ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ০৮ ভাদ্র ১৪২৬, ২১ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

এত ছোট্ট ঘটনাকে রাষ্ট্রদ্রোহ মনে করি না: আইনমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ জুলাই, ২০১৯, ১:৫১ পিএম

বাংলাদেশে সংখ্যালঘুর ওপরে নির্যাতনের বিষয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে প্রিয়া সাহার দেয়া মিথ্যা বক্তব্য রাষ্ট্রদ্রোহ নয় বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। আজ রোববার বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে বিচারকদের প্রশিক্ষণের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব তিনি একথা বলেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনের বিষয়ে ট্রাম্পকে যে তথ্যগুলো প্রিয়া সাহা দিয়েছেন তা মিথ্যা, বিএনপি-জামায়াতের সময় ছাড়া বাংলাদেশে এ ধরনের ঘটনা ঘটেনি। এটা তার ব্যক্তিগত ঈর্ষা চরিতার্থের জন্য করেছে। এত ছোট্ট ঘটনায় রাষ্ট্রদ্রোহ হয়ে গেছে, তা মনে করি না।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) হোয়াইট হাউসে ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার ২৭ ব্যক্তির সঙ্গে বৈঠক করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেখানে ১৬টি দেশের প্রতিনিধি অংশ নেন। বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়া সাহাও প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পান।

প্রিয়া সাহা মার্কিন প্রেসিডেন্টকে বলেন, ‘আমি বাংলাদেশ থেকে এসেছি। বাংলাদেশে ৩ কোটি ৭০ লাখ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টান নিখোঁজ রয়েছেন। দয়া করে আমাদের লোকজনকে সহায়তা করুন। আমরা আমাদের দেশে থাকতে চাই।’

এরপর তিনি বলেন, ‘এখন সেখানে ১ কোটি ৮০ লাখ সংখ্যালঘু রয়েছে। আমরা আমাদের বাড়িঘর খুইয়েছি। তারা আমাদের বাড়িঘর পুড়িয়ে দিয়েছে, তারা আমাদের ভূমি দখল করে নিয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনো বিচার পাইনি।’ ভিডিওতে দেখা গেছে, এক পর্যায়ে ট্রাম্প নিজেই সহানুভূতির সঙ্গে এই নারীর সঙ্গে হাত মেলান।

প্রিয়া সাহা আর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যকার কথোপকথন প্রকাশ পেলে সমালোচনার ঝড় ওঠে। বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকেও তীব্র নিন্দা জানানো হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
ম নাছিরউদ্দীন শাহ ২১ জুলাই, ২০১৯, ৮:৩৭ পিএম says : 0
মাননীয় মন্ত্রী আপনার দলের সাধারণ সস্পাদক রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা কথা বলেছেন। মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর সন্তানতো আরো ভয়ংকর ভাবে বললেন। মার্কিন হামলায় ক্ষেত্র প্রস্তর করতে গভীর ষড়যন্ত্র। মাননীয় প্রধান মন্ত্রী রাষ্ট্রীয় সফরে লন্ডনে। মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর কি প্রতিক্রিয়া কি বলেন আপনার উপেক্ষা করা প্রয়োজন ছিল। সারা দেশের মানুষের বিবেকবান মানুষের রাষ্ট্রের সব শ্রেণি পেসার মানুষ মনে করেন রাষ্ট্রদ্রোহিতার চাইতে বড়কিছু আপনি আইনমন্ত্রী হিসাবে এটি ঘটনা ছোট্র ঘটনা বলায় বঙ্গবন্ধুর আদশ্যের নগন্য ব্যক্তি হিসাবে আপনার পদত্যাগ দাবি করছি। কারণ আপনি দেশের স্বাধীনতা দেশের সম্মান সারাদেশের মানুষের বিরুদ্ধে কথা বলেছেন। এটি সরকার আর বিরোধী দলের বিষয় নয়। রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ। মার্কিন প্রেসিডেন্টের কাছে নালিশ জানানো প্রিয়া সাহা ছোট্ট ঘটনা কি করে হলো? আর প্রাচীনতম রাজনৈতিক দল আওয়ামীলীগ কোনঅপশক্তির নিকট মাথা নত করেনাই এটি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদশ্য ও পকৃত শিক্ষা। তার দর্শন আদশ্যের উপর প্রতিষ্টিত বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধু কারণে আপনি আজ মন্ত্রি সাহস শক্তি না থাকলে পদত্যাগ করুন।
Total Reply(0)
ওবাইদুল ২১ জুলাই, ২০১৯, ৫:২৮ পিএম says : 0
বিএনপি স্বাধীনতা বিরোধী অনেককে মন্ত্রীত্ব দিয়েছিল। আপনারাও এই মহিলাকে মন্ত্রীত্বের পদ দিয়ে বিএনপিকে দেখিয়ে দিতে পারেন যে আপনারাও পারেন !!!!
Total Reply(0)
Abir Islam ২১ জুলাই, ২০১৯, ৫:৩৬ পিএম says : 0
eta awami leag bole kotha,
Total Reply(0)
Mohammed Kowaj Ali khan ২১ জুলাই, ২০১৯, ৮:৩৮ পিএম says : 0
তুমি তো একটা জাতীয় বেঈমান। তুমি রাস্ট্রদ্রোহ মনে করিবায় কি ভাবে? আমি তুমাকে এবং মুদিকে এবং জাতীয় বেঈমাননিকে যে দিন পাইমু সেই দিন তুমাদেরকে ..দিয়া পিটাইমু। ইনশাআল্লাহ ।
Total Reply(0)
Kaimul islam faruk ২১ জুলাই, ২০১৯, ১০:৪১ পিএম says : 0
আমার মতে এটা রাষ্ট্রের সংগে অনেক বর বেইমানি করেছে।তাই যথাযথ শাস্তি আবেদন করছি
Total Reply(0)
Kaimul islam faruk ২১ জুলাই, ২০১৯, ১০:৪১ পিএম says : 0
আমার মতে এটা রাষ্ট্রের সংগে অনেক বর বেইমানি করেছে।তাই যথাযথ শাস্তি আবেদন করছি
Total Reply(0)
আকরামুজ্জামান ২১ জুলাই, ২০১৯, ২:১৭ পিএম says : 0
আমি মনে করি এটা জঘন্যতম রাষ্ট্রদ্রোহ।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন