ঢাকা, সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬, ২৪ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

অভ্যন্তরীণ

সিংড়ায় শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

সিংড়া (নাটোর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

নাটোরর সিংড়ায় উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মঈনুল ইসলামের বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতিসহ নানা অভিযোগ দুর্নীতি দমন কমিশন ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে দেয়া হয়েছে।

অভিযোগে সূত্রে জানা যায়, চলতি বছর প্রাথমিক বিদ্যালয় সংস্কার এবং সিøপের মালামাল কিনতে উপজেলার ২১০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে ১ কোটি ২০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার প্রত্যক স্কুলের প্রধান শিক্ষকের নিকট থেকে ২ থেকে ৪ হাজার টাকা ঘুষ নিয়ে বিল ভাউচারে স্বাক্ষর করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মঈনুল ইসলাম তার পছন্দ মতো দোকান থেকে নিম্নমানের সামগ্রী উচ্চ দামে কিনতে শিক্ষকদের বাধ্য করছেন। আর এ কাজে উপজেলার করচমাড়িয়া ক্লাস্টার ও চৌগ্রাম ক্লাস্টারের এ.টি ও জিয়াউল রহমান এবং পাকিশা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলমগীর হোসেন লায়ন শিক্ষা অফিসারকে সহযোগিতা করছেন।

উপজেলা প্রাথমিক বিদ্যালয় ২১০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে ৮টি ক্লাস্টারের বিভক্ত করেছেন। প্রত্যক ক্লাস্টারের আওতায় ২৮টি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। উপজেলার বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকরা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, ২লাখ টাকা বরাদ্দকৃত টাকা থেকে ৪ হাজার এবং ৪০ হাজার টাকা বরাদ্দকৃত বিদ্যালয় থেকে ২ হাজার টাকা ঘুষ নিয়ে বিল ভাউচারে স্বাক্ষর করছেন শিক্ষা অফিসার অফিসার মঈনূল ইসলাম। অভিযোগকারী জানান, জনস্বার্থেই তিনি অভিযোগগুলো দুর্নীতি দমন কমিশন ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে দিয়েছেন।

এ ব্যপারে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার অফিসার মঈনুল ইসলাম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, কাউকেই নিদিষ্ট দোকান থেকে মালামাল কিনতে বাধ্য করা হয়নি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন