ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

ইনকিলাবে সংবাদ প্রকাশের পর...

রফিকুল ইসলাম সেলিম | প্রকাশের সময় : ৯ আগস্ট, ২০১৯, ৪:২৪ পিএম

‘ক্যান্সার আক্রান্ত শিশুদের কী হবে’ ১২ জুলাই -দৈনিক ইনকিলাবে এই শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এরপর চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের শিশু ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ প্রফেসর ডা. একেএম রেজাউল করিমের বদলির বিষয়টি নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়। প্রতিবেদনে বলা হয় তাকে বদলির ফলে চমেক হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন শতাধিক ক্যান্সার আক্রান্ত শিশুর চিকিৎসা বন্ধের উপক্রম হয়েছে। আবার তাকে রাঙ্গামাটি সরকারি মেডিক্যাল কলেজে বদলি করা হলেও সেখানে ক্যান্সার চিকিৎসার কোন ব্যবস্থা নেই। এ অবস্থায় চমেকের শিশু ক্যান্সার বিভাগে চিকিসাধীন শিশুদের স্বজনেরা রাস্তায় নামেন। বিএমএ, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজসহ বিভিন্ন মহলের পক্ষ থেকে ওই চিকিৎসকের বদলির আদেশ প্রত্যারের দাবি উঠে। দৈনিক ইনকিলাবও এ বিষয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদন অব্যাহত রাখে। অবশেষে বৃহস্পতিবার দেশের তিনজন শিশু ক্যান্সার বিশেষজ্ঞের একজন প্রফেসর রেজাউল করিমের বদলির আদেশ প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। জানা গেছে দৈনিক ইনকিলাবে প্রকাশিত প্রতিবেদন সরকারের শীর্ষ পর্যায়ের নজরে আসলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে তার বদলির আদেশ প্রত্যাহার করে নিতে বলা হয়। বাংলাদেশ জাতীয় দলের অধিনায়ক ও সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজাকে নিয়ে ফেইসবুকে একটি মন্তব্যের জেরে গত ২৬ জুন এ চিকিৎসককে রাঙ্গামাটিতে বদলি করা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন