ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ০৬ ভাদ্র ১৪২৬, ১৯ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

শিক্ষাদিক্ষা

বাংলাদেশি স্টুডেন্টস ইউনিয়ন মালয়েশিয়ার শিক্ষা সফর অনুষ্ঠিত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ জুলাই, ২০১৯, ১১:৪৫ এএম

মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের বৃহৎ সংগঠন “বাংলাদেশি স্টুডেন্টস' ইউনিয়ন মালয়েশিয়া” (বিএসইউএম) এর উদ্যোগে এবছরের শিক্ষা সফর অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিএসইউএম এর সভাপতি পিএইচডি গবেষক মোঃ ফয়জুল হকের তত্ত্বাবধানে ও সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক ইমন এর পরিচালনায় মালয়েশিয়ায় অধ্যয়নরত ২০ টিরও অধিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে “আনন্দ-উৎসবে এক দিন” স্লোগানে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে এ শিক্ষা সফর অনুষ্ঠিত হয়।

এই আয়োজনে অংশগ্রহণকারীরা ২১ জুলাই সকাল ৮.৩০-এ পেট্রোনাস টুইন টাওয়ারে একত্রিত হয় এবং সেখান থেকেই তাদের বাস রওনা দেয়। শিক্ষা সফরের অংশ হিসেবে মালয়েশিয়ার আর্মি মিউজিয়াম, কোটা লুকুত মিউজিয়াম, পুসাত ইকান হিয়াসান (একুরিয়াম) পরিদর্শনের পাশাপাশি পোর্ট ডিকসন সমুদ্র সৈকতে বিভিন্ন প্রতিযোগিতা ও আনন্দ- উৎসবের আয়োজন করা হয়। পাশাপাশি সংগীত প্রতিযোগিতারও আয়োজন হয় এ শিক্ষা সফরে। প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে আকর্ষণীয় পুরস্কার প্রদান করা হয়। অংশগহণ করা সকলকে পুসাত বাহাসা মায়া নামক প্রতিষ্ঠান হতে টি শার্ট প্রদান করা হয়।

সংগঠনের সভাপতি পিএইচডি গবেষক মোঃ ফয়জুল হক এর নেতৃত্বে গঠিত শিক্ষা-সফরের আয়োজক কমিটিতে ছিলেন এনামুল হক ইমন, নাজমুন নাহার, মোস্তাফিজুর রহমান, ইয়াহিয়া পাপন, মুহিব্বুল্লাহ, তাওহীদ ও আশরাফ। আয়োজক কমিটির প্রধান ও বি এস ইউ এম এর সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক (ইমন) বলেন- আমরা যারা বিদেশে পড়াশোনা করছি, পরিবার পরিজন ছেড়ে রয়েছি, তারা সবাই মিলে একটি পরিবারের মতো। আমরা চাই, বিভিন্ন সময় সংঘবদ্ধভাবে ক্যারিয়ার গঠনে সহায়তার পাশাপাশি বিভিন্ন আনন্দ উৎসবের মাধ্যমে সবাই একতাবদ্ধ থেকে একে-অপরের সুখ-দুঃখের সংগী হতে। তারই অংশ হিসেবে আমাদের এই আয়োজন। এখানে অংশ নেয়া সবাই খুবই উপভোগ করেছেন এবং এমন উদ্যোগ আরও বেশি বেশি নেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন। দিনশেষে এই হাসিমুখগুলোই আমাদের প্রাপ্তি।

বি এস ইউ এম এর সভাপতি পিএইচডি গবেষক ফয়জুল হক এমন আয়োজনে অংশগ্রহণ করার জন্য সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই বি এস ইউ এম মালয়েশিয়ায় অধ্যনরত ছাত্র-ছাত্রীদের একাডেমিক ও নন-একাডেমিক দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য সব ধরণের আয়োজন করে আসছে ও ভবিষ্যতেও করবে। এর পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক দায়িত্ব পালন এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সকলকে একই ছাতার নিচে এনে নিজেদের গঠন ও দেশ গঠনে আত্মনিয়োগের আহ্বান জানানোই আমাদের উদ্দেশ্য।

এছাড়াও তিনি বিএসইউএম সম্পর্কে সবার উদ্দেশ্যে বলেন, এ সংগঠন মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত সকল মেধাবী শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে গঠিত সংগঠন। সকল জাতি,গোত্র,ধর্ম,বর্ণ,রাজনৈতিক দল ও মতের সম্মিলিত এক মিলন মেলা যেখানে আমাদের সবার একটাই মহান পরিচয় আমরা বাংলাদেশি, বাংলাদেশ আমাদের গর্ব। এ দেশের সম্মান ও ভাবমূর্তি রক্ষায় আমরা সবাই এক ও একতাবদ্ধ।

শিক্ষা সফরের মধ্যে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য একটি “এক্সিকিউটিভ মিটিং” সম্পন্ন হয়, যেখানে চার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সিদ্ধান্তগুলো হলো- আগামী এক সপ্তাহ বিভিন্ন ক্যাম্পাসের স্টুডেন্টদের মধ্যে বি এস ইউ এম এর “রেজিস্ট্রেশন”। এনটিভি’র সহযোগিতায় মালয়েশিয়ার বিভিন্ন ক্যাম্পাসের বাংলাদেশী স্টুডেন্টদের মধ্যে বিতর্ক প্রতিযোগিতার আয়োজন। কুরবানী ঈদের সময় বি এস ইউ এম এর এক্সিকিউটিভ মেম্বারদের নিয়ে “কুরবানী আয়োজন ও বার্বিকিউ পার্টি”। ঈদের পরের সপ্তাহে “ইন্দোনেশিয়ার বালি ট্যুর”।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে প্রতিষ্ঠিত বিএসইউএম মালয়েশিয়ায় অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের সর্ব বৃহৎ সংগঠন। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ক্যারিয়ার সেমিনার, খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ গঠনমূলক ও সৃজনশীল নানা ধরনের প্রোগ্রাম বাস্তবায়ন করে আসছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন