ঢাকা, শনিবার , ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৬ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

আড়াইহাজারে অভিযোগ দেওয়ার ৩ দিন পরও ধর্ষণ মামলা নেয়নি পুলিশ

আড়াইহাজার (নারায়নগঞ্জ)উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৫ আগস্ট, ২০১৯, ৩:০৫ পিএম

নারায়নগঞ্জের আড়াইহাজারে একটি ধর্ষনের অভিযোগ দেওয়ার তিন দিন পরও মামলা নেয়নি পুলিশ। ২৩ আগস্ট উপজেলার বিশনন্দী ইউনিয়নের চৈতনকান্দা গ্রামে এই ঘটনা ঘটলেও রহস্যজনক কারণে গতকাল রোববার পর্যন্ত মামলা হয়নি। 

মেয়েটির মা জানান. জানান, গত ৪ মাস যাবৎ বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তার ১৬ বছরে মেয়েকে ধর্ষণ করে আসছে আরিফ। আরিফ উপজেলার বিশনন্দী ইউনিয়নের চৈতনকান্দা গ্রামের রুপ মিয়ার ছেলে।
ধর্ষিতা জানান, গত ৪ মাস যাবত ধর্ষক আরিফ বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তাকে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরার কথা বলে তার ইচ্ছার বিরুদ্বে বহুবার শারীরিক এবং দৈহিক সর্ম্পক গড়ে তোলে। এখন তাকে রেখে অন্য মেয়ের সাথে সর্ম্পক গড়ে তুলে লম্পট আরিফ। এ সময় তাকে বিয়ের করার কথা বলেলে সে তাকে বিষ খেয়ে মরে যাওয়ার কথা বলে। তার কথা অনুযায়ী গত মঙ্গলবার বিষপান করে আত্মহত্যার চেস্টা করে।
এ অবস্থায় ধর্ষিতা কোন উপায় খুজে না পেয়ে তার মার কাছে সমস্ত ঘটনা খুলে বলার পর তার মা ধর্ষক আরিফের বাবা-মাকে এ ঘটনা জানালে তারা ধর্ষিতার সাথে আরিফের বিয়ের আশ্বাস দেন । কিন্তু বিয়ের আশ্বাস দেওয়ার অনেক দিন অতিবাহিত হলেও এখন তারা নানান তালবাহানা করছে। গত ২৩ আগষ্ট ধর্ষিতার মা ধর্ষকের পরিবারকে আবারো বিয়ে করার কথা জানালে তারা ধর্ষিতার মা ও ধর্ষিতাকে মেরে ফলার হুমকি দেন। পরে ও দিন আড়াইহাজার থানায় এসে ধর্ষিতার মা ছেতারা বেগম একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
কিন্তু অভিযোগ দায়েরের তিনদিন গত হলে রহস্যজনক ভাবে মামলা নেয়নি পুলিশ। ধর্ষিতার মা আরো অভিযোগ করেন, স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল পুলিশের সাথে আতাত করে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে এবং আপোষ মিমাংসার জন্য খালি ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয়ার জন্য চাপ দেয় আসামী পক্ষ। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিকাল ৩টা থানায় মামলা হয়নি।
এ ব্যপারে আড়াইহাজার থানার ওসি মোঃ নজরুল ইসলাস বলেন, বিষয়টি দেখছি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন