ঢাকা, রোববার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩১ ভাদ্র ১৪২৬, ১৫ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

আর্জেন্টিনা-ব্রাজিলের ভিন্নরকম অভিজ্ঞতা

অভিজ্ঞতা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

যুক্তরাষ্ট্রের দুই অঙ্গরাজ্যে এক ঘণ্টার ব্যবধানে দুটি ম্যাচ। প্রীতি ম্যাচ হলেও ফুটবল প্রেমীদের নজর ঠিকই ছিল সেদিকে। লিওনেল মেসিবিহীন আর্জেন্টিনা লাউতুরো মার্তিনেসের হ্যাটট্রিকে মেক্সিকোকে উড়িয়ে দিলেও নেইমারকে নিয়েই পেরুর কাছে হেরেছে ব্রাজিল।

পেরুকে ৩-১ গোলে হারিয়েই গত জুলাইয়ে নিজেদের মাঠে কোপা আমেরিকার শিরোপা জিতেছিল ব্রাজিল। বাংলাদেশ সময় গতকাল সকালে ক্যালিফোর্নিয়ার লস অ্যাঞ্জেলস মেমোরিয়াল কলোসিয়ামে তিতের দল এবার সেই পেরুর কাছে ধরাশায়ী হয়েছে ১-০ গোলের ব্যবধানে। ডিফেন্ডার রুইস আবরাম ম্যাচের ৮৫তম মিনিটে ফ্রি-কিক থেকে জয়সূচক গোলটি করেন। এর এক ঘণ্টা আগে টেক্সাসের সান অ্যান্তোনিয়র আলামোডোম মাল্টিপারপোস স্টেডিয়ামে শুরু হওয়া ম্যাচে মেক্সিকোকে ৪-০ গোলে হারায় আর্জেন্টিনা।

আক্রমণভাগের মূল শক্তি ছাড়াই মাঠে নেমেছিল লা আলবাসিলেস্তেরা। মেসি ছাড়াও ছিলেন না সার্জিও আগুয়েরো ও অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। তাদের অভাব বুঝতে দেননি মার্তিনেজ। ইন্টার মিলান স্ট্রাইকার ম্যাচের ১৭, ২২ ও ৩৯তম মিনিটে গোল করে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন। ৩৩তম মিনিটে অন্য গোলটি করেন পিএসজি মিডফিল্ডার লিয়ান্দ্রো পারেদেস। বিরতির আগেই ৪-০ গোলে এগিয়ে গিয়েছিল দক্ষিণ আমেরিকান জায়ান্টরা।

আজেন্টিনার জার্সিতে প্রথম হ্যাটট্রিক করে আবেগতাড়িত হয়ে পড়েছেন মার্তিনেজ, ‘আমি খুব খুশি এবং আবেগতাড়িত হয়ে পড়েছি। এই পর্যায়ে আসতে একজনকে অনেক ছাড় দিতে হয় এবং এই শার্ট পরে আপনি প্রতি দিন তিন গোল করতে পারবেন না।’

ম্যাচের মূল আকর্ষন ছিলেন ২২ বছর বয়সী মার্তিনেজ। আরো একবার দুর্দান্ত পারফরমেন্স দিয়ে ১৩টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে তিনি গোলসংখ্যা ৯’এ নিয়ে গেলেন। মেক্সিকান দূর্গ থেকে বল নিয়ে বেশ কয়েকজন ডিফেন্ডরাকে কাটিয়ে নিচু শটে গোলরক্ষক গুইলারমো ওচোয়াকে পরাস্ত করে প্রথম গোলটি করেন তিনি। পাঁচ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুন করেন রিভার প্লেট মিডফিল্ডার এজেকুয়ের পালাসিওর দারুণ এক পাস থেকে। ৩৩তম মিনিটে কার্লোস সালনেডোর হ্যান্ডবলে পেনাল্টি আদায় করে নেয় আর্জেন্টিনা। স্পট কিক থেকে দলকে এগিয়ে নিতে ভুল করেননি পারেদেস। ৩৯ মিনিটে মেক্সিকান রক্ষণের ভুলে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন মার্টিনেজ। পুরো ম্যাচে বল দখলে অনেক পিছিয়ে থাকলেও আক্রমণে সফল ছিলো লিওনেল স্কালোনির দল।

ব্রজিলের অভিজ্ঞতা ছিল এবেকারেই উল্টো। টানা ১৭ ম্যাচ অপরাজিত থাকার পর অবশেষে হারের তিক্ত স্বাদ পেয়েছে সেলেসাওরা। গত শুক্রবার কলম্বিয়ার বিপক্ষে ২-২ গোলে ড্র হওয়া ম্যাচে ইনজুরি কাটিয়ে মাঠে ফেরা নেইমার একটি গোল করে দলকে হারের হাত থেকে বাঁচিয়েছিলেন। গতকাল তাকে একাদশে রাখেননি কোচ। ফিটনেস ফিরে পাবার লড়াইয়ে থাকা দলের প্রধান অস্ত্রকে টানা দুই ম্যাচে চাপে রাখতে চাননি তিতে। ৬৩ মিনিটে লিভারপুলের রবার্তো ফিরমিনোর বদলি নামেন পিএসজির এই ফরোয়ার্ড। মাঠে নেমেই আক্রমণভাগে দলকে গতি এনে দেয়ার চেষ্টা করলেও ডেডলক ভাঙ্গতে পারেননি। মূলত ব্রাজিল এদিন তাদের আক্রমনভাগের স্বাভাবিক ছন্দ থেকে ছিল অনেক দূরে। রক্ষণেও দানি আলভেস ও থিয়াগো সিলভার অনুপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। দুই দলের খোলোয়াড়রাই এখন ফিরবেন নিজ নিজ ক্লাবে। আর্জেন্টিনার পরবর্তি ম্যাচ আগামী ১০ অক্টোবর, প্রীতি ম্যাচে তারা খেলবে জার্মানির বিপক্ষে।

গতপরশুর প্রীতি ম্যাচের ফল
ব্রাজিল ০-১ পেরু
কলোম্বিয়া ০-০ ভেনিজুয়েলা
ইকুয়েডর ৩-০ বলিভিয়া
যুক্তরাষ্ট্র ১-১ উরুগুয়ে
হন্ডুরাস ২-১ চিলি
আর্জেন্টিনা ৪-০ মেক্সিকো

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন