ঢাকা, শুক্রবার , ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

ইসলামী বিশ্ব

৫ হাজার ৪শ’ মার্কিন সেনা সরিয়ে নেবে যুক্তরাষ্ট্র

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

আফগানিস্তানের বিদ্রোহী গোষ্ঠী তালেবান-এর সঙ্গে সম্ভাব্য চুক্তির ম‚ল নীতি হিসেবে ২০ সপ্তাহের মধ্যে পাঁচ হাজার চারশো সেনা প্রত্যাহার করে নেবে যুক্তরাষ্ট্র। আফগানিস্তানে এক টিভি সাক্ষাৎকারে সম্ভাব্য ওই চুক্তির বিস্তারিত জানান ওয়াশিংটনের নিযুক্ত আফগান বিষয়ক দ‚ত জালমাই খলিলজাদ। তবে এই চুক্তি চ‚ড়ান্ত হওয়ার আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অনুমোদন পেতে হবে বলে জানান তিনি। তালেবান প্রতিনিধিদের সঙ্গে নবম ধাপের আলোচনার ফলাফল আফগান সরকারকে জানানোর পরে এই সাক্ষাৎকার দেন তিনি। সোমবার সাক্ষাৎকার স¤প্রচারের পর কাবুলে বিদেশিদের আবাসিক এলাকায় বড় ধরণের হামলার ঘটনা ঘটে। এতে পাঁচ জন নিহত ও অনেকে আহত হয়েছে। হামলার দায় স্বীকার করেছে তালেবান। বর্তমানে আফগানিস্তানে অবস্থান করা মার্কিন সেনার সংখ্যা প্রায় ১৪ হাজার। টুইন টাওয়ার হামলার পর আফগানিস্তানে মার্কিন আগ্রাসনের অংশ হিসেবে সামরিক জোট ন্যাটো হামলা চালিয়ে তালেবান সরকারকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করে। তখন থেকেই যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্রদের বিরুদ্ধে সশস্ত্র লড়াই করে যাচ্ছে গোষ্ঠীটি। দীর্ঘ ১৮ বছরের যুদ্ধ অবসানের লক্ষ্যে গত বছরের জুন থেকে কাতারের রাজধানী দোহায় মার্কিন কর্মকর্তাদের সঙ্গে ধারাবাহিক আলোচনা শুরু করেন তালেবান কর্মকর্তারা। গত সপ্তাহে সেখানে দুই পক্ষের নবম ধাপের আলোচনা শেষ হয় । বৈঠকের এক পর্যায়ে দোহায় অবস্থিত তালেবানের রাজনৈতিক কার্যালয়ের মুখপাত্র সুহাইল শাহিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চুক্তির দ্বারপ্রান্তে পৌঁছানোর ইঙ্গিত দেন। ওই সময়ে মার্কিন কর্মকর্তারা এই বিষয়ে কোনও কথা না বললেও বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায় চুক্তির বিষয়ে আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানিকে জানাতে কাবুল সফরে যেতে পারেন যুক্তরাষ্ট্রের মুখ্য আলোচক খলিলজাদ। কাবুল সফরের সময় আফগান স¤প্রচারমাধ্যম টোলো নিউজকে তালেবান বিদ্রোহীদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্ভাব্য চুক্তির বিস্তারিত জানান খলিলজাদ। সোমবার ওই সাক্ষাৎকার স¤প্রচারিত হয়। তিনি জানান, যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রত্যাহারের বিনিময়ে তালেবান কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করবে যে আফগানিস্তান আবারও এমন কোনও সশস্ত্র গোষ্ঠীর ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহৃত হবে না যারা যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্রদের ওপর হামলা চালাতে চায়। বিবিসি, এএফপি।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন