ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

হুসেন মুহাম্মদ এরশাদ রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম করে ইতিহাসে জায়গা করে নিয়েছেন

রাউজানে বারাভী শরিফ মাহফিলে বক্তারা

রাউজান (চট্টগ্রাম) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ জুলাই, ২০১৯, ৯:৪৭ পিএম

রাউজানে বারাভী শরিফ মাহফিলে বক্তারা বলেছেন সংবিধানে রাষ্টধর্ম ইসলাম সংযোজন করে ইতিহাসে জায়গা করে নিয়েছেন প্রয়াত রাষ্টপতি হুসেন মুহাম্মদ এরশাদ। তারা বলেন মসজিদের বিদ্যুত বিল মওকুফ, শুক্রবার জুমার দিন সরকারী ছুটি ঘোষনা সহ নানাবিদ ভাল কাজের জন্য তিনি মানুষের মাঝে অমর হয়ে থাকবেন চিরকাল। ১৬ জুলাই মঙ্গলবার বাদে আছর রাউজান আমিরহাট সর্তাব্রিজ সংলগ্ন রহমানিয়া এবাদত খানায় অনুষ্টিত মাসিক বারাভী শরিফ, চট্টগ্রম জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলীয়া মাদ্রাসার প্রতিষ্টাতা কুতুবুল আউলিয়া হযরত সৈয়দ আহমদ শাহ ছিরিকোটি (রহ) বার্ষিক ওরশ শরিফ এবং সাবেক রাষ্টপতি হুসেন মুহাম্মদ এরশাদের মাগফিরাত উপলক্ষে আয়োজিত মাহফিলে বক্তারা এসব কথা বলেন। বিশিষ্ট আলেম শাহ এমদাদিয়া হলদিয়া দায়রা শাখার সহ-সভাপতি মাওলানা এয়াছিন মাইজভান্ডারীর সভাপতিত্বে ও মাওলানা মোজাম্মেল হোসাইনের সঞ্চালনায় প্রধান অথিতি ছিলেন রাউজান উত্তরসর্তা গাউছিয়া হাফেজিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার আরবী মোদার্রিছ ও আমিরহাট বাজার জামে মসজিদের খতিব আল্লামা কারী উসমান গণী (মা.জি.আ)। বক্তারা আরো বলেন হযরত সৈয়দ আহমদ শাহ ছিরিকোটি (রহ) জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলীয়ার মত একটি মাদ্রাসা প্রতিষ্টা করে দিকহারা সুন্নী মুসলমানের জন্য এলমে দ্বীনের যে সঠিক আকিদার বীজ বপন করে গেছেন তা কেয়ামত পর্যন্ত জারী থাকবে। বক্তারা বলেন সৈয়দ আহমদ শাহ ছিরিকোটি (রহঃ) বলে গেছেন আমাকে দেখতে হলে জামেয়াকে দেখেন, জামেয়ার খেদমত করেন। এতে প্রধান বক্তা ছিলেন রাউজান প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও আমির চৌধুরী জামে মসজিদের খতিব মাওলানা এম বেলাল উদ্দিন মাইজভান্ডারী। এতে কছিদা ও শাজরা শরিফ পাঠ করেন আল্লামা হাফেজ ওমর ফারুক। মিলাদ কিয়াম পরিবেশন করেন মাওলানা রমজান আলী জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা কাযেম রেজা। উপস্থিত ছিলেন উত্তরসর্তা গাউছিয়া হাফেজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক মাওলানা ইউছুফ জামালী, মাওলানা আবদুল আজিজ আলকাদেরী,মাওলানা মাসুদ উদ্দীন,সৈয়দ কপিল উদ্দিন,মুহাম্মদ আলী,সমাজ সেবক জহুর মিয়া,এম আর আবদুল বাতেন,আলহাজ্জ সিরাজুল হক,মাওলানা রুহুল আমিন,হাফেজ সেকান্দর,মুহাম্মদ আবছার,মুহাম্মদ নাজিম উদ্দিন,খাইরুল বশর,মাদ্রসা ছাত্র রিয়াজুল করিম,মুহাম্মদ গিয়াস,মুহাম্মদ এমরান,মুহাম্মদ বদরুদ্দোজা শাহিন,মুহাম্মদ ইফতিকার,হাফেজ মুঃ দানেস,হাফেজ মুঃ কুতুব,হাফেজ আহমদুল্লাহ প্রমুখ। পরে আখেরী মোনাজাত করেন মাহফিলের সভাপতি আল্লামা এয়াছিন মাইজভান্ডারী।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন