ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

দুর্গন্ধে নাকাল ছাগলনাইয়াবাসী

ছাগলনাইয়া (ফেনী) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:২১ এএম

ডাষ্টবিন না থাকায় দুর্গন্ধে নাকাল ছাগলনাইয়া পৌরসভার সুবেদারী রাস্তার মাথার ও থানাপাড়ার বাসিন্দারা। জানা যায়, পৌরসভার মটুয়া ও পশ্চিম ছাগলনাইয়া গ্রামের কেন্দ্রস্থল ঢাকা-চট্টগ্রাম পুরাতন মহাসড়কের সুবেদারী রাস্তার মাথায় ডাষ্টবিন না থাকায় দুর্গন্ধে পরিবেশ ভারী ও চরম দূর্ভোগ সৃষ্টি হচ্ছে। পূর্বের ডাষ্টবিন ভেঙ্গে যাওয়ায় এলাকাবাসী রাস্তার উপর ও পাশে ময়লা আবর্জনা ফেলছে আর পৌর কর্তৃপক্ষ যথাসময়ে আবর্জনা অপসারণ না করায় আবর্জনার দূর্গন্ধে রাস্তা দিয়ে চলাচল দুরহ হয়ে পড়েছে।
স্থানীয় ব্যবসায়ী, মসজিদের মুসল্লি ও স্কুল কলেজ, মাদরাসা ছাত্র ছাত্রীদের সমস্যা যেন দেখার কেহ নেই। দীর্ঘদিন থেকে জমে থাকা ময়লার স্তূপের পাশ দিয়ে দূর্গন্ধে নাকে হাত দিয়ে চলাচল করতে হয় পথচারীদের। সুবেদারী রাস্তার মাথায় রয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ৭০-৮০টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, কমিউনিটি সেন্টার, মসজিদ। আশপাশে বসবাস করেন হাজার হাজার পরিবার।
অপরদিকে, থানাপাড়া সড়কের দু›পাশেই বসবাস শত শত পরিবারের। অনোকগুলো বহুতল ভবন এ সড়কের দু›পাশে। নিজেদের গৃহস্থালিরর ময়লাআবর্জনা ফেলার নির্দিষ্ট কোনো ডাস্টবিন নেই তাই সড়কের উপরেই রাখছেন তারা ময়লাআর্জনা। এটি ছাগলনাইয়া পৌরসভার থানাপাড়া সড়ক ( শহীদ আবদুর রাজ্জাক সড়ক) নামে পরিচিত। দীর্ঘ এক কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে এ সড়কে রয়েছে শুধু একটি ডাস্টবিন। সেটিও অনেকটা অকেজো। উপায়হীন নাগরিকরা এ সড়কটিকেই ডাস্টবিনে রুপান্তরিত করেছে। ছাগলনাইয়া থানার কোল ঘেষেই এ সড়কের অবস্থান তাই থানাপাড়া সড়ক নামে পরিচিত হয় সড়কটি।
এ উপজেলার বিভিন্ন সরকারী-বেসকারী দপ্তরের চাকুরীজীবী, ব্যবসায়ী, শিক্ষক সহ নানান পেশার লোকজন পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করেন এ সড়কের পাশে অবস্থিত কোনা না কোন দালানে। দীর্ঘ দিন ডাস্টবিন না থাকায় যত্রতত্র রাস্তার পাশেই রাখতে হচ্ছে আবর্জনা। খোলা আকাশের নিচে রাস্তার ধারে পড়ে থাকা আবর্জনার দুর্গন্ধে আরেক দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে নাগরিক ও পথচারী সহ সর্বস্তরের লোকজন।

এ বিষয়ে পৌর মেয়র এম মোস্তফা জানান, এ সড়কের পাশে কয়েকটি স্থানে আমি ডাস্টবিন স্থাপনে চেষ্টা করেছি কিন্তু স্থানীয়দের কয়েকজন বাধা দেয়ার ফলে আমি ডাস্টবিন নির্মাণ করতে পারিনি। মেয়র বলেন, থানা পাড়া সড়কের বাসিন্দারা যদি আমাকে ডাস্টবিন নির্মাণের জন্য স্থান নির্ধারন করে দেয় তবে আমি একদিনের মধ্যেই ঐ সড়কের পাশে ডাস্টবিন নির্মাণ করে দিবো। বেশিভাগ জায়গায় পৌর ডাষ্টবিন রয়েছে। যেখানে ডাস্টবিন নেই সেখানে শীগ্রই ডাষ্টবিন স্থাপন করা হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন