ঢাকা, রোববার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

সৈয়দপুরে কালোবাজারি চক্রের আরো এক সদস্য আটক

নজির হোসেন নজু, সৈয়দপুর (নীলফামারী) থেকে | প্রকাশের সময় : ২১ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০২ এএম

নীলফামারীর সৈয়দপুরে ১৮ ঘন্টা ব্যবধানে আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি চক্রের আরো এক সদস্যকে আটক করা হয়েছে। তাঁর নাম মো. মঈনুল ইসলাম তুষার (৪০)। সৈয়দপুর রেলওয়ে স্টেশনের প্লাটফর্মের দক্ষিন এলাকা থেকে কালোবাজারির টিকিট বিক্রির সময় গত সোমবার বিকেলে তাকে হাতেনাতে আটক করে জিআরপি সদস্যরা।
জিআরপি সূত্রে জানা গেছে, শহরের নয়াটোলা এলাকার মৃত এ.কে.এম. মঈদুলের ছেলে মো. মঈনুল ইসলাম তুষার। ঘটনার দিন গত সোমবার বিকেলে সে সৈয়দপুর রেলওয়ে স্টেশনের প্লাটফর্মের দক্ষিণ দিক এলাকায় কালোবাজারির টিকিট বিক্রি করছিল। এ সময় গোপন খবরের ভিত্তিতে সৈয়দপুর রেলওয়ে থানার সহকারি উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. মমিনুর রহমানের নেতৃত্বে জিআরপি সদস্যরা মঈনুল ইসলাম তুষার কাছ থেকে আন্তঃনগর নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনের ১০টি আসনের ৪ টি টিকিট উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত এ সব টিকিটের যাত্রার তারিখ ছিল ১৯ আগস্ট।
সৈয়দপুর রেলওয়ে স্টেশনের একটি সূত্র জানায়, আটক মঈনুল ইসলাম তুষার ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি চক্রের একজন সক্রিয় সদস্য। এর আগে সে দিনাজপুরের পাবর্তীপুর রেলওয়ে স্টেশনে ট্রেনের কালোবাজারির টিকিট বিক্রিকালে হাতেনাতে ধরা পড়েছিল।
এর আগে গত ১৮ আগস্ট রাত ৯ টায় সৈয়দপুর রেলওয়ে স্টেশনে প্লাটফর্মে আন্তঃনগর নীলসাগর ট্রেনের ১৫টি আসনের ৯ টি শোভন শ্রেণীর টিকিটসহ শ্রমিক মো. শামীমকে হাতেনাতে আটক করে জিআরপি সদস্যরা।
এ ব্যাপারে সৈয়দপুর রেলওয়ে থানা স্পেশাল পাওয়ার এ্যাক্ট-১৯৭৪ এর ২৫(১) ধারায় মঈনুল ইসলাম তুষারের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। সৈয়দপুরে রেলওয়ে
থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. ফিরেজুল ইসলাম জানান, গতকাল মঙ্গলবার আটক মঈনুল ইসলাম তুষারকে আদালতে সোপর্দ করা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন