ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ভারতপ্রীতির মানসিকতাকে ধিক্কার জানাই ---- মির্জা ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

আসামের নাগরিকপঞ্জি ও রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আমরা ভারত সরকারকে বিশ্বাস করতে চাই’। আমরা (বিএনপি) উদ্বিগ্ন। ধিক্কার জানাই এই নতজানু পররাষ্ট্রনীতিকে, ধিক্কার জানাই ভারতপ্রীতির এই মানসিকতাকে। আমার দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব যদি একবিন্দু ক্ষতিগ্রস্ত হয় বাংলার মানুষ কোনদিন তা মেনে নেবে না। মুক্তিযুদ্ধ করেছে ১৯৭১ সালে। স্বাধীনতা রক্ষার জন্য দরকার হলে আমরা আরও বড় যুদ্ধে অবতীর্ণ হবো।

গতকাল (সোমবার) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দবিতে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।
মির্জা ফখরুল বলেন, বাংলাদেশে দশ লাখ রোহিঙ্গা ঢুকেছে। একজনকেও তাদের দেশে ফেরাতে পারেননি সরকার। ভারত-চীন নাকি আমাদের বড় বন্ধু। তাহলে বিষয়টা কী হলো। এদিকে আসামে এনআরসি প্রকাশ করা হয়েছে, সেখানে ১৯ লাখ লোককে বাদ দেয়া হয়েছে। আসামের মন্ত্রী এবং বিজেপি নেতা বলেছেন- এদেরকে বাংলাদেশে পাঠানো হবে।’
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) অধিকতর উন্নয়নে বরাদ্দ দেয়া মেগা প্রজেক্টের অর্থ কেলেঙ্কারি তথা ঘুষ লেনদেন দুর্নীতির দায়ে বিশ্ববিদ্যালয়টির ভিসি প্রফেসর ফারজানা ইসলামের এই মুহূর্তে পদত্যাগ করা উচিত অথবা তাকে পদচ্যুত করা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব।
তিনি বলেন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসির কাছে ঘুষ চাওয়ার অপরাধে ছাত্রলীগের যে দুই শীর্ষ নেতাকে পদচ্যুত করা হয়েছে এটাকে আবার নতুন নাম দিয়েছে তারা। ‘ফেয়ার শেয়ার’। ৫ অথবা ১০ শতাংশ ঘুষ যে নেবে এটা হলো ‘ফেয়ার শেয়ার’। এই ফেয়ার শেয়ারের মধ্যে আবার এখন ভাইস-চ্যান্সেলরের নামও চলে এসেছে। উনি নাকি ইতোমধ্যে ১ কোটি টাকা দিয়ে দিয়েছেন। এমতাবস্থায় দ্রুত ভিসির পদত্যাগ করা উচিত, না হয় তাকে অব্যাহতি দেয়া দরকার।’
সরকারের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘সকল ক্ষেত্রে দুর্নীতি চলছে। ছাত্রলীগের দুই নেতাকে বের করে দিয়ে সরকার স্বীকার করেছেন যে ‘করাপশন চলছে’। এখন এমন অবস্থা হয়েছে যে হাজার চেষ্টা করেও থলের বিড়াল ঢেকে রাখা যাচ্ছে না। কালো বিড়ালের মতো বের হয়ে আসছে এবং এগুলো এখন জনগণের কাছে পুরোপুরি চলে গেছে।
তিনি বলেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ছাত্র ভর্তি করছে রাতের বেলা। কোথায় আছে দুর্নীতিমুক্ত জায়গা? আজ স্বাস্থ্যব্যবস্থা, শিক্ষাব্যবস্থা, বিচারালয় কোথাও দুর্নীতির জন্য যাওয়া যায় না। বিএনরি অন্যতম এই শীর্ষ নেতা বলেন, যারা মিথ্যা বলে জনগণের সাথে প্রতারণা করে জোর করে ভোট ডাকাতি করে ক্ষমতায় বসে থাকে তাদের ক্ষমতায় থাকার কোনও অধিকার নেই। এটা সরকার অবৈধ এই পার্লামেন্ট অবৈধ। সুতরাং অবিলম্বে পার্লামেন্ট বাতিল করে একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিয়ে একটি নতুন নির্বাচন দিতে হবে এবং সে নির্বাচনে নতুন সরকার নতুন পার্লামেন্ট গঠন হবে। এই হচ্ছে জনগণের দাবি আজকে।
অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করে বিএনপির এই নেতা বলেন, কেন বেগম জিয়াকে আটকে রেখেছেন? এত ভয় পান কেন? ছাত্রদলের কাউন্সিল নিয়ে নাটক করলেন কেন? বাধা দিলেন কেন? তাহলে গণতন্ত্রকে আপনারা চলতে দিতে চান না। যারা গণতান্ত্রিকভাবে কাজ করতে চায় তাদেরকে আপনারা কাজ করতে দিতে চান না। তাদের পথকে আপনারা বন্ধ করে দিতে চান।’
বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা দলের সহ-সভাপতি মিজানুর রহমানের (বীর প্রতীক) সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সাদেক খানের সঞ্চলনায় মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, বিএনপির মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক জয়নুল আবেদীন, বিএনপির স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরীন সুলতানা ও বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার প্রমূখ।#

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (10)
Md Yasin ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:০৫ এএম says : 0
100% রাইট
Total Reply(0)
Nazmul Hasan ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:০৬ এএম says : 0
write absolutely correct this
Total Reply(0)
Jahangir Alam ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:০৬ এএম says : 0
আমি বলি কি কাকা এসব রাজনীতি ছেরে দিয়ে পরকালের চিন্তা করেন।এসব কিছুই আমাদের সাথে যাবে না।
Total Reply(0)
প্রজাপতির জীবন ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:০৬ এএম says : 0
সুস্থ কোনো রাজনীতিবিদ যারা জনগণ নিয়ে রাজনীতি করে তারা ভারতের তাঁবেদারী করতে পারে না কারন প্রায় শতভাগ জনগন মানসিক ভাবে ভারত বিরোধী!
Total Reply(0)
Rasel Ahmed ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:০৭ এএম says : 0
মদি ক্ষমতায় আসার পর কারা যেন মিষ্টি বিতরণ করেছিল???
Total Reply(0)
Kawsar Ahmed Kawsar ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:০৭ এএম says : 0
আপনারা দুই দলই পয়সার এপিঠ ওপিঠ ! কেউ ক্ষমতায় থাকার জন্য আর কেউ ক্ষমতায় আসার জন্য দুজনেই ভারতের পা চাটেন ! সুতরাং পাবলিককে ভুলবাল শুনিয়ে লাভ নাই । আমরা আমজনতা সবই বুঝি ।
Total Reply(0)
আতিকুল ইসলাম ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:০৭ এএম says : 0
বলে কি, যেখানে মন্ত্রী বলল, ওদের সাথে বাংলার সম্পর্ক স্বামী স্ত্রী'র!!
Total Reply(0)
Muyed Johnny ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:০৮ এএম says : 0
মোদির সাথে দেখা করতে কারা যেন বিনা দাওয়াতে হোটেলের লবিতে ঘন্টার পর ঘন্টা বসে ছিল ?????
Total Reply(0)
রিমা রিমা ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:০৮ এএম says : 0
মুসলমানদের অস্থিত্বে আঘাত আসলে হিন্দুদের সাথে কো আপোষ নেই।ইসলাম শান্তি ধর্ম।মারামারি, কাটাকাটি পছন্দ করে না।মুসলমানরা কোন জাতিকে কষ্ট দেয় না তারপরও মুসলিমদের দেখতে পারেনা।মুসলমানদের আঘাত করেই শান্তি পায়।তাই আঘাত প্রতিহত করতেই আমরা সোচ্চার,ইনশাল্লাহ
Total Reply(0)
Tuhin ahmed ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৬:২৭ এএম says : 0
Ze karonei miza fokhrul ekotha bollen na kno,eta 1000parchent thik bolesen.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন