’রাজ
তার মুকুটে পরান খোদা শত বিশেষ তাজ।

১৭৩৯. দেহ ধরায় রূহ বেড়ায় লা-মকানে তার
সেই লা-মকান সাধকগণের ঊর্ধ্বে ধারণার।

১৭৪০. যেই লা-মকান কল্পনাতে মন-মুকুরে ভাসে
সেই লা-মকান তা নয় কভু, কক্ষনো নয় তা-সে।

১৭৪১. ‘মকান, ও ‘লা-মকান’ তাহার অধিন হুকুমের
যেমন অধিন পবিত্র চার নহর বেহেশ্তের।

১৭৪২. থামো, এ কল্পনা থেকে লও ফিরিয়ে মন
আল্লা’পাকই ভাল জানেন লা-মকান কেমন।

১৭৪৩. সূ² এসব তত্ত¡কথার বয়ান হেথায় থাক
সওদাগর ও তোতার কথায় এবার ফেরা যাক।

১৭৪৪. কথা দিয়েছিলেন বনিক ব’িদ তোতার কাছে
বার্তা দিবেন ভারতভূমে যেই তোতারা আছে।

১৭৪৫. সওদাগর ভারতীয় উপত্যকায় তোতাদের নিকট
বার্তা পৌঁছিয়ে দিলেন

১৭৪৬. দেখল বনিক দূর ভারতের সে অঞ্চলে গিয়ে
উপত্যকায় সদলবলে আছে অনেক টিয়ে।

১৭৪৭. থামিয়ে বাহন তোতার দলে নিকট ডেকে তার
পৌঁছে দিল ব’িদ তোতার বার্তা-সমাচার।

১৭৪৮. বার্তা শুনে একটি তোতা হায়রে সর্বনাশ
ছটফটিয়ে পড়ল ঢলে, ফুরিয়ে গেল শ্বাস।

১৭৪৯. আফসোসে কয় বনিক, হৃদে লজ্জা অনুতাপ
হায় কেন এই বার্তা দিয়ে নিলাম খুনের পাপ !

১৭৫০. পরস্পরে ছিল এরা বন্ধু কি দুই জন ?
আছিল কি জীবন-সাথী দুই দেহে এক মন ?

১৭৫১. কেন আমি করতে গেলাম এমন পাপের কাজ
কেন বেফাঁস কথায় ওকে জ্বালিয়ে দিলাম আজ ?

১৭৫২. কথা হলো অগ্নি-পাথর- উ’চারিলে ঠোটে
ঘর্ষণে ঘর্ষণে তাহার অগ্নি জ্বলে ওঠে।

১৭৫৩. পাথর এবং লোহায় কভু দিওনা ঘর্ষণ
নকল হেতু কি বা করে দম্ভে আস্ফালন।

১৭৫৪. ঘন আঁধার চতুর্দিকে তুলোর বাগান আর
জ্বেলে দিলে অগ্নি হোথা সব হবে ছারখার।

১৭৫৫. অত্যাচারি জাতি নয়ন বন্ধ করে রাখে
ভষ্ম করে কথার দ্বারা বিশ্বভুবনটাকে।

১৭৫৬. একটি কথাই করতে পারে জগৎ সর্বনাশ।
ভেল্কিতে তার ব্যাঘ্রে বানায় শেয়াল মরা লাশ।

১৭৫৭. ঈসার ফুয়ের মত অসীম শক্তি ফি আত্মার
কেউবা দানে নব জীবন, কেউ করে সংহার।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন