ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৮ সফর ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

এডিস মশা নিধনে ওষুধ কেন কাজ করছে না

তদন্তের নির্দেশ হাইকোর্টের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

ডেঙ্গু জীবাণুবাহী এডিস মশা নিধনে প্রয়োগকৃত ওষুধ কেন কাজ করছে না তা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

গতকাল বুধবার বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহসান এবং বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের ডিভিশন বেঞ্চ এ আদেশ দেন। একই সঙ্গে এডিস মশা নিধনের জন্য আমদানিকৃত ওষুধে কোনো ভেজাল আছে কিনা, থাকলে এটির সঙ্গে কারা জড়িত সেটিও তদন্তের মাধ্যমে বের করার আদেশ দেয়া হয়েছে। আগামি ২০ আগস্টের মধ্যে এ বিষয়ে প্রতিবেদন দাখিল করতে হবে। ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন এ প্রতিবেদন দাখিল করবে। এছাড়াও মশক নিধনে কার্যকর ওষুধ আনা এবং তা ছিটানোর জন্য অতিদ্রুত পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এতে প্রয়োজনে সরকারের সহায়তা নিতেও বলা হয়। আদালত থেকে বেরিয়ে আবেদনকারীর কৌঁসুলি মনজিল মোরসেদ বলেন, সিটি কর্পোরেশন মশা নিয়ন্ত্রণে যে ব্যবস্থা নিচ্ছে সেটা অকার্যকর। মিডিয়ায় রিপোর্ট এসেছে এই যে ওষুধগুলো দেয়া হচ্ছে, সে ওষুধ গুলোর মধ্যে কার্যকারিতা নেই। তারপরও সেই ওষুধ তারা ছিটাচ্ছে। এখানে ২০/২২ কোটি টাকার অর্থনৈতিক সংশ্লিষ্টতা আছে। এগুলো দুর্নীতির মাধ্যমে নেয়া হচ্ছে। যারা এ কাজগুলো করছে তাদের বিরুদ্ধে সিটি কর্পোরশেন কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না। তিনি বলেন, আরেকটা রিপোর্ট এসেছে সিটি কর্পোরেশন বলছে-নতুন ওষুধ এনে কার্যকরি করতে ৬ মাস লাগবে। আমি বলেছি, জনগণের প্রয়োজনে টেন্ডার এবং আইন-কানুনের বাইরে দ্রুত ওষুধগুলো এনে ব্যবহার করে জনগণের জীবনরক্ষার জন্য পদক্ষেপ নিতে হবে। শুনানি শেষে আদালত দুটি নির্দেশনা দিয়েছেন। প্রথমত: এ অকার্যকর ওষুধ যারা এনেছেন, যারা সরবরাহ করেছেন এর সঙ্গে যারা জড়িত এটি একটি দুর্নীতি। সিটি কর্পোরেশনকে এ দুর্নীতি তদন্ত করে তাদের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। দ্বিতীয়ত: সিটি কর্পোরেশন যেটা চিন্তুা করছে ভালো ওষুধ আনবে- সে ব্যাপারে আদালত বলেছেন এ বিষয়ে অতিদ্রুত পদক্ষেপ নিতে হবে। সরকার সহায়তা নিয়ে কার্যকর ওষুধ এনে তা ছিটানোর ব্যবস্থা করতে হবে। গতকাল সিটি কর্পোরেশনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট ড. নুরুন্নাহার নূপুর।

এর আগে গত ১৪ জুলাই হাইকোর্টের অপর একটি বেঞ্চ ডেঙ্গু, চিকনগুনিয়াসহ মশাবাহিত রোগ প্রতিরোধে ২৪ ঘন্টার মধ্যে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনকে নির্দেশ দিয়েছিলেন। সেই সঙ্গে এডিস মশা নির্মূলে বিবাদীদের নিস্ক্রিয়তাকে কেন বেআইনি ঘোষণরা করা হবে না-এই মর্মে রুল নিশি জারি করা হয়েছে। এক সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে হবে। এছাড়া সুপ্রিমকোর্ট বারের এক আইনজীবীর স্ত্রী ডেঙ্গু আক্রান্ত হলে গত ১১ জুলাই ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়রের কাছে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে লিগ্যাল নোটিস দেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Nannu chowhan ১৮ জুলাই, ২০১৯, ৯:৪৫ এএম says : 0
Kaj korbe ki vabe jodi taka attoshat korte gia mead urtinno othoba voa medicine amdani kore?
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন