ঢাকা শুক্রবার, ১৫ জানুয়ারি ২০২১, ০১ মাঘ ১৪২৭, ০১ জামাদিউল সানী ১৪৪২ হিজরী

ইসলামী বিশ্ব

আলেপ্পোর শিশু হাসপাতালে বিমান হামলা : নিহত ২০

তিন ঘণ্টার ব্যবধানে ৩টি চিকিৎসাকেন্দ্র আক্রান্ত, এক সপ্তাহে ৬শ’ হামলা

প্রকাশের সময় : ১০ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : সিরিয়ায় আলেপ্পো শহরের বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত এলাকাগুলোতে চালানো বিমান হামলায় কমপক্ষে ২০ জন নিহত এবং আরো বহুসংখ্যক আহত হয়েছে। ওই হামলায় সেখানকার তিনটি হাসপাতালও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সিরিয়ান অবজারভেটরি মানবাধিকার গ্রুপ জানায়, গত বুধবার বায়ান হাসপাতালে বিমান হামলায় ১০ জন এবং আলেপ্পোর পার্শ্ববর্তী এলাকা আল মারজেহতে সিরিয়া সরকারি বাহিনীর হেলিকপ্টার থেকে নিক্ষিপ্ত ব্যারেল বোমার বিস্ফোরণে দুই শিশুসহ চার জন প্রাণ হারায়। এছাড়া আল মোদি এলাকায় বিমান হামলায় চিকিৎসা কর্মীসহ অপর ছয় ব্যক্তি নিহত হয়। উল্লেখ্য, চলতি সপ্তাহেই আলেপ্পোতে প্রায় ছয়শ’ বিমান হামলা হয়েছে। এর মধ্যে শতাধিক হামলা হয়েছে গত ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই। হাসপাতালের চিকিৎসকরা বলছেন, দেশটির সরকারি বাহিনী এবং রুশ বাহিনীর বিমান হামলায় শহরটির অবশিষ্ট একমাত্র শিশু হাসপাতালটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। হাসপাতালটির পরিচালক বলেছেন, হামলার কারণে নয়টি নবজাতক শিশুকে ইনকিউবেটর থেকে সরিয়ে হাসপাতালটির বেজমেন্টে নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়ে যেতে হয়েছে। তিনি বলেন, পুরো আলেপ্পোতে এখন শুধুমাত্র সাতটি হাসপাতাল অবশিষ্ট রয়েছে এবং এই হাসপাতালগুলোর পক্ষে ক্ষতিগ্রস্তদের ন্যূনতম সাহায্য করার ক্ষমতাও দিন দিন শেষ হয়ে আসছে। জাতিসংঘ বলছে, মাত্র তিন ঘণ্টার ব্যবধানে তিনটি চিকিৎসাকেন্দ্রে হামলা চালানো হয়েছে। এক বিবৃতিতে ইউনিসেফের মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকার আঞ্চলিক পরিচালক পিটার সালামা বলেছেন, আল বায়াদ ও আল হাকাম হাসপাতাল ও আবদুলহাদি ফারেস ক্লিনিকে হামলা চালানো হয়েছে। আল হাকিম হচ্ছে সিরিয়ার সেই গুটিকয়েক হাসপাতালের একটি যেটি যুদ্ধকালীন সময়েও সিরিয়ার জনগণকে চিকিৎসাসেবা দিয়ে আসছে। হাসপাতালে এটি দ্বিতীয় হামলা। আলেপ্পোর বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত এলাকায় বসবাসরত প্রায় সাড়ে তিন লাখ মানুষের জন্য এখন খুব অল্প কিছু হাসপাতাল অবশিষ্ট রয়েছে। হামলার পরপর ধারণ করা একটি ভিডিওচিত্রে দেখা যায় রাস্তাজুড়ে লাশ আর লাশ ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে এবং বাড়িঘর ধ্বংস হয়ে গেছে। অগ্নিনির্বাপণ কর্মীরা ক্ষতিগ্রস্ত ভবনগুলোর আগুন নেভানোর চেষ্টা করছে। এছাড়া তাদেরকে ধ্বংসস্তূপ থেকে বেঁচে যাওয়া মানুষদের উদ্ধারের চেষ্টা করতেও দেখা গেছে। জাতিসংঘ বলছে, বিমান হামলায় চিকিৎসাকর্মীরাও হতাহত হয়েছেন বলে তারা জানতে পেরেছেন। সিরিয়া বিষয়ে আন্দোলনকর্মীরা বলছেন, চলতি সপ্তাহেই আলেপ্পোতে প্রায় ছয়শ’ বিমান হামলা হয়েছে। এর মধ্যে শতাধিক হামলা হয়েছে গত ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই। অপর এক খবরে বলা হয়, সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় আলেপ্পো শহরের হাসপাতালটির পরিচালক বলেছেন, হামলার কারণে ইনকিউবেটর থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে কয়েকটি নবজাতককে। পুরো আলেপ্পোতে এখন সাতটি হাসপাতাল অবশিষ্ট রয়েছে। আলেপ্পোর বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত এলাকায় চালানো রুশ বিমান হামলায় বহুসংখ্যক মানুষ হতাহত হয়েছে। এসব বিমান হামলা কারা চালিয়েছে তা এখনো নিশ্চিত নয়, তবে সরকারি বাহিনী দীর্ঘদিন যাবত শহরটির নিয়ন্ত্রণ নেবার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। হামলার পরপর ধারণ করা একটি ভিডিওচিত্রে দেখা যায় অনেক লাশ এখানে সেখানে ছড়িয়ে পড়ে আছে। অগ্নিনির্বাপনকর্মীরা ক্ষতিগ্রস্ত ভবনগুলোর আগুন নেভানোর চেষ্টা করছে এবং অনেকে ধ্বংসস্তূপ থেকে বেঁচে যাওয়া মানুষদের উদ্ধারের চেষ্টা করতেও দেখা যায়। আল জাজিরা, বিবিসি, রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন