ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

ইতিহাস গড়া জয়ে উজ্জীবিত নারী হকি দল

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৮:২৩ পিএম

এয়ার এশিয়া ওমেন্স জুনিয়র এএইচএফ কাপ টুর্নামেন্টে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ইতিহাস গড়া জয়ে এখন উজ্জীবিত বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২১ নারী হকি দল। প্রথম আন্তর্জাতিক কোন টুর্নামেন্টের অংশ নিয়েই দুর্দান্ত নৈপুণ্য দেখিয়ে লাল-সবুজরা হারিয়েছে শ্রীলঙ্কাকে। টুর্নামেন্টে এবার তৃতীয় ম্যাচে তাদের সামনে হংকং। সিঙ্গাপুরের সেংক্যাং স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় বিকেলে সাড়ে চারটায় শুরু হবে ম্যাচটি।

বাংলাদেশ-হংকং ম্যাচকে সামনে রেখে লাল-সবুজের মেয়েরা বর্তমানে বেশ ফুরফুরে মেজাজেই রয়েছে। বুধবার কোন ম্যাচ ছিল না। তবে এদিন হালকা অনুশীলন করেন রিতু-স্বর্ণা-সাদিয়ারা। বৃহস্পতিবার হংকংয়ের বিপক্ষে জয়ের প্রত্যাশা নিয়েই মাঠে নামবে বাংলাদেশ দল। বুধবার সিঙ্গাপুর থেকে একথা জানান দলের প্রধান কোচ তারিকুজ্জামান নান্নু। তিনি বলেন, ‘শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচে বাংলাদেশ যখন প্রথম গোল দিল তখন চোখটা চিকচিক করে উঠছিল। লিড নেয়ার পরও আশঙ্কা ছিল। শেষদিকে যখন আরো একটি গোল হলো এবং খেলার শেষ বাঁশি বাজলো তখন মনের অজান্তেই চোখের পানি ঝরতে লাগলো। তবে জয়টা সেভাবে উদযাপন হয়নি। দেশে থাকতেই সাদিয়ার থুতনিতে দুটি সেলাই লেগেছিল। সেটি কাটিয়ে সিঙ্গাপুর এসেছিলাম। খেলার সময় আবারো সে ব্যাথা পেল। ফিজিও কোনরকম ব্যান্ডেজ করে দিলে ফের মাঠে নামে সাদিয়া। রক্ত পড়ায় জয়ের পরপরই তাকে নিয়ে হাসপাতালে যেতে হয়। এখানে চিকিৎসা খুব ব্যায়বহুল। সব খরচ ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক সাঈদ ভাই দিলেন। হংকংয়ের বিপক্ষে জয়ের আশা করছি আমরা। সবার দোয়া চাই।’

১০ সেপ্টেম্বর সিঙ্গাপুরের সেংক্যাং স্টেডিয়ামে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ ২-০ গোলে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ইতিহাস গড়ে। বিজয়ী দলের হয়ে অধিনায়ক রিতু খানম ও তারিন আক্তার খুশি একটি করে গোল করেন। হকিতে এটাই বাংলাদেশের মেয়েদের প্রথম কোন আন্তর্জাতিক ম্যাচে জয়। গত ৯ সেপ্টেম্বর নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক সিঙ্গাপুরের কাছে ৩-০ গোলে হারলেও দ্বিতীয় ম্যাচে ঠিকই ঘুরে দাঁড়ায় রিতু খানম বাহিনী। প্রথম ম্যাচের ভুল গুলো শুধরে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দারুণ খেলে জয় তুলে নেয় তারা।

ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাতœক হকি উপহার দেয় তারা। প্রথম কেয়ার্টারে আধিপত্য বিস্তার করলেও বাংলাদেশ গোল পায় দ্বিতীয় কোয়ার্টারে। ম্যাচের ২৭ মিনিটে পেনাল্টি কর্ণার থেকে লাল-সবুজদের হয়ে প্রথম গোল করেন অধিনায়ক রিতু খানম (১-০)। তবে দ্বিতীয় গোলের জন্য বাংলাদেশকে অপেক্ষায় থাকতে হয় ৫৮ মিনিট পর্যন্ত। এই সময় পেনাল্টি কর্নার থেকেই ব্যাবধান দ্বিগুন করেন তারিন আক্তার খুশি (২-০)। শেষ পর্যন্ত এই ব্যবধানের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২১ নারী দল। এদিন প্রায় শতাধিক প্রবাসী বাংলাদেশী সেংক্যাং স্টেডিয়ামে বসে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচটি উপভোগ করেন। তারা মুহুর্মুহু করতালির মাধ্যমে দেশের মেয়েদের সমর্থন যোগান।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন