ঢাকা, রোববার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

নতুন শ্রমবাজার অনুসন্ধানে উদ্যোগী হতে হবে

শ্রম কল্যাণ সম্মেলনে-প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০২ এএম

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেছেন, নতুন শ্রমবাজার অনুসন্ধান ও রেমিট্যান্স প্রবাহ বৃদ্ধিতে উদ্যোগী হতে হবে। মিশনসমূহের লেবার উইংগুলোকে এ ব্যাপারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। নিয়মিতভাবে সঠিক শ্রম অভিবাসন নিশ্চিত করতে পারলে নির্দিষ্ট সময়ের আগেই বাংলাদেশ দারিদ্র্যমুক্ত হবে। প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে গতকাল সকালে প্রবাসী কল্যাণ ভবনের ২য় তলায় ব্রিফিং সেন্টারে তিন দিনব্যাপী শ্রম কল্যাণ সম্মেলন ২০১৯-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী একথা বলেন।
সরকার দক্ষ জনশক্তি তৈরিতে নানা পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, আন্তর্জাতিক শ্রমবাজারে বাংলাদেশি কর্মীদের সমস্যা ও সম্ভাবনার বিষয়ে সার্বক্ষণিক নজর রাখতে হবে। তিনি আরো বলেন, প্রবাসী কর্মীদের জন্য নিরাপদ কর্মপরিবেশ সৃষ্টি করতে পারলে রেমিট্যান্স প্রবাহ বৃদ্ধি পাবেই এবং প্রবাসী কর্মীদের কল্যাণে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে হবে।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি বলেন, প্রবাসী কর্মীরা রেমিট্যান্স, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। প্রবাসী কর্মীরা যাতে দ্রæততম সময়ে সহজ পদ্ধতিতে সেবা পায় সে ব্যবস্থা করতে হবে।
অনুষ্ঠানে বায়রার সভাপতি বেনজির আহমেদ এমপি বলেন, সউদী আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যে জনশক্তি রফতানি কমে যাচ্ছে। মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার উন্মুক্ত হবার সম্ভাবনা দেখা দিলেও পুরনো দশ সিন্ডিকেট এখনো সক্রিয়। তারা প্রবাসী মন্ত্রণালয়ে লবিং চালাচ্ছে। তিনি আমলাতন্ত্রিক জটিলতা দ্রæত নিরসনের দাবি জানিয়ে বলেন, বিদেশ গমনেচ্ছু কর্মীর পুলিশ ক্লিয়ারেন্স পেতে দুই মাস সময় লেগে যাওয়ায় সউদীর শ্রমবাজার হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, লেবার উইংগুলোকে স্বচ্ছতার সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে। প্রবাসী কর্মীদের সেবা প্রদানে আরো বেশি জনবল নিয়োগ করতে হবে।
প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব রৌনক জাহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন আয়েশা ফেরদৌস এমপি, ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক গাজী মোহাম্মদ জুলহাস, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক মো. সেলিম রেজা, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন প্রমুখ।
উল্লেখ্য, তিন দিনব্যাপী এই সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ২৬টি দেশের ২৯টি মিশনের কাউন্সিলর (শ্রম) ও প্রথম সচিবরা (শ্রম) এবং বায়রার মহাসচিব শামীম আহমেদ চৌধুরী নোমানও উপস্থিত ছিলেন। প্রবাসী সচিব রৌনক জাহান বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এক কোটি বাংলাদেশি কাজ করছে। লেবার উইংগুলোকে চ্যালেঞ্জ নিয়ে প্রবাসীদের সেবা নিশ্চিত করতে হবে। তিনি বলেন, দালালদের কারণে উচ্চ অভিবাসন ব্যয় কমাতে পারছি না। ৫-৬ লাখ টাকা ব্যয় করে এখনো কর্মীরা বিদেশে যাচ্ছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন