ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

হত্যার ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ

বিভিন্ন স্থানে প্রতিবন্ধীসহ শিকার আরো ৪

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

বগুড়ায় হত্যার ভয় দেখিয়ে মেয়ের বান্ধবীকে ধর্ষণ করা হয়েছে। তবে এ ঘটনার ৩৬ দিন পর মামলা হয় ধর্ষকের বিরুদ্ধে। এদিকে দিনাজপুরে পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে শ্বশুরের বিরুদ্ধে। দুই ছেলেকে ভিন্ন অযুহাতে ঘরের বাহিরে পাঠিয়ে পুত্রবধূর ওপর এমন পাশবিক নির্যাতন চালান ওই লম্পট শ্বশুর। নরসিংদীতে নিজের মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সিরাজগঞ্জে বুদ্ধি প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষককে আটক করেছে র‌্যাব। অন্যদিকে নেত্রকোনায় ধর্ষণের শিকার হয়েছে বাক প্রতিবন্ধী শিশু। বিভিন্ন স্থান থেকে তথ্যের ভিত্তিতে এ প্রতিবেদন :

বগুড়া : শাজাহানপুর উপজেলায় শিশু শ্রেণির এক ছাত্রীকে (৬) চাকু ধরে হত্যার ভয় দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। মেয়ের খেলার সঙ্গীকে ধর্ষণ করায় শাজাহানপুর থানায় দুলাল মিয়া (৪০) নামে ভ্যান চালকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। নির্যাতিত শিশুর মা ৩৬ দিন পর গত রোববার এ মামলা করেছেন। জানা যায়, ভ্যান চালক দুলাল মিয়া উপজেলার বিহিগ্রাম পূর্বপাড়ার মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে। গত ৮ জুন বিকেলে শিশুটি প্রতিবেশী দুলাল মিয়ার মেয়ের সঙ্গে খেলার জন্য তাদের বাড়িতে যায়। এ সময় দুলালের স্ত্রী ও মেয়ে বাড়িতে ছিল না। ওই শিশু বাড়িতে ফিরে যেতে চাইলে দুলাল তাকে ধরে ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে। ব্যথায় শিশু কান্নাকাটি করলে গলায় চাকু ধরে ও কাউকে জানালে হত্যা করার ভয় দেখায়। ৩৬ দিন পর মামলা কেন এমন প্রশ্নের উত্তরে শিশুর স্বজনরা জানান, তারা সম্মানের ভয়ে এতদিন নীরব ছিলেন। মামলা না করলে অপরাধী রেহাই পাবে ও সে আবারও অপরাধ করবে। তাই এতদিন পর আইনের আশ্রয় নিলেন। শাজাহানপুর থানার ইন্সপেক্টর আবুল কালাম আজাদ জানান, ধর্ষণের মামলা নেয়া হয়েছে। আসামি গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

দিনাজপুর: চিরিরবন্দর উপজেলায় পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আদালত গতকাল তাকে জেল হাজতে পাঠিয়েছেন। তার নাম মো. শফিকুল ইসলাম ছফু (৫০)। গতকাল রোববার সন্ধ্যায় ওই গৃহবধ‚ নিজের শ্বশুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে চিরিরবন্দর থানায় মামলা করেন। পুত্রবধূ অভিযোগ করেন, শ্বশুর তার স্বামীকে বাড়ির কাছের বাজারে কাঁঠাল এবং দেবর শরিফুলকে ওষুধ আনতে পাঠান। ওই সময় বাসায় ওই নারী ও তার শ্বশুর ছাড়া আর কেউ ছিলো না। তিনি ঘর ঝাড়– দিয়ে আবর্জনা বাইরে ফেলতে যাচ্ছিলেন। হঠাৎ পেছন থেকে শ্বশুর তাকে জাপটে ধরে মুখ চেপে শয়ন কক্ষে নিয়ে ধর্ষণ করেন। ঘটনাটি কাউকে জানালে তাকে খুন করার হুমকি দেন।

চিরিরবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হারেসুল ইসলাম বলেন, এক নারী তার শ্বশুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে মামলা করেছেন। এ ঘটনায় ওই নারীর শ্বশুরকে গ্রেপ্তার করে আদালতে হাজির করলে আদালত তাকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ প্রদান করেন।
নরসিংদী : নরসিংদীতে নিজের ১২ বছর বয়সী মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে মমিন মিয়া (৩৫) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল রবিবার দুপুরে তাকে মাধবদী পৌর আনন্দি এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। সে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হরি নারায়ণপুর এলাকার মৃত মিরাজুল ইসলামের ছেলে।

সিরাজগঞ্জ : শাহজাদপুর উপজেলার কৈজুড়ীতে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণ মামলার এজাহারভুক্ত আসামি মমিন মুন্নাকে (২২) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১২ সদস্যরা। গতকাল সোমবার বেলা ১২টার সময় এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-১২ এর ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক এস এম মোর্শেদ হাসান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। অভিযুক্ত মমিন হোসেন মুন্না জয়পুরা গ্রামের আমিরুল ইসলামের ছেলে। তিনি জানান, গত ৭ জুন বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরী তার বসত বাড়ী হতে যমুনা নদীর চরে ছাগল আনতে যায়। এসময় মমিন হোসেন মুন্না কিশোরীকে জোরপুর্বক ধর্ষণ করে। এ ব্যাপারে কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর থানায় নারীও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়ের পর পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব-১২ অভিযুক্ত আসামিকে দ্রæত গ্রেপ্তারের অভিযান চালায়। পরে গত রোববার জুলাই গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে গাজীপুর জেলার কোনাবাড়ী এলাকায় সুইডেন টাওয়ারের সামনে থেকে আসামি মুন্নাকে গ্রেপ্তার করে।

নেত্রকোনা: খালিয়াজুরীতে শারীরিক ও বাকপ্রতিবন্ধী শিশুকে (১০) ধর্ষণের অভিযোগে সাদেক (১৯) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার সকালে উপজেলার চাকুয়া ইউনিয়নের রানীচাপুর গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার সাদেক ওই গ্রামের ইমান আলীর ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত রোববার রাতে ওই শিশুকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত সাদেক। এ ঘটনায় সোমবার সকালে মামলা করেন। এ বিষয়ে খালিয়াজুরী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এটিএম মাহমুদুল হক জানান, গ্রেফতার ধর্ষককে নেত্রকোনার আদালতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য শিশুটিকে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
Didar Hossen Iqbal ১৬ জুলাই, ২০১৯, ২:০৩ এএম says : 0
Allah amader hedayet koro
Total Reply(0)
Mahmud Iqbal ১৬ জুলাই, ২০১৯, ২:০৪ এএম says : 0
ধর্ষন কি আর এমনি এমনি বাড়ছে।
Total Reply(0)
Maruf Chowdhury ১৬ জুলাই, ২০১৯, ২:০৪ এএম says : 0
এইগুলা কি শুরু হয়েছে, প্রতিদিন চার-পাঁচটা করে নিউজ হইতেছে। তারপরও থামতে চায় না, প্রশাসন কি করে।
Total Reply(0)
Fahmida AR ১৬ জুলাই, ২০১৯, ২:০৪ এএম says : 0
government Islamic law mene sasti mritto korle pap barto na. shame on government
Total Reply(0)
Tasfik Ahmed Zilan ১৬ জুলাই, ২০১৯, ২:০৫ এএম says : 0
আসতাগুফিরুল্লাহ।।। এই মানুষরূপী জানায়ারদের বিচার এই বাংলার জমিনে আদৌ কি হবে
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন