ঢাকা, সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬, ২৪ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

অভ্যন্তরীণ

লাগাতার আন্দোলনে পৌরকর্মীরা

ভোগান্তিতে মঠবাড়িয়া পৌরবাসী

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২১ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে বেতন-ভাতার দাবিতে মঠবাড়িয়া পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা গত রোববার থেকে সকল প্রকার সেবা বন্ধ করে ঢাকায় লাগাতর কর্মসূচীতে অংশ গ্রহণ করায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছে মঠবাড়িয়া পৌরবাসী। টানা ৭দিন ধরে ময়লা পরিস্কার না করা, রাতের বেলা সড়ক বাতি না জ্বলা এবং কর সংগ্রহ, ট্রেড লাইসেন্স ও জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনসহ সকল সেবা কার্যক্রম বন্ধ থাকায় স্থবির হয়ে গেছে পৌরবাসীদের জনজীবন।

জানা যায়, রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে শতভাগ বেতন-ভাতাসহ পেনশনের দাবিতে বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস এসাসিয়েশনের ব্যানারে দেশের ৩৮২ টি পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ঢাকা জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে গত ৭ দিন ধরে লাগাতর অবস্থান কর্মসূচী চালিয়ে যাচ্ছে। মঠবাড়িয়া পৌর সভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সকল ধরণের নাগরিক সেবা বন্ধ থাকার ব্যানার পৌর ভবনে ঝুলিয়ে দিয়ে কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছে।

ফলে ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কার না করায় পৌর এলাকার অলিগলিতে ময়লার স্তুপ জমে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পরেছে এবং সড়ক বাতি না জ্বলায় রাতে চলাচল কষ্টকর হয়ে পড়েছে। কর সংগ্রহ, নাগরিক সনদ প্রদান, ট্রেড লাইসেন্স, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনসহ দৈনন্দিন কার্যক্রম বন্ধ থাকায় সেবাগ্রহীতারা সেবা সেকা না পেয়ে দুর্ভোগ পোয়াচ্ছেন।

পৌর এলাকার বাসিন্দা বিশিষ্ট শিক্ষবিদ নুর হোসেন মোল্লা বলেন, ‘পৌরবাসীকে জিম্মি করে এ ধরনের আন্দোলন অনভিপ্রেত। তবে তিনি পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের যৌক্তিক দাবি দ্রুত মেনে নেয়ার জন্য সরকারের নিকট দাবি জানান।

এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া পৌরসভার সচিব ও কর্মকর্তা-কর্মচারী এসোসিয়েশন মঠবাড়িয়ার সভাপতি মো. হারুন অর রশিদের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করলে প্রেসক্লাবের সামনে থেকে তিনি বলেন, ‘আমরা দাবি আদায় করেই ফিরবো। রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে বেতন-ভাতা পাওয়া আমাদের অধিকার, আমাদের আন্দোলন চলমান রয়েছে, দাবি আদায় না করা পর্যন্ত আমরা ঘরে ফিরবো না। আমাদের দৃঢ় বিশ^াস প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাদের ন্যায়সঙ্গত দাবি অতি দ্রুতই মেনে নিবেন’।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন