ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ সফর ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

বৃষ্টির জন্য প্রার্থনা

ইমরান মাহমুদ, চট্টগ্রাম থেকে | প্রকাশের সময় : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম

লিটন দাসকে ফিরিয়ে স্পিনার জহির খানের উল্লাস। আফগানিস্তানের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে লিটনের মতোই ব্যর্থ বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপ-ইনকিলাব


ক্রিকেটে বরাবরই বৃষ্টি এক অনাকাক্সিক্ষত শব্দ। অনাহুত এই অতিথির আগমনে অনেক রোমাঞ্চে যেমন পানি পড়েছে, ক্ষতির সম্মুখীনও হতে হয়েছে অনেক বড় বড় দলকে। ২০১৫ বিশ^কাপে গ্রæপ পর্বের ম্যাচে বৃষ্টির কারণে শক্তিশালী অস্টেলিয়ার ম্যাচটি বাতিল হওয়ায় সেবার কোয়ার্টার ফাইনালের পথ সহজ হয়েছিল বাংলাদেশের। এবার প্রেক্ষাপট ভিন্ন। ১৯ বছরের অভিজ্ঞ বাংলাদেশের সামনে একেবারেই নবীন আফগানিস্তান। তবে সাদা পোষাকে এর আগে মাত্র দুই ম্য খেলা সেই প্রতিপক্ষর বিপক্ষে মান বাঁচাতে বষ্টির জন্যই প্রর্থনা সাগরিকায়।

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে গতকাল চতুর্থ দিনের খেলা বৃষ্টির জন্য শুরু হতে দেরি হয়েছে। শেষ সেশনে প্রায় ১২ ওভারের মতো খেলা বাকি থাকতে আবার হানা দেয় বৃষ্টি। বাধ্য হয়ে আম্পায়াররা দিনের খেলার ইতি টেনে দেন। তাতে বাংলাদেশেরই লাভ হলো। সাকিবরা এদিন অন্তত হারের চোখ রাঙানি থেকে বেঁচে গেলেন। কিন্তু আজ?

তৃতীয় দিন শেষেই বোঝা গিয়েছিল, চট্টগ্রাম টেস্টে হার এড়াতে বৃষ্টির সাহায্য প্রয়োজন। আফগানিস্তান গতকাল দ্বিতীয় ইনিংসে ২৬০ রানে অলআউট হওয়ার পর জয়ের জন্য বাংলাদেশের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ৩৯৮ রান। হাতে প্রায় দুই দিন সময়। এ অবস্থায় জহুর আহমেদ চৌধুরীর স্পিনবান্ধব উইকেটে জয় নয় বাংলাদেশ কতক্ষণ টিকতে পারবে সেটাই ছিল প্রশ্ন। আর এ প্রশ্ন অবশ্যই দলের প্রথম ইনিংস বিচারে। এখন দেখা যাচ্ছে বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসের (২০৫) সংগ্রহ পর্যন্ত যেতে পারবে কি না, সেটাও বড় প্রশ্ন!

৬ উইকেটে ১৩৬ রান নিয়ে চতুর্থ দিনের খেলা শেষ করেছে বাংলাদেশ। বলা ভালো, বৃষ্টি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ায় এদিন আরও উইকেট হারানো থেকে বেঁচে গেছে স্বাগতিকরা। হাতে মাত্র ৪ উইকেট রেখে এখনো ২৬২ রানের ‘অসম্ভব’ দূরত্বে বাংলাদেশ। অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের (৩৯*) সঙ্গে উইকেটে রয়েছেন সৌম্য সরকার (০)।

দ্বিতীয় ইনিংসে সবার আগে ফিরেছেন লিটন দাস। তিনি আউট হওয়ার মাত্র পাঁচ ওভার পরই ঘূর্ণি উইকেটে মাত্র ১৭ বল খেলা ব্যাটসম্যান কেন ওভাবে তুলে মারবেন? প্রশ্নটা মোসাদ্দেক হোসেনকে করাই যায়। জহির খানকে অযথাই ইনসাইড আউট শটে তুলে মারতে গিয়ে ‘আত্মহত্যা’ই করেন তিনে ব্যাটিং করতে নামা মোসাদ্দেক (১২)।

মোসাদ্দেকের পর মুশফিকুর রহিম ও মুমিনুল হকও (৩) দ্রæত ফিরে যাওয়ায় ঘনীভূত হয় বাংলাদেশের বিপদ। চা বিরতির পর ফিরেছেন ভরসা হয়ে থাকা সাদমান ইসলাম ও মাহমুদউল্লাহ। ১১৪ বলে ৪১ রান করে মোহাম্মদ নবীর শিকার হন সাদমান। আর রশিদ খানের গুগলি ধরতে না পেরে শর্ট লেগে ক্যাচ দেন মাহমুদউল্লাহ। তার আগে ২৫ বল খেলে রশিদ খানের বলে এলবিডবøুর শিকার হন মুশফিক (২৩)। এক ওভার পর মুমিনুলকেও এলবিডবøুর ফাঁদে ফেলেন রশিদ। এ পর্যন্ত ৩ উইকেট নিয়েছেন আফগান অধিনায়ক।

ব্যাটিংয়ে নেমে বিনা উইকেটে ৩০ রান তুলে লাঞ্চ বিরতিতে গিয়েছিলেন সাদমান ইসলাম ও লিটন দাস। মাঝে আবারও বৃষ্টি নামায় দ্বিতীয় সেশনের খেলা শুরু হতে দেরি হয়। তবে খেলা শুরুর পর মাত্র তিন বল টিকেছেন লিটন। চায়নাম্যান স্পিনার জহির খানের বলে এলবিডবøুর ফাঁদে পড়েন তিনি। ৩০ বলে ৯ রান করে হতাশই করেছেন লিটন।

এর আগে ৮ উইকেটে ২৩৭ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেছিল আফগানিস্তান। কাল দিনের খেলার ষষ্ঠ ওভারেই রান আউট হন ইয়ামিন আহমদজাই। মাঝে এক ওভার পর শেষ উইকেট জহির খানকে ফেরান মেহেদী হাসান মিরাজ। দ্বিতীয় ইনিংসে ২৬০ রান অলআউট হয় আফগানিস্তান। ৫৮ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন সাকিব। প্রথম ইনিংসে ৩৪২ রান তুলেছিল আফগানিস্তান। আর বাংলাদেশ নিজেদের প্রথম ইনিংসে ২০৫ রানে অলআউট হয়।


স্কোর কার্ড
বাংলাদেশ-আফগানিস্তান, একমাত্র টেস্ট
জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম
টস : আফগানিস্তান (ব্যাটিং)
আফগানিস্তান ১ম ইনিংস : ১১৭ ওভারে ৩৪২।
বাংলাদেশ ১ম ইনিংস : ৭০.৫ ওভারে ২০৫।
আফগানিস্তান ২য় ইনিংস (আগের দিন ৮৩.৪ ওভারে ২৩৭/৮; ইব্রাহিম ৮৭, আসগর ৫০, আফসার ৩৪*, রশিদ ২২, ইয়ামিন ০*; সাকিব ৩/৫৩, মিরাজ ১/৩৫, তাইজুল ২/৬৮, নাঈম ২/৬১)

রান বল ৪ ৬
আফসার অপরাজিত ৪৮ ১০ ৩ ১
ইয়ামিন রানআউট ৯ ১১ ০ ১
জহির ক মুমিনুল ব মিরাজ ০ ২ ০ ০
অতিরিক্ত (বা ৪) ৪
মোট (অলআউট, ৯০.১ ওভারে) ২৬০

উইকেট পতন : ১-৪ (ইহসানউল্লাহ), ২-৪ (রহমত), ৩-২৮ (হাশমতউল্লাহ), ৪-১৩৬ (আসগর), ৫-১৭১ (ইব্রাহিম), ৬-১৮০ (নবী), ৭-২১০ (রশিদ), ৮-২৩৫ (কাইস), ৯-২৬০ (ইয়ামিন), ১০-২৬০ (জহির)।
বোলিং : সাকিব ১৯-৩-৫৮-৩, মিরাজ ১২.১-৩-৩৫-২, তাইজুল ২৮-৬-৮৬-২, নাঈম ১৭-২-৬১-২, মুমিনুল ১০-৬-১৩-০, মোসাদ্দেক ৪-১-৩-০।

বাংলাদেশ ২য় ইনিংস রান বল ৪ ৬
লিটন এলবি ব জহির ৯ ৩০ ০ ০
সাদমান এলবি ব নবী ৪১ ১১৪ ৪ ০
মোসাদ্দেক ক আসগর ব জহির ১২ ১৭ ০ ০
মুশফিক এলবি ব রশিদ ২৩ ২৫ ৪ ০
মুমিনুল এলবি ব রশিদ ৩ ৮ ০ ০
সাকিব ব্যাটিং ৩৯ ৪৬ ৪ ০
মাহমুদউল্লাহ ক ইব্রাহিম ব রশিদ ৭ ২১ ০ ০
সৌম্য বাটিং ০ ৫ ০ ০
অতিরিক্ত (লেবা ২) ২
মোট (৬ উইকেট, ৪৪.২ ওভারে) ১৩৬

উইকেট পতন : ১-৩০ (লিটন), ২-৫২ (মোসাদ্দেক), ৩-৭৮ (মুশফিক), ৪-৮২ (মুমিনুল), ৫-১০৬ (সাদমান), ৬-১২৫ (মাহমুদউল্লাহ)।
বোলিং : ইয়ামিন ৪-১-১৪-০, নবী ১৭.২-৪-৩৮-১, রশিদ ১৩-০-৪৬-৩, জহির ১০-০-৩৬-২।
*চতুর্থ দিন শেষে

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন