ঢাকা, রোববার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩১ ভাদ্র ১৪২৬, ১৫ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

কক্সবাজারে এনজিও শেডের ২ হাজার দা-ছুরি জব্দের পর ফেরত

বিশেষ সংবাদদাতা কক্সবাজার | প্রকাশের সময় : ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৯:৪৫ এএম

কক্সবাজারের উখিয়ায় শেড-এর কার্যালয় থেকে ২ সহস্রাধিক দা-হাতুড়িসহ অন্যান্য সরঞ্জামাদি জব্দ করার পর কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ফেরত দেওয়া হয়েছে এনজিওটিকে।


রোহিঙ্গা সঙ্কটের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত স্থানীয়দের মধ্যে বিতরণের বৈধতা থাকায় সেগুলো ফেরত দেওয়া হয় বলে বৃহস্পতিবার রাতে জানিয়েছেন কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন।

কক্সবাজারে বিভিন্ন এনজিও বিরুদ্ধে অভিযোগের মধ্যে দুপুরে শেডের কার্যালয় থেকে এই কৃষি সরঞ্জামগুলো জব্দ করে উপজেলা প্রশাসন।

জব্দ করার পর উখিয়া উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফখরুল ইসলাম বলেছিলেন, “রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে এগুলো বিতরণের অনুমোদন রয়েছে কিনা তার অনুকূলে নথিপত্র দেখাতে সংস্থাটির সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দেখাতে ব্যর্থ হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

তিনি জানান, জব্দ করা সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে ১৭০০ রাম দা, ৪০০ ছোরা, ১১০০ হাতুড়ি, ১২০০ হাতকরাত, ১২০০ তার কাটার প্লাস, ২২০০ বেলচা, রশি, ইত্যাদি।

রাতে জেলা প্রশাসক কামাল বলেন, “প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া শেড সংস্থাটির কার্যালয়ে বেশ কিছু অবৈধ সরঞ্জামাদি মজুদের খবরে প্রশাসন অভিযান চালিয়েছিল। এসব সরঞ্জামাদি উপজেলা প্রশাসন কার্যালয়ে নিয়ে আসার পর সংস্থাটির সংশ্লিষ্টরা বিতরণের বৈধতার অনুমতিপত্র উপস্থাপন করেন।

“আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম ) অর্থায়নে শেড জব্দ করা সরঞ্জমাদি মজুদ করেছিল। মূলত এগুলো রোহিঙ্গা সংকটের কারণে উখিয়ার রাজাপালং ও জালিয়াপালং ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্ত স্থানীয় লোকজনের মাঝে বিতরণের কথা ছিল।”

বৈধতার কাগজপত্র থাকায় জব্দ করা সরঞ্জমাদি সংস্থাটিকে ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দেওয়ার কথা জানিয়ে জেলা প্রশাসক বলেন, “মাঠ পর্যায়ে প্রকল্প বাস্তবায়নের আগে উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত না করায় এ ভুল বোঝাবুঝির ঘটনা ঘটেছে।”

এ বিষয়ে শেড-কে ভবিষ্যত কার্যক্রম চালানোর ব্যাপারে সতর্ক করা হয়েছে বলে জানান জেলা প্রশাসক।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন