ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ০৮ ভাদ্র ১৪২৬, ২১ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

আপনার পরিণতিও তেমনই হবে- প্রধানমন্ত্রীকে এমাজউদ্দিন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ জুলাই, ২০১৯, ৫:৫১ পিএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অন্যায়ভাবে ক্ষমতা আঁকড়ে ধরে আছেন অভিযোগ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর ড. এমাজউদ্দীন আহমদ বলেছেন, যারা ক্ষমতাকে অন্যায়ভাবে আঁকড়ে ধরেন, তাদের পরিণতি ইতিহাসের বিভিন্ন জায়গায় যেমন হয়েছে, আপনার পরিণতিও তেমন হবে। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধে এ দেশের মানুষ যতটুকু অর্জন করেছে, তা থেকে একটুও আগায়নি বরং পিছিয়েছে। এবারের নির্বাচনকে ৩০ ডিসেম্বর না বলে ২৯ ডিসেম্বর বলাই ভালো। কারণ নির্বাচনের নামে মস্ত বড় প্রহসন ঘটেছিল, জাতি তা দেখেছে। সেদিন এক দুঃস্বপ্ন জাতি দেখেছে।

শনিবার (১৩ জুলাই) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ‘দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও ভোটারবিহীন নির্বাচনের মাধ্যমে গঠিত জাতীয় সংসদ ভেঙে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবিতে' আয়োজিত আইনজীবীদের অনশন কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. এমাজউদ্দিন আহমদ প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনি অনেক চালাক। আপনার যতটুকু বুদ্ধিমত্তা আছে তা দিয়ে সঠিক সময়ে সঠিক কাজটা করুন। আপনার ন্যায়নীতি যতটুকু আছে, তা দিয়ে সাধারণ মানুষের চাওয়ার দিকে অগ্রসর হন।

খালেদা জিয়াকে কারাবন্দি করে রাখার বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা দেখি, দুই কোটি টাকাকে কেন্দ্র করে বেগম জিয়াকে আটকে রাখা হয়েছে। ওই দুই কোটি টাকার একটি টাকাও অপচয় হয়নি। বরং ওই টাকা বেড়ে সাত কোটি হয়েছে। অথচ হাজার হাজার কোটি টাকা যারা মেরেছে তাদের সঙ্গে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী চলছেন। এ ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি থেকে জাতিকে মুক্তি দিন।

সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, দেশে ন্যায়বিচার আজ ভূলুণ্ঠিত। মিথ্যা মামলা দিয়ে জুলুম, নির্যাতন করা হচ্ছে। আইনের শাসন ও মানবাধিকার লঙ্ঘন করা হচ্ছে। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য আইনজীবীদের দায়িত্ব রয়েছে। খালেদা জিয়ার নামে যে মিথ্যা মামলা দিয়েছে, তা প্রত্যাহার করে তাকে মুক্তি দিন। অন্যত্থায় দেশে একটা বড় গণবিস্ফোরণ হবে। সেই বিস্ফোরণে সরকারের পতন হবে। তিনি বলেন, আজকের অনশন সারা বাংলার মানুষের আকাক্সক্ষার প্রতিফলন। আমি দাবি জানাই, তার (খালেদা জিয়া) সকল মামলা স্থগিত করা হোক এবং তার সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করা হোক।

গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়ার মুক্তি আইনজীবী আন্দোলন এর সভাপতি অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিকল্প ধারার মহাসচিব শাহ আহমেদ বাদল, অ্যাডভোকেট গিয়াস উদ্দীন আহমেদ, ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল প্রমূখ। পরে পানি পান করিয়ে অনশনকারী আইনজীবীদের অনশন ভঙ্গ করেন ড. এমাজউদ্দিন আহমদ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (3)
Shahi ১৩ জুলাই, ২০১৯, ৯:০৫ পিএম says : 0
Mr amazuddin. One u r wrong. Look at Malaysia. Mahathir was 22 years in power therefor he again elected at age if 93
Total Reply(0)
Sheikh mahabub ১৪ জুলাই, ২০১৯, ৩:৫১ পিএম says : 0
Pagoler polap****
Total Reply(0)
মাজহার জুয়েল ১৪ জুলাই, ২০১৯, ৮:৩৬ পিএম says : 0
গণবিস্ফোরণ এই দেশে! কী হাস্যকর!
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন