ঢাকা, সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ০৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৭ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

খেলাধুলা

শীর্ষেই থাকলেন সাকিব

আইসিসি রেটিং পয়েন্ট ৪০৬

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ জুলাই, ২০১৯, ৪:৫৭ পিএম

সাকিব আল হাসান যে আইসিসি ওয়ানডে অলরাউন্ডার র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে থাকবেন তা অনুমিতই ছিল। অপেক্ষা ছিল ঘোষণার। বিশ্বকাপ আসরে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার পর তাকে নিয়েই ছিল যত সব আলোচনা। বিশ্বকাপ শুরুর আগেই আফগানিস্তান অলরাউন্ডার রশিদ খানকে সরিয়ে আইসিসি ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ অলরাউন্ডার হয়েছিলেন সাকিব। বিশ্বকাপ শেষেও তিনি তার আধিপত্য ধরে রাখলেন।
শীর্ষে থাকা সাকিবের পয়েন্ট ৪০৬। বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে ম্যাচ জেতানোর নায়ক স্টোকস (৩১৯) সাকিবের চেয়ে ৮৭ পয়েন্ট কম নিয়ে উঠে এসেছেন দুইয়ে। স্টোকসের পরেই ৩১০ পয়েন্ট নিয়ে তালিকায় তৃতীয় স্থান আফগান অলরাউন্ডার মোহাম্মদ নবীর। বিশ্বকাপে পাকিস্তান অলরাউন্ডার ইমাদ ওয়াসিমও পেয়েছেন তার দুর্দান্ত পারফরমেন্সের ফল। ২৯৯ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে তিনি আছেন চার নম্বর অবস্থানে। বিশ্বকাপের আগে কিছুদিন শীর্ষে ছিলেন আফগান অলরাউন্ডার রশিদ খান। বিশ্বকাপের বাজে ফর্ম তাকে ঠেলে দিয়েছে পাঁচ নম্বরে। আফগান এই লেগ স্পিনারের রেটিং পয়েন্ট ২৮৮।
এবারের বিশ্বকাপে ৮ ইনিংসে দুই সেঞ্চুরি ও পাঁচ হাফ-সেঞ্চুরিতে সাকিবের রান ৬০৬। ৩টিতে ম্যাচসেরা আর টুর্নামেন্টে সর্বাধিক গড় ৮৬.৫৭। এখানেই শেষ নয়, বল হাতে নেন ১১ উইকেট। এই সাফল্যে আইসিসির বিশ্বকাপ দলেও জায়গা করে নিয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড়ের দৌড়েও শেষ পর্যন্ত টিকে ছিলেন বাংলাদেশের এই আস্থার প্রতীক। কিন্তু আইসিসির নিয়মের মারপ্যাচে তার আর সেরা হওয়ার সুযোগ হয়নি।
এবারের বিশ্বকাপের পরও অবশ্য শীর্ষ ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে কোন পরিবর্তন আসেনি। আগের মতোই ৮৮৬ পয়েন্ট নিয়ে নাম্বার ওয়ানে আছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বিশ্বকাপে ৫ সেঞ্চুরির বিশ্বরেকর্ড গড়া রোহিত শর্মা ৮৮১ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে আছেন দুইয়ে। তিন নম্বরে পাকিস্তানি টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান ব্যাটসম্যান বাবর আজম (৮২৭)। চার নম্বরে দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস (৮২০)। এরপরই নিউজিল্যান্ডের রস টেলর (৮১৭) আছেন পঞ্চম স্থানে। এই তালিকার ১৯ নম্বরে রয়েছেন বাংলাদেশের মুশফিকুর রহিম। সাকিব আল হাসান আছেন ২২ নাম্বারে। তামিম ইকবাল নেমে গেছেন ২৭ নাম্বারে।
ওয়ানডে বোলারদের র‌্যাংঙ্কিংয়েও আগের মতোই শীর্ষে জাসপ্রিত বুমরাহ। ভারতের এই পেসারের রেটিং পয়েন্ট ৮০৯। দুই নম্বরে নিউজিল্যান্ডের ট্রেন্ট বোল্ট (৭৪০)। তিনে দক্ষিণ আফ্রিকার কাগিসো রাবাদা (৬৯৪)। এরপরই অস্ট্রেলিয়ার প্যাট কামিন্স (৬৯৩) ও দক্ষিণ আফ্রিকার ইমরান তাহির (৬৮৩)। বোলারদের তালিকায় ১৫ নাম্বারে আছেন টাইগার পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। মেহেদী হাসান মিরাজ আছেন ১৭তম স্থানে। সাকিবের অবস্থান ২৮।
আইসিসি দলীয় র‌্যাঙ্কিংয়ে যথারীতি শীর্ষে আছে ইংল্যান্ড (১২৩)। এক পয়েন্ট কম নিয়ে ভারতের (১২২) অবস্থান দুই। রানার্সআপ নিউজিল্যান্ড (১১৩) এগিয়ে উঠেছে তিনে। অস্ট্রেলিয়া (১১২) চারে, দক্ষিণ আফ্রিকা (১১০) পাঁচে, পাকিস্তান (৯৭) ছয়ে, বাংলাদেশ (৯০) সাতে, শ্রীলঙ্কা (৭৯) আটে, ওয়েস্ট ইন্ডিজ (৭৭) নয়ে ও আফগানিস্তানের (৫৯) অবস্থান দশে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন