ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

‘বদলি’ লাবুশেনে অজিদের রক্ষা

অ্যাশেজের দ্বিতীয় ম্যাচ ড্র

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০০ এএম

টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম ‘আলোড়ন সৃষ্টিকারী বদলি’ খেলোয়াড়ের স্বীকৃতি পেলেন অস্ট্রেলিয়ার মার্নাস লাবুশেন। লর্ডসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বদলি হিসেবে খেলতে নেমে এই ইতিহাসের অংশ হন তিনি। তার ব্যাটিং দৃড়তায় অ্যাশেজের দ্বিতীয় ম্যাচ ড্র করেছে অস্ট্রেলিয়া।

সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডের পেসার জোফরা আর্চারের বাউন্সারে ঘাড়ের পেছনে আঘাত পাওয়ায় দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে পারেননি অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক স্মিভ স্মিথ। তার পরিবর্তে ব্যাট হাতে নামেন লাবুশেন। এই নিয়মটি আগে ছিলো না। দ্বাদশ খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে নামলে আগে কেবল ফিল্ডিং করা যেত। চলতি মাসের শুরু থেকে আইসিসি এই নিয়ম পরিবর্তন করেছে। সেই নিয়মের প্রধম প্রয়োগ হলো লাবুশেনের হাত ধরে। স্মিথের পরিবর্তে চার নম্বরে ব্যাট হাতে নেমেই ৫৯ রানের ইনিংস খেলে ম্যাচ বাঁচিয়েছেন লাবুশেন।
গতকাল লর্ডসে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের শেষ দিনে, অস্ট্রেলিয়াকে জয়ের জন্য ২৬৭ রানের টার্গেট দেয় ইংল্যান্ড। সেই টার্গেটে খেলতে নেমে ৪৭ রানেই ৩ উইকেট হারায় অসিরা। এরপর ইংল্যান্ডের বোলারদের সামনে প্রতিরোধ গড়ে তুলেন ‘কংকাসন সাব’ লাবুশেন ও ট্রাভিস হেড। দু’জনে চতুর্থ উইকেটে ৮৫ রানের জুটি গড়ে অস্ট্রেলিয়াকে হারের পথ থেকে সরিয়ে আনেন। ৮টি চারে ১০০ বলে ৫৯ রান করে ফিরেন লাবুশেন। তবে ৪২ রানে অপরাজিত থেকে টেস্ট ড্র করে মাঠ ছাড়েন হেড। প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ড ২৫৮ ও অস্ট্রেলিয়া ২৫০ রান করে। এরপর ৫ উইকেটে ২৫৮ রান তুলে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে ইংল্যান্ড। জয়ের লক্ষ্যে ৬ উইকেটে ১৫৪ রান করে ম্যাচ ড্র করে অস্ট্রেলিয়া। বার্মিংহামে প্রথম টেস্ট ২৫১ রানে জিতে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে আছে অস্ট্রেলিয়া।

লাবুশেনের এমন দুর্দান্ত ইনিংসের প্রশংসা করেছেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক টিম পাইন, ‘লাবুশেন দুর্দান্ত খেলেছে। শুরুতেই তাকে বাউন্সারের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হয়েছে । দুর্দান্তভাবে নিজের যোগ্যতা ও টেকনিক দেখিয়েছে লাবুশেন।’

ওয়ানডে বিশ্বকাপের ফাইনালের সেরা খেলোয়াড় বেন স্টোকসের অপরাজিত ১১৫ রানে অস্ট্রেলিয়ার সামনে ২৬৭ রানের টার্গেট দেয় ইংল্যান্ড। শেষ দিনের চা-বিরতির এক ঘন্টা আগে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে ইংল্যান্ড। বৃষ্টির কারনে পুরো ম্যাচের পাঁচটি সেশন ভেস্তে যায়। ম্যাচের শেষদিনের খেলা শুরু হতেও এক ঘন্টা দেরী হয়। এ ম্যাচ দিয়ে টেস্ট অভিষেক হওয়া আর্চার দুই ইনিংসে শিকার করেন ৫ উইকেট। ম্যাচ ড্র হলেও দলের পারফরমেন্সে খুশী ইংল্যান্ডের অধিনায়ক জো রুট, ‘আমার মনে হয় এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ যে, আমরা দারুণভাবে ঘুড়ে দাঁড়িয়েছি এবং পরিকল্পনামত সবকিছু করতে পেরেছি।’

ইনজুরিতে পড়ায় তৃতীয় টেস্টে খেলা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে তিন ইনিংসে ১৪৪, ১৪২ ও ৯২ রান করা স্মিথের। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া জানিয়েছে, ‘স্মিথের ঘাড়ে স্ক্যান করানো হয়েছে রোববার। তবে তার ঘাড়ে কোন ক্ষতি হয়নি। স্ক্যানের পর টিম হোটেলে ফিরে এসেছে স্মিথ এবং বিশ্রাম নিয়েছে। তাকে সার্বক্ষনিক পর্যবেক্ষণে রাখা হবে।’

সংক্ষিপ্ত স্কোর
ইংল্যান্ড : ২৫৮ ও (আগের দিন ৯৬/৪) ৭১ ওভারে ২৫৮/৫ (ডি.)(স্টোকস ১১৫*, বাটলার ৩১, বেয়ারস্টো ৩০*; কামিন্স ১৭-৬-৩৫-৩, হেইজেলউড ১৩-১-৪৩-০, সিডল ১৫-৪-৫৪-২, লায়ন ২৬-৩-১০২-০)।
অস্ট্রেলিয়া : ২৫০ ও (লক্ষ্য ২৬৭) ৪৭.৩ ওভারে ১৫৪/৬ (ওয়ার্নার ৫, ব্যানক্রফট ১৬, খাওয়াজা ২, লাবুশেন ৫৯, হেড ৪২*, ওয়েড ১, পেইন ৪, কামিন্স ১*; ব্রড ৭-০-২৯-০, আর্চার ১৫-২-৩২-৩, ওকস ৩-০-১১-০, লিচ ১৬.৩-৫-৩৭-৩, স্টোকস ৩-১-১৬-০, রুট ১-০-৭-০, ডেনলি ২-২-০-০)।
ফল : ম্যাচ ড্র।
ম্যান অব দা ম্যাচ : বেন স্টোকস
সিরিজ : ৫ ম্যাচ সিরিজের দুটি শেষে অস্ট্রেলিয়া ১-০তে এগিয়ে

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন