ঢাকা, রোববার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

অ্যামাজন ইস্যুতে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় একমত জি-৭ নেতারা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ আগস্ট, ২০১৯, ২:৫৯ পিএম

দাউ দাউ করে জ্বলছে 'পৃথিবীর ফুসফুস' খ্যাত ব্রাজিলের অ্যামাজন মহাবন। ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠা এই দাবানলকে নিয়ন্ত্রণে আনতে এবং আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোকে যত দ্রুত সম্ভব সাহায্য করার ব্যাপারে এবার একমত হয়েছেন বিশ্বনেতারা। রোববার চলমান জি-৭ সম্মেলনের ফাঁকে এক সংবাদ সম্মেলনে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাখো বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ফ্রান্সের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় বায়ারিতজ শহরের এক রিসোর্টে উপস্থিত সাংবাদিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘অ্যামাজনে সৃষ্ট দাবানলে যেসব দেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে; এবার তাদের যত দ্রুত সম্ভব সাহায্য করার ব্যাপারে আমরা সকলে ঐক্যমতে পৌঁছেছি।’ যদিও এই বৈঠকের আগে বিশ্বের সর্ববৃহৎ রেইন ফরেস্টটির বিধ্বংসী দাবানল সম্পর্কে আপৎকালীন আলোচনার জন্য সকল বিশ্বনেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন ফরাসি এই প্রেসিডেন্ট।

সংবাদ সম্মেলনে ম্যাখো বলেছেন, ‘রোববার সকালে কলম্বিয়া ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানায়। এবার তাই আমাদের সকলের অবশ্যই তাদের সাহায্য করা উচিত।’ ফরাসি প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, ‘আমাদের প্রতিনিধি দল সকল অ্যামাজন দেশগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ করছে; যাতে আমরা কোনো মজবুত সিদ্ধান্তের ব্যাপার তাৎক্ষণিক চূড়ান্ত করে ফেলতে পারি; যার মাধ্যমে পর্যাপ্ত অনুদান ও কারিগরি সহায়তা পাঠানো যাবে।’

এ দিকে, অ্যামাজন সঙ্কট নিয়ে চলমান জি-৭ সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট ম্যাখো এসব পদক্ষেপে এরই মধ্যে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জায়ের বলসোরানো। যে কারণে তিনি এই বিষয়ে ফরাসি প্রেসিডেন্টের ভূমিকাকে একটি ‘ঔপনিবেশিকতামূলক মানসিকতা’ বলেও মন্তব্য করেছেন।

অপর দিকে ব্রাজিলের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ‘ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর স্পেস রিসার্স’ এক বিবৃতিতে জানায়, চলতি বছর এ পর্যন্ত অ্যামাজনের গভীর জঙ্গলে এই নিয়ে প্রায় ৭২ হাজার ৮৪৩ বার আগুন লেগেছে; যা গত বছরের তুলনায় ৮৪ শতাংশ বেশি।

বিশ্লেষকদের মতে, ‘পৃথিবীর ফুসফুস’ খ্যাত এই অ্যামাজনের ৬০ শতাংশ ব্রাজিলের অন্তর্গত হলেও আরও মোট আটটি দেশের ভেতর এই বিরাট জঙ্গলের বিভিন্ন অংশ রয়েছে। যার মধ্যে— কলম্বিয়া, বলিভিয়া, ইকুয়েডর, গুয়ানা, পেরু, ফ্রেঞ্চ গুয়ানা, সুরিনাম ও ভেনেজুয়েল‌া।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন