ঢাকা, রোববার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩১ ভাদ্র ১৪২৬, ১৫ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

ইসলামী প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন : আমাদের একটা জমি আছে। আমরা এখানে ঘর করতে চাই ভাড়া দেয়ার জন্য। কিন্তু ঘর করার মতো পর্যাপ্ত টাকা আমাদের হাতে নেই। আমরা চাচ্ছি ইসলামী ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে ঘর করতে। তাদের সাথে কথা বলে জানতে পারি, আমাদের নিজেদের ৫০% টাকা থাকলে তারা ঋণ দেবে এবং তা ১০ বছরে পরিশোধ করতে হবে। প্রতি মাসে কত দিতে হবে, প্রশ্নের জবাবে তারা বলে এটা ঘরের ভাড়ার ওপর নির্ভর করবে?

মো. মুজাহিদুল ইসলাম
ফেসবুক কমেন্ট থেকে

প্রকাশের সময় : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৭:৪২ পিএম

উত্তর : এখানে যে বিবরণ আছে সবই যদি শরীয়া অনুযায়ী বাস্তবায়িত হয় তাহলে নির্দ্বিধায় ঘর করতে পারেন। ৫০% ইকুইটি মানে আপনার প্রস্তুতি। জমিও আপনার। বাকি ৫০% টাকা ভাড়া থেকে ব্যাংক ১০ বছরে নেবে। এখানে ব্যাংক মালিকানায় অংশী হচ্ছে। তারা বিনিয়োগ করে লাভ নেবে। ১০ বছরে কত করে নিলে তা শেষ হবে তা তো ভাড়া কত আসে তা দেখেই তারা বুঝতে পারবে। বিনিয়োগের লাভের পরিমাণ সম্পর্কে ধারণা ও অংক ঠিকঠাক হলেই ব্যাংক এগিয়ে আসবে। তবে, লেনদেনের কোনো পর্যায়ে যেন সুদ না থাকে তা উভয় পক্ষের দেখার বিষয়। অগ্রিম ক্রয়-বিক্রয় বা লাভজনক বিনিয়োগ তো লেনদেনে থাকবেই। কেননা এটি ব্যবসা। যা আল্লাহ হালাল করেছেন। 

সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতাওয়া বিশ্বকোষ।
উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন