ঢাকা, রোববার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

২২ আগষ্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নানা সন্দেহে ঘুরপাক খাচ্ছে প্রত্যাবাসন

বিশেষ সংবাদদাতা, কক্সবাজার | প্রকাশের সময় : ১৬ আগস্ট, ২০১৯, ১১:২১ এএম

বহুল প্রত্যাশিত রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন আগামী ২২ আগষ্ট শুরু হতে যাচ্ছে। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে এই নতুন তারিখ নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার। মিয়ানমারের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বার্তাসংস্থা রয়টার্স গতকাল বৃহস্পতিবার এ খবর জানিয়েছে।

মিয়ানমারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মিন্ট থু বলেন, ‘আগামী ২২ আগস্ট তিন হাজার ৫৪০ জনের প্রত্যাবাসনে আমরা সম্মত হয়েছি।’ বাংলাদেশ সম্প্রতি ২২ হাজারের বেশি রোহিঙ্গার একটি তালিকা মিয়ানমারকে দিয়েছিল। সেখান থেকে যাচাই-বাছাই শেষে দেশটি তিন হাজার ৫৪০ জনকে ফেরত নেওয়ার জন্য চূড়ান্ত করে।

বাংলাদেশের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেন, এটি একটি ছোট আকারে প্রত্যাবাসন পরিকল্পনা। তিনি আরও বলেন, ফেরত যাওয়ার জন্য কাউকে জোর করা হবে না। বাংলাদেশ চায় রোহিঙ্গাদের স্বেচ্ছায়, নিরাপদ, মর্যাদাপূর্ণ ও স্থিতিশীল প্রত্যাবাসন হউক।

এর আগে গত নভেম্বরে কক্সবাজারে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের ফেরতের একটি উদ্যোগ ব্যর্থ হয়। রোহিঙ্গারা নিজভূমি আরাকান (রাখাইনে) ফেরত যাওয়ার আগে মিয়ানমারের নাগরিকত্বসহ কিছু দাবি জানিয়েছে। এসব দাবি এখনো পূরণ হয়নি। ফলে এবারও তারা স্বেচ্ছায় যাবে কিনা তা অনিশ্চিত।
এদিকে জাতিসংঘ বলছে, রাখাইনের পরিবেশ এখনো রোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়ার উপযোগী হয়নি। জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর বলেছে, প্রত্যাবাসনের আগে রাখাইনের পরিস্থিতি রোহিঙ্গাদের কাছে তুলে ধরবেন তারা।
এসব কারণে নানা সন্দেহের মধ্যদিয়ে আগামী ২২ আগষ্ট রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের নতুন তারিখ নির্ধারন করা হল।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন