ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ সফর ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

আত্মহত্যা বাড়াচ্ছে কিস্তি

অভিমানে কলেজছাত্রীসহ সারা দেশে আরো ৫ জন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম

‘আমাকে খারাপ মেয়ে বলো না। আমি খারাপ না। আমাকে গালি দিওনা, আমি মরে যাব। প্রেমিক রোকনকে অনুনয় করে এভাবে বার্তা পাঠায় কলেজ পড়ুয়া সোনালী।’ তারপরও থামেনি প্রেমিক রোকন। অন্য ছেলেদের জড়িয়ে মন্তব্য করে যাচ্ছিল। এক পর্যায়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক-মেসেঞ্জারে ব্লক করে দেয় সোনালীকে। তারপরই গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে সোনালী। খবর পেয়ে গতকাল দুপুরে লাশ উদ্ধার করে ময়ানতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নের মালিগাছা সাজিপাড়া গ্রামে। এছাড়া সারা দেশে আরো ৫ জনের আত্মহত্যার খবর পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে রাজশাহীতে বাগমারা ও নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে কিস্তি টাকা দিতে ব্যর্থ হয়ে দুই ব্যক্তি। এছাড়া মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় ও খুলনায় দুই স্কুলছাত্র, নীলফামারীতে ডিমলায় স্ত্রীকে তালাক দিয়ে স্বামী আত্মহত্যা করেছে।

নাটোর : নাটোরে আত্মহত্যা করেছে জাকিয়া সুলতানা সোনালী নামে লোকমানপুর কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী। এ ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে তার প্রেমিক একই কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র রোকন।
নিহতের পরিবার ও পুলিশ স‚ত্রে জানা গেছে, সোনালীকে সন্দেহ করতো রোকন। এই নিয়ে মাঝে মধ্যে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য ও ঝগড়া হতো। গত মঙ্গলবার রাতে এসব বিষয়ে রোকনের সঙ্গে ফেসবুক মেসেঞ্জারে বাকবিতন্ডা হয় সোনালীর। একপর্যায়ে সোনালীকে চরিত্রহীন বলে অপবাদ দেয় রোকন। জবাবে আত্মহত্যার হুমকি দেয় সোনালী। এ নিয়ে চ্যাট চলাকালীন মেজেঞ্জার ও ফেসবুক আইডিতে সোনালীকে বøক করে দেয় রোকন। সকালের সোনালীর লাশ উদ্ধারকালে মোবাইলফোন জব্দ করে পুলিশ। সেখানেই দু’জনের চ্যাট দেখতে পাওয়া গেছে।

ধারণা করা হচ্ছে, ফেসবুক-মেসেঞ্জারে বøক করার ক্ষোভেই গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ঘরের তীরের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে সোনালী। লাশ উদ্ধারের পর একই উপজেলার মারিয়া গ্রামে প্রেমিক রোকনের বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ। কিন্তু রোকনকে সেখানে পাওয়া যায়নি। রোকন ওই গ্রামের মোহাম্মদ শিমুলের ছেলে। নিহত সোনালী বাগাতিপাড়া উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নের মালিগাছা সাজিপাড়া গ্রামের মোহাম্মদ সুমনের মেয়ে।
এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে জানিয়ে নাটোর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল হাসনাত বলেন, বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে প্রেমিক প্রেমিকার মনোমালিন্যের কারণে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। ইতিমধ্যে মোবাইলে ফোনের কিছু আলামত জব্দ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

বাগমারা (রাজশাহী) উপজেলা সংবাদদাতা : ঋণের টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হয়ে রাজশাহীর বাগমারায় গোলাম রহমান (৪০) নামে একব্যক্তি বিষপানে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। এলাকাবাসী ও তার পরিবার সূত্রে জানানো হয়েছে যে, বিভিন্ন সংস্থা ও স্থানীয় এনজিও থেকে অনেক টাকা ঋণ নেয় গোলাম রহমান। ঋণের টাকার জন্য এনজিও ও স্থানীয় সমিতির লোকজনেরা বিভিন্ন রকম চাপ ও মামলা মোকদ্দমার হুমকি দিলে সে বিষপানে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়। বাগমারা থানার ওসি আতাউর রহমান বলেন, বুধবার তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) : মৃত্যুর আগে চাচাতো ভাইকে এসএমএস করে জানায় সে আত্মহত্যা করবে। পরিবারের লোকজন যেন তার লাশ নিয়ে যান। এর পরেই সে গাছের সঙ্গে কাপড় পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে আব্দুর রহিম (১৮) নামে এক স্কুলছাত্র। রাজনগর উপজেলার ইটা চা-বাগান থেকে তার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হওয়া নিহতের মোবাইল ফোনে এক মেয়ের কিছু এসএমএস রয়েছে বলে জানা গেছে। নিহত আব্দুর রহিম জেলার রাজনগর উপজেলার মুন্সিবাজার ইউনিয়নের ইটা চা-বাগানের বাসিন্দা আব্দুল আজিজের ছেলে ও স্থানীয় করিমপুর খলাগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র।
খুলনা : খুলনার ফুলতলা উপজেলায় আরেফিন মোহাম্মদ সিয়াম (১৬) নামে এক স্কুলছাত্র গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। গত মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার তাজপুর গ্রামে নিজ ঘরের ভেতরে ফ্যানের সঙ্গে রশি বেঁধে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। নিহত সিয়াম উপজেলার ফুলতলা বাজার এলাকার ইন্টারনেট অপারেটর ব্যবসায়ী মো. আতাহারুল ইসলাম রনির ছেলে ও ফুলতলা রি-ইউনিয়ন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ১০ম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

নীলফামারী : নীলফামারীর ডিমলা ও কিশোরগঞ্জ উপজেলা গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন দুই ব্যক্তি। এর মধ্যে একজন জুয়ায় হেরে এবং অন্যজন ঋণের দায়ে। গতকাল সকালে ডিমলা উপজেলার প‚র্ব ছাতনাই ইউনিয়নের প‚র্ব ছাতনাই গ্রাম থেকে শামীম (২২) ও কিশোরগঞ্জ উপজেলার বাহাগিলি ইউনিয়নের দক্ষিণ বাহাগিলি কাচারিপাড়া গ্রাম থেকে মানিক হাজারী (৫০) লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। গাছের ডালের সঙ্গে দড়ি বেঁধে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন তারা।
অপরদিকে, কিশোরগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ বাহাগিলি কাচারিপাড়া গ্রামের মৃত গঙ্গা হাজারীর ছেলে মানিক হাজারী শ্রমিক ছিলেন। ঋণের বোঝা সইতে না পেরে বাড়ির পেছনে একটি গাছের সঙ্গে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বাবা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন