ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ সফর ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

সিঙ্গাপুরে সোমবার মাঠে নামছে বাংলাদেশ নারী হকি দল

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৯:৩৫ পিএম

এয়ার এশিয়া ওমেন্স জুনিয়র এএইচএফ কাপ টুর্নামেন্টে স্বাগতিক সিঙ্গাপুরের বিপক্ষে সোমবার প্রথম পরীক্ষায় নামছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২১ নারী হকি দল। সিঙ্গাপুরের সেংক্যাং হকি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টায় শুরু হবে ম্যাচটি। দীর্ঘ ১৫ বছরের স্বপ্ন সফল করতে তিলে তিলে গড়ে ওঠা বাংলাদেশের নারী দলটি মুখিয়ে আছে ম্যাচ খেলতে। জুনিয়র এএইচএফ কাপে মাঠে নামার আগে বেশ ফুরফুরে মেজাজেই রয়েছে রিতু খানম বাহিনী।

ম্যাচের আগে রোববার সিঙ্গাপুর থেকে বাংলাদেশ দলে সহকারী কোচ রাজীব মুঠোফোনে বলেন, ‘মেয়েদের সবাই মুখিয়ে আছে সিঙ্গাপুরকে মোকাবেলার জন্য। কারো মাঝে কোন টেনশানই নেই। সবাই ফুরফুরে মেজাজে আছে। এখানে খাওয়া দাওয়ার কোন অসুবিধা হচ্ছে না। দলের সব খেলোয়াড় সুস্থ আছে। এখানে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার চেষ্টা করে আমরা সফল হইনি। প্রস্তুতি ম্যাচটি খেলতে পারলে ভালো হতো। তবে যে মাঠে খেলা হবে সেখানে অনুশীলন করেছি আমরা। এই মাঠ অনেক ফাস্ট। নিজেদের গুছিয়ে খেলতে পারলে আমার দল ভালো করবে। সবাইকে নিজেদের সেরা খেলাটাই খেলার জন্য বলা হয়েছে।’

অধিনায়ক রিতু খানম বলেন, ‘আমাদের মোটেই নার্ভাস নই। দলের সবাই আনন্দ ও ফুর্তিতে আছে। প্রতিপক্ষ সিঙ্গাপুর তাতে কি? ভালো করতে হলে সব দলের বিপক্ষেই খেলতে হবে এবং ভালো খেলতে হবে। মাঠে নামার অপেক্ষায় রয়েছি। আমাদের একটাই ব্রত, হারার আগে হারবো না। বিদেশের মাটিতে প্রথম খেলা। একটু টেনশান তো সবার মাঝে কাজ করবেই। তবে মাঠে নামার পর সব ঠিক হয়ে যাবে। যেমনটি হয়েছিল মওলানা ভাসানীতে। দেশবাসির কাছে দোয়া চাই। প্রথম ম্যাচের উপর অনেক কিছু নির্ভর করে।’

স্বপ্ন ১৫ বছর আগে শুরু হলেও গত তিনটি বছর দলটিকে নিয়ে একটু বেশিই গবেষনা করেছেন দলের প্রধান কোচ তারিকুজ্জামান নান্নু। দফায় দফায় অনুশীলনে মেয়েদের টেকনিক্যাল ও টেকটিক্যালি উন্নততর করেছেন দলের সহকারী কোচ হেদায়েতুল ইসলাম রাজীব ও শহীদুল্লাহ টিটু। সর্বক্ষণ পাশে থেকে ছায়ার মতো আগলে রেখেছেন সমন্বয়ক পারভীন পুতুল। বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের (বাহফে) অনেকেই স্বপ্ন দেখেছিলেন নারী জাতীয় দল গড়ার। সেটি যে বিদেশের মাটিতে এএইচএফ কাপ দিয়ে হবে সেটি অনুমান করতে পারেননি কেউ। তবে বাহফের বর্তমান কমিটির সহযোগিতায় কাজটি অনেক সহজ হয়েছে। গড়ে উঠেছে লাল-সবুজের নারী জাতীয় দল। যদিও এই দলটি বয়সভিত্তিক মোড়কে সিঙ্গাপুরে এয়ার এশিয়া ওমেন্স জুনিয়র এএইচএফ কাপ (অনূর্ধ্ব-২১) টুর্নামেন্টে খেলছে। তবে ভবিষ্যতে এটিই হবে বাংলাদেশ জাতীয় দল। টুর্নামেন্টে খেলতে যাওয়ার আগে এই দলের উপদেষ্টা কোচের দায়িত্ব নিয়ে ১৫ দিন ঢাকায় অবস্থান করেছিলেন ভারতের প্রখ্যাত হকি কোচ একে বানসাল। তার অনুপ্রেরণায় যেন একটু বেশী সাহসী হয়ে উঠেছে লাল-সবুজের মেয়েরা। বাহফের চাহিদার গুরুত্ব দিয়ে বানসাল দিল্লী থেকে সাই একাডেমির মহিলা দলকে বাংলাদেশে এনে ছয়টি অনুশীলন ম্যাচ খেলিয়েছেন। ভারতের মেয়েদের বিপক্ষে খেলার সাহসকে পুজি করেই সিঙ্গাপুরকে মোকাবেলার অপেক্ষায় এখন বাংলাদেশের মেয়েরা।

এদিকে বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট সুত্রে জানায় যায়, বাহফে’র সাধারণ সম্পাদক একেএম মমিনুল হক সাঈদ তাদের কোন অভাব রাখছেন না। দেশীয় পরিবেশেই সিঙ্গাপুরে অবস্থান করছে বাংলাদেশ দল।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন