ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ সফর ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

দেশজুড়ে বৃষ্টিপাত বন্দরে সঙ্কেত

কুতুবদিয়ায় সর্বোচ্চ বর্ষণ ১৩৭ চট্টগ্রামে ১০৪ মি.মি. : অতিবৃষ্টিতে পাহাড়ধসের সতর্কতা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:০৭ এএম


আবহাওয়ার খেয়ালী আচরণ বোঝার উপায় নেই! ভাদ্র মাসের শেষ ভাগে অর্থাৎ শরৎ ঋতুর মাঝামাঝি এসেই গতকাল (বৃহস্পতিবার) প্রায় দেশজুড়ে বৃষ্টিপাত হয়েছে। গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় দেশের সর্বোচ্চ বর্ষণের রেকর্ড কক্সবাজারের কুতুবদিয়া দ্বীপে ১৩৭ মিলিমিটার। এ সময় চট্টগ্রামে ১০৪ মি.মি. বৃষ্টিপাত হয়েছে। তবে ঢাকা, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে গতকাল বৃষ্টিপাতের মাত্রা ছিল কম, যা হালকা ধরনের। অতিবৃষ্টির কারণে বৃহত্তর চট্টগ্রাম অঞ্চলে পাহাড়ধসের সতর্কতা দিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ।

বর্ষার মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপর সক্রিয় এবং বাংলাদেশ সংলগ্ন উত্তর বঙ্গোপসাগরে এখন জোরালো অবস্থায় রয়েছে। বায়ুচাপের তারতম্য ও তীব্রতার ফলে বঙ্গোপসাগর ফের উত্তাল হয়ে উঠেছে। সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর সতর্ক সঙ্কেত দেখানো হচ্ছে। সমুদ্র উত্তাল থাকায় মাছ শিকার কমে গেছে। চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙরে আমদানি মালামালের লাইটারিং খালাস কাজ, নৌপথে পরিবহন ব্যাহত এবং ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে।

দু’তিন দিনের বৃষ্টিপাতের ফলে দিন ও রাতের তাপমাত্রার পারদ দীর্ঘদিন পর নেমেছে। গতকাল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল শ্রীমঙ্গলে ৩২.৫ এবং সর্বনি¤œ টেকনাফে ২৩.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকার তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ৩১.২ এবং সর্বনি¤œ ২৬.৫ ডিগ্রি সে.। ঢাকায় বৃষ্টি ঝরেছে মাত্র ৭ মি.মি.। আবহাওয়া পূর্বাভাসে জানা গেছে, আজও (শুক্রবার) সক্রিয় মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে দেশের অধিকাংশ জায়গায় বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। তবে পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টায় কমে আসতে পারে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা। এরপরের ৫ দিনে আবহাওয়ার উল্লেখযোগ্য পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই।

আজ সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাস অনুযায়ী, রংপুর, বরিশাল, খুলনা, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ স্থানে এবং ঢাকা, রাজশাহী ও ময়মনসিংহ বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এ সময় দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা কিছুটা বৃদ্ধি ও রাতের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

এদিকে আবহাওয়ার সতর্কবার্তায় আবহাওয়াবিদ মোঃ মনোয়ার হোসেন জানান, উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় বায়ুচাপের তারতম্যের আধিক্য অব্যাহত রয়েছে। বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং সমুদ্র বন্দরসমূহের ওপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সঙ্কেত দেখাতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারসমূহকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

ভারী বর্ষণের সতর্কবার্তায় আবহাওয়াবিদ মোঃ আফতাব উদ্দিন জানান, মৌসুমী বায়ু সক্রিয় থাকার কারণে আজ শুক্রবার পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী (৪৪ থেকে ৮৮ মি.মি.) থেকে অতি ভারী (৮৯ মি.মি.র ঊর্ধ্বে) বষর্ণের সম্ভাবনা রয়েছে। অতিভারী বৃষ্টিপাতের কারণে চট্টগ্রাম বিভাগের পাহাড়ি এলাকায় কোথাও কোথাও ভ‚মিধস হতে পারে।

 

 

 

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন