ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

চুরি মারধরের অভিযোগে গনস্বাস্থ্যের জাফরুল্লাহসহ ৭১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার, সাভার | প্রকাশের সময় : ২৩ আগস্ট, ২০১৯, ১১:১৬ এএম

হত্যাচেষ্টা, মারধরসহ চুরির অভিযোগে গনস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাষ্টি ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরীসহ ৭১ জনের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।
সাভার উপজেলা আওয়ামীলীগের স্থানীয় নেতা নাছির উদ্দীন বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার আশুলিয়া থানায় এ মামলা দায়ের করেন।
মামলায় গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি ডাঃ জাফরুল্লাহ চৌধুরী, পরিচালক সাইফুল ইসলাম শিশির, ড. আঃ কাদের, প্রশাসনিক কর্মকর্তা আব্দুস সালাম, গোলাম মোস্তফা বাবু, আলমগীর হোসেন, মোঃ সোহেল, আওলাদ হোসেন, রাসেল, গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মীর মুরতজা আলী বাবু, ডাঃ রেজাউল হক, ইশরাফিল, জুয়েল রানা, লুৎফর রহমান, আবুল কালাম, আব্দুস সামাদ, মুজাহিদ, সেন্টু, ইকরাম, আরিফ, অন্তুসহ অজ্ঞাতনামা ৫০ জনকে আসামি করা হয়েছে।
মামলার বিবরণে বলা হয়েছে, আশুলিয়ার বাঁশবাড়ি মৌজায় নাছির উদ্দিন ও তাঁর ভাই আবু বক্করের ১৬ শতাংশ জমি আছে। ওই জমিতে তাঁদের পিতা হাজি এফাজ উদ্দিনের নামে একটি মার্কেট রয়েছে। ওই মার্কেটে একটি হোটেলসহ ২০টি দোকান রয়েছে। জাফরুল্লাহ চৌধুরীর নির্দেশে অন্যান্য আসামিরা মঙ্গলবার গভীর রাতে হামলা চালিয়ে হোটেলসহ ১৪টি দোকান ভাঙচুর করেন। এতে প্রায় ৬০ লাখ টাকার ক্ষতি ​​হয়েছে।
এছাড়া এসি, ফ্রিজ, টেলিভিশন, সিলিং ফ্যান, সাউন্ড সিস্টেম, স্বর্ণের চেইন ও নগদ অর্থ লুট করা হয়েছে।
এজাহারে আরো বলা হয়েছে, হামলার সময় হোটেলের মালিক সাজ্জাদ হোসেনকে আটকে মারধর করা হয়েছে।
আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জাবেদ মাসুদ বলেন, নাসির উদ্দিনের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে এবং পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সত্যতা প্রমাণ পাওয়ায় মামলা গ্রহণ করা হয়েছে।
গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক সাইফুল ইসলাম বলেন, নাছির উদ্দিন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের জমি দখল করে মার্কেট নির্মাণ করেছেন।
তাছাড়া হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগের বিষয়ে বলেন, জাফরুল্লাহ চৌধুরীসহ অন্যান্যদের বিরুদ্ধে মামলায় যেসব অভিযোগ করা হয়েছে তা উদ্দেশ্যমূলক ও মিথ্যা। কারা হামলা করে মার্কেট ভেঙে দিয়েছে তা তাঁদের জানা নেই।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
M N Ahmed ২৩ আগস্ট, ২০১৯, ২:০৩ পিএম says : 0
Are you a normal Human Nasir Uddin? Or you are forced by your higher leadership to do it as part of a new hidden agenda? Well, please be a man, be a human and be a Bangladeshi, withdraw the case you filed, beacause its baseless and wrong you know about it.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন