ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

‘সাকিবের সঙ্গে কোনো সমস্যা নেই’

ড্রেসিংরুম দেখে যাওয়ার আমন্ত্রণ মাহমুদউল্লাহর

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০১ এএম

মাঠেরই বাইরের সমালোচনাকে পেছনে ফেলে নিজের ফিটনেস নিয়েই ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ। গতকাল মিরপুরে -ইনকিলাব


বিশ্বকাপে ভালো করতে পারেননি, চূড়ান্ত খারাপ কেটেছে শ্রীলঙ্কা সফর। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সময়টা এমনিতেই খারাপ যাচ্ছিলো। তারমধ্যে বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়া ম্যাচ চলাকালীন সাকিব আল হাসানের সঙ্গে তার মনোমালিন্যের খবর বেরিয়েছে কিছু গণমাধ্যমে। এর পর সাকিবকে সংবাদমাধ্যম সামনে পেলেও এ প্রসঙ্গে কোনো কিছু বলেননি টেস্ট অধিনায়ক। টেস্টের সহ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ বিশ্বকাপের পর থেকেই সংবাদমাধ্যমকে এড়িয়ে চলায় এ ব্যাপারে তাঁর বক্তব্য জানা যায়নি। গতকাল সবার সামনে এসে জানালেন সাকিবের সঙ্গে তাঁর কিছুই হয়নি।

পরবর্তী সিরিজের জন্য ৩৫ জনের প্রাথমিক দল দিয়েছে বিসিবি। আপাতত ফিটনেসেই মনোযোগী দলের মুখপাত্র হয়ে মাহমুদউল্লাহকেই আসতে হলো গতকাল। নতুন কোচ ও পরবর্তী সিরিজ নিয়ে কথা বলার ফাঁকেই উঠে এল অপ্রীতিকর সেই প্রসঙ্গ। সাকিবের সঙ্গে কী হয়েছিল তাঁর? মাহমুদউল্লাহ প্রথমেই বলেছেন, যা বলা হয়েছে তা সত্য নয়, ‘আমার মনে হয়, এ ধরনের বিষয় নিয়ে কথা না বলাই ভালো। এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে চাচ্ছি না। শুধু একটা কথাই বলতে চাই, যেভাবে মিডিয়াতে ব্যাপারগুলো উপস্থাপন করা হয়েছে, তেমন কিছু হয়নি। উপস্থাপন ভিন্নভাবে হতে পারত। এটুকুই বলতে চাই।’

মোটামুটি এক বিশ্বকাপ কাটানোর পর শ্রীলঙ্কা সিরিজে বড় দায়িত্ব ছিল মাহমুদউল্লাহর ওপর। সাকিব ও মাশরাফির অনুপস্থিতিতে দলকে ভরসা দেওয়ার দায়িত্ব ছিল বাকি তিন সিনিয়রের। মুশফিকুর রহিমই শুধু সেটা করতে পেরেছেন। তামিম ইকবাল ও মাহমুদউল্লাহ সে কাজে ব্যর্থ হয়েছেন। ৩ ম্যাচে মাত্র ১৮ রান করায় এ সময়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে আসেননি মাহমুদউল্লাহ। আজ মিরপুরে সেটা স্বীকারও করেছেন মাহমুদউল্লাহ। তবে দলের স¤প্রীতি নষ্ট হওয়ার প্রসঙ্গ ওঠায় উত্তর দিতে পিছপা হননি মাহমুদউল্লাহ, ‘আমার মনে হয় না কোনো সতীর্থের সঙ্গে গন্ডগোল আছে। আমরা এখনো খুব ভালো বন্ধু। ড্রেসিংরুমে আপনারা (সাংবাদিকেরা) চাইলে আসতে পারেন। আমরা কীভাবে কথা বলি, একজন আরেকজনের সঙ্গে কেমন মজা করি, কত ভালোভাবে সময় কাটাই। আপনাদের স্বাগত জানাচ্ছি, এসে দেখে যেতে পারেন ড্রেসিংরুম। ছোট হোক, বড় হোক আমরা একজন একজনের সঙ্গে কতটুকু ভালোভাবে থাকি দেখুন। সব সময় চেষ্টা করি যেন সবার সঙ্গে ভালোভাবে থাকতে পারি, দলের জন্য ভালো খেলতে পারি। সব সময় এটা বলি, আজও এটা বলি, ভবিষ্যতেও এটাই বলব- সবকিছু ঠিকভাবেই চলছে।’

বিশ্বকাপের পুরো সময়টায় গণমাধ্যমের সামনে হাজির হতে দেখা যায়নি তাকে। এর কারণ হিসেবে বাংলাদেশের সিনিয়র এই ক্রিকেটার বললেন তিনি অপেক্ষায় ছিলেন ভালো কোন পারফরম্যান্সের, ‘না না। আমি মিডিয়ার বাইরে ছিলাম না। সঠিক সময়ের জন্য অপেক্ষা করছিলাম। যেন আমি ভাল কিছু করে আপনাদের সামনে আসতে পারি এটার জন্য অপেক্ষা করছিলাম। এর মধ্যে গত সিরিজটা আমার ভালো হয়নি। আমার মনে হয় বিশ্বকাপটা মোটামুটি ভালই খেলেছি। শেষ সিরিজটা খারাপ গিয়েছে।’

এতেও সন্তুষ্ট হননি মাহমুদউল্লাহ। তাঁর বক্তব্য ব্যবহার কয়ে পরে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। সে সংবাদের শিরোনাম পছন্দ না হওয়ায় একদম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের আশ্রয় নিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ। ফেসবুকে নিজের অফিশিয়াল পেজে এসে বলেছেন, ‘একটি শিরোনাম দেখলাম, সাকিবের সঙ্গে ড্রেসিংরুমের ঘটনাটা ভিন্নভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। সত্যি হলো সাকিবের সঙ্গে আমার কোনো রকমের দ্ব›দ্ব বা সমস্যা হয়নি। আমরা যত দিন ধরে একসঙ্গে খেলছি, খুবই ভালো সতীর্থ ছিলাম। এখনো আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকব। সাকিবের সঙ্গে আমার কোনোরকমের কিছু হয়েছে এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা কথা। আমার মনে হয়েছে, এটা পরিষ্কার করে বলা দরকার। এ কারণেই এ ভিডিওটা দেওয়া হচ্ছে।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন