ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

সউদী আরবে তেল শোধনাগারে ড্রোন হামলার পর জ্বালানী তেলের দাম বেড়েছে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১১:১০ এএম

সউদী আরবের দুটি তেল ক্ষেত্রে হামলার পর অপরিশোধিত তেলের দাম গত চার মাসের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে।গত শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সউদী আরবের দুটি তেল ক্ষেত্রে হামলার পর বিশ্বে জ্বালানী তেলের সরবরাহ ৫ শতাংশেরও বেশি কমে গেছে।
দিনের শুরুতে অপরিশোধিত জ্বালানী তেলের মূল্য ১৯ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে ব্যারেল প্রতি প্রায় ৭২ ডলার হয়েছে। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দেশটির রিজার্ভ থেকে তেল ছাড়ার বিষয়টি অনুমোদন করার পর জ্বালানী তেলের দাম আবারো কমে আসে।
সউদী আরবের যে দুটি তেলক্ষেত্রে হামলা হয়েছে সেগুলো পুনরায় উৎপাদনে আসতে কয়েক সপ্তাহ সময় লাগতে পারে। এই তেলক্ষেত্র দুটি সৌদি আরবের তেল শিল্পের কেন্দ্রে অবস্থিত এবং এটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় তেল শোধনাগার।
সউদী আরব পৃথিবীর সবচেয়ে বড় জ্বালানী তেল রপ্তানিকারক। প্রতিদিন তারা ৭০ লাখ ব্যারেলের বেশি জ্বালানী তেল রপ্তানি করে। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এই হামলার জন্য ইরানকে দায়ী করেছেন। অন্যদিকে ইরান বিষয়টিতে 'ধোঁকাবাজি' বলে বর্ণনা করেছে।
সউদী রাষ্ট্রীয় খাতের প্রতিষ্ঠান আরামকো পরিচালিত দুটি তেল শোধনাগারে এই হামলার দায় স্বীকার করে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা। কিন্তু মি. পম্পেও তাদের সেই দাবি নাকচ করে দেন। এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় বলেছেন কারা এই হামলার সাথে জড়িত সেটি তারা জানেন।কিন্তু সউদী আরব বিষয়টি নিয়ে কিভাবে অগ্রসর হতে চায় সেটি জানার জন্য তারা অপেক্ষা করছেন।
পশ্চিমাদের সমর্থিত সউদী নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ইয়েমেনের সরকারকে সমর্থন দিয়ে আসছে। ওদিকে দেশটির হুতি বিদ্রোহীদের সমর্থন দেয় ইরান। সূত্র: বিবিসি

 
 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন