ঢাকা, শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯, ০৪ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

আন্তর্জাতিক সংবাদ

বিশ্বকাপের ফরম্যাট বদলানো উচিত

কোহলির ঔদ্ধত্ত মন্তব্য

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

বিশ্বকাপের ফরম্যাটে পরিবর্তন আনতে আইসিসিকে পরামর্শ দিয়েছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। সেমিফাইনালে হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায়ের পর গত বুধবার টুর্নামেন্টের ফরম্যাট নিয়ে সমালোচনা করেন তিনি। কোনো ম্যাচ হারলে বিভিন্ন বিষয়ে দোষারোপ করা ভারতীয়দের পুরনো অভ্যাস। কিন্তু হারের কারণে বাদ পড়ে যাওয়ায় পুরো ফরম্যাটে পরিবর্তন আনতে বলে কোহলি উদ্ধৃত আচরণ করেছেন বলে মনে করেন ক্রিকেট বিশ্লেষকরা।

ওল্ড ট্র্যাফোর্ড ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ভারত নিউজিল্যান্ডের কাছে ১৮ রানে হেরেছে। ভারতের প্রায় একশ’ কোটি ক্রিকেট ভক্ত হতাশ হয়েছে দু’বারের বিশ্বকাপজয়ীদের এই হারে। বলা হচ্ছে, ২০০৭ সালে বাংলাদেশের কাছে ত্রিনিদাদে হেরে বিদায় নেয়ার পর বিশ্বকাপে মঞ্চে এটি ভারতের সবচেয়ে বাজে হার। ক্রিকেটে অর্থনৈতিকভাবে সবচেয়ে শক্তিশালী দলটি ওই আসরে মাত্র তিন ম্যাচ খেলেই বাদ পড়ে যায়। এজন্য তারা ১২ বছর আগে ক্যারিবিয়ায় অনুষ্ঠিত সেই টুর্নামেন্টের ফরম্যাট নিয়ে সমালোচনা করেছিল। চারটি করে দল নিয়ে চারটি গ্রæপ করা হয়েছিল সে সময়। তখন সমালোচনার মুখে ভারতীয় বোর্ড এবং সম্প্রচারকারীদের স্বার্থে আইসিসি নিশ্চিত করেছিল যে, এ ধরনের ঘটনা আর কখনো ঘটবে না। তারা বিশ্বকাপের ফরম্যাটে পরিবর্তন করে রাউন্ড রবিন পদ্ধতি চালু করে। যার মাধ্যমে চলতি বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ডে প্রতিটি দলের জন্য ন্যূনতম নয়টি ম্যাচ নিশ্চিত করা হয়েছিল।

চলতি বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের কাছে শোচনীয় পরাজয়ের পরে ম্যাচশেষে সংবাদ সম্মেলনে কোহলি বলেন, ২০২৩ বিশ্বকাপে নকআউট পর্বে পরিবর্তন আনা প্রয়োজন। তিনি বলেন, ‘যদি পয়েন্ট তালিকার এক নম্বরে থাকার কোনো গুরুত্ব থাকে, তাহলে এখানে একটা যুক্তিসঙ্গত জায়গা আছে আমার কথার, তবে আমি জানি না কী বাস্তবায়িত হতে যাচ্ছে।’

বিরাট কোহলি মূলত ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের নীতি অনুসরণ করার কথা বলেন। আইপিএলে পয়েন্ট তালিকার এক নম্বর আর দুই নম্বর দল প্রথমে কোয়ালিফায়ার খেলে, যেখানে হেরে গেলেও দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে সুযোগ থাকে ফাইনালে ওঠার। তিনি বলেন, ‘আপনি পয়েন্ট তালিকার এক নম্বরে আছেন, এরপর অল্প সময়ের জন্য বাজে খেললেন এবং আপনি বাদ, এটা আপনাকে মেনে নিতে হচ্ছে। তিনি যোগ করেন, ‘আগে কে কী করেছে সেটা ব্যাপার না, এটা একটা আনকোরা, নতুন দিন, আপনি যদি যথেষ্ট ভালো না হন, আপনাকে বাড়ি যেতে হবে, এটাই বাস্তবতা।’

বিরাট জানান, দল দুঃখ পেয়েছে, কিন্তু সেটা খুব বেশি না, কারণ যে মানে ক্রিকেট খেলেছে তারা তাতে সন্তুষ্ট। পুরো টুর্নামেন্টে ভালো খেলে মাত্র ৪৫ মিনিট বাজে ক্রিকেট খেলার জন্যই ভারতকে মূল্য দিতে হলো বলে মন্তব্য করেন ভারতের অধিনায়ক। সূত্র : দ্য গার্ডিয়ান।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (8)
Mehedi Hasan Tapos ১২ জুলাই, ২০১৯, ২:০১ এএম says : 0
এর আগে অনেকের ক্ষেত্রেই তো এরকম পরিস্থিতিতে পড়তে হয়েছে। তখন তো এরকম কথা বলেন নি। তবে আপনি যেহেতু ফরম্যাট পরিবর্তনের কথা বলেছেন পরিবর্তন হবে। দাদা বলে কথা
Total Reply(0)
Abidur Rahman Bhuiyan ১২ জুলাই, ২০১৯, ২:০১ এএম says : 0
ভারত তো সর্বোচ্চ সুবিধাপ্রাপ্ত দল এই বিশ্বকাপে, আর কী সুবিধা লাগবে??? খেলা ছাড়াই বিশ্বকাপ বাসায় পৌঁছে দিতে হবে এখন। বিশ্বকাপের একমাত্র অধিনায়ক যে কিনা শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে অভিযুক্ত কিন্তু কোন পদক্ষেপ তার বেলায় নেয়া হয় নি। ক্রিকেট অচিরেই দর্শক হারাবে এ জাতীয় নির্লজ্জ পক্ষপাতমূলক আচরণ করলে।
Total Reply(0)
Shamaun Iqbal Shamun ১২ জুলাই, ২০১৯, ২:০১ এএম says : 0
ওয়ার্ল্ড কাপে ভারত ছাড়া অন্য কোনো দলের খেলার সুযোগই তো থাকা উচিত নয়! নিয়ম করা হোক, ভারত একাই খেলবে, একাই জিতবে! মোড়ল বলে কথা!!
Total Reply(0)
M A Kamal Kamal ১২ জুলাই, ২০১৯, ২:০২ এএম says : 0
হেরে গেলেই পরিবর্তন! কেন ভারতের পরাজয় ক্রিকেট বিশ্ব আনন্দ পায় বলতে পারেন? তাদের অহংকার, দাম্ভিকতা, ছোট দেশগুলোকে ছোট করেই দেখা, ছোট দেশগুলোর সাথে খেলতে না চাওয়া, অন্যান্য দেশগুলোকে হেয় করে দেখা, বিজ্ঞাপন তৈরি করে অন্যান্য দেশগুলোকে অপমান করা, দুর্নীতি করে ম্যাচ জিতা, নিজেদের ইচ্ছে মতো ক্রিকেট বিশ্বকে পরিচালনা করতে চাওয়া। এমনও হাজারটা কারন খুঁজে বের করা যাবে। এখন হেরে গিয়ে বিশ্বকাপ ফরম্যাটে পরিবর্তন চাচ্ছেন। অন্যান্য দেশতো হেরে গেছে, হেরে যাবে। কই তারাতো পরিবর্তনের কথা বলল না। তাহলে কেন আপনাদের পরিবর্তনের মাথা ব্যথা? সুযোগ গ্রহণ করে অতিরিক্ত ফায়দা লুটিয়ে নেওয়া ছাড়া আর কিছু না। ভদ্রলোকের খেলায় দয়া করে ভদ্রতা ফিরিয়ে দিন।
Total Reply(0)
Rocky Khan ১২ জুলাই, ২০১৯, ২:০২ এএম says : 0
ভারত নিঃসন্দেহে ভালো দল, আর কোহলি খুবই ভালো খেলোয়াড়। কিন্তু একটা বদমেজাজি ভারতের মতো দলের অধিনায়ক হওয়ার যোগ্য না। ওর ছেলেমানুষী আচরন হাস্যরসের জন্ম দেয়। কপিল দেব, আজহারউদ্দীন, সৌরভ গাঙ্গুলি, এম এস ধনী, এদের কাছ থেকে কোহলির অনেক কিছু শেখার আছে।
Total Reply(0)
Shaikh Sumon ১২ জুলাই, ২০১৯, ২:০৩ এএম says : 0
লেখা টা পড়ে খুব মজা পাইলাম, আচ্ছা যদি ভারতকে কোন খেলা না খেলে সরা সরি ফাইনাল খেলার সুযোগ করে দেওয়া হয় তাহলে কেমন হবে? অথবা বিশ্বকাপ দুইটা আয়োজন করা হয় একটা এখনের নিয়মে চলবে আর একটা কোন খেলা হবেনা সরা সরি ভারত কে চ্যাম্পিয়ন ঘোষনা করা হবে তাহলে কেমন হবে?
Total Reply(0)
Abdul Latif ১২ জুলাই, ২০১৯, ২:০৩ এএম says : 0
টুর্নামেন্ট থেকে তাদের বিদায় তাদেরকে পাগল করে দিয়েছে।একটা আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট কে একটা ঘরোয়া লীগের সমকক্ষ ভাবাটা কতটা প্রাসঙ্গিক?
Total Reply(0)
Palash ১২ জুলাই, ২০১৯, ১:১০ পিএম says : 0
.. haraca abar haruk
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন