ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

তালিকার বাইরে থাকাদের দায়িত্ব সরকারকেই নিতে হবে : মমতা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

ভারতের আসাম রাজ্যের চ‚ড়ান্ত নাগরিক তালিকা (এনআরসি) নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ৩১ আগস্ট প্রকাশিত ওই তালিকা অনুযায়ী, ১৯ লাখেরও বেশি স্থানীয় লোকজন রাষ্ট্রহীন মানুষে পরিণত হয়েছেন। মমতার দল তৃণম‚লের প্রভাবশালী নেতা ফিরহাদ হাকিম বলেছেন, তালিকার বাইরে থাকা মানুষদের দায়িত্ব কেন্দ্রীয় সরকারকেই নিতে হবে। টুইটারে দেওয়া পোস্টে আসামের নাগরিক তালিকাকে অভিসন্ধিম‚লক ‘ব্যর্থ নাটকীয়তা’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন মমতা। তার দল তৃণম‚লের দাবি, নাগরিক তালিকার নাম করে বাংলাভাষীদের আসাম থেকে তাড়িয়ে দিতেই এ উদ্যোগ নিয়েছে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি। টুইটে মমতা বলেন, নাগরিক তালিকা নিয়ে যারা রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের চেষ্টা করেছিল, তাদের মুখোশ খুলে দিয়েছে এনআরসি। দেশকে জবাব দিতে হবে তাদের। দেশ ও সমাজের স্বার্থ পরিহার করে অসৎ উদ্দেশ্যে কাজ করলে এমনটাই ঘটে। মমতা বলেন, বাংলাভাষী ভাইবোনদের জন্য খারাপ লাগছে। জাঁতাকলে পড়ে ভোগান্তির শিকার হতে হয়েছে তাদের। তৃণম‚ল নেতা ফিরহাদ হাকিমের অভিযোগ, আসাম থেকে বাঙালিদের তাড়াতে এনআরসি-কে হাতিয়ার করা হয়েছে। তার প্রশ্ন, ‘সরকার কী করে এতটা হীনমন্য হতে পারে যে, একটা সকালে তারা নাগরিকত্ব তালিকা প্রকাশ করলো এবং আসামের কয়েক দশকের বাসিন্দারা ঘরছাড়া হলেন?’ এদিকে আসামের পর এবার পশ্চিমবঙ্গেও ‘বাংলাদেশি মুসলমানদের’ তাড়াতে নাগরিক তালিকা তৈরির হুঁশিয়ারি দিয়েছে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি। ৩১ আগস্ট প্রকাশিত আসামের নাগরিক তালিকা অনুযায়ী, ১৯ লাখ ৬ হাজার ৬৫৭ জন দেশহীন মানুষে পরিণত হওয়ার দিনেই এমন হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তার ভাষায়, ভারতের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার স্বার্থে ‘বাংলাদেশি মুসলমানদের’ তাড়াতে পশ্চিমবঙ্গেও নাগরিক করা হবে। তবে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের মাধ্যমে হিন্দু শরণার্থীদের স্বার্থ রক্ষায় সচেষ্ট থাকবে বিজেপি। দিলীপের দাবি, ভোটব্যাংক ধরে রাখতে সীমান্তবর্তী এলাকা দিয়ে বাংলাদেশি মুসলমানদের অনুপ্রবেশে সহায়তা করছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল তৃণম‚ল কংগ্রেস। এনডিটিভি, টুইটার।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন