ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

ফেভারিটদের হতাশার রাত

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে প্রথম দিনটা হতাশায় কেটেছে ফেভারিট দলগুলোর। বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের মাঠে পেনাল্টি ঠেকিয়ে বার্সেলেনাকে হারের হাত বাঁচিয়েছেন মার্ক আন্দ্রে-টের স্টেগেন। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি প্রিমিয়ার লিগের দুই দল লিভারপুল ও চেলসির।

চোট কাটিয়ে ফিরে দলকে জয় এনে দিতে পারেননি লিওনেল মেসি। পরশু রাতে ডর্টমুন্ডের সিগনাল ইদুনা পার্কে ‘এফ’ গ্রæপের ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়। গ্রæপের অপর ম্যাচে নিকোলো বারেলার করা যোগ করা সময়ের গোলে নিজেদের মাঠে রেড ¯øাভিয়া প্রাগের বিপক্ষে হার এড়ায় ইন্টার মিলান। মিলানের সান সিরো স্টেডিয়ামের ম্যাচটি ১-১ ড্র হয়। ‘ই’ গ্রæপে ম্যাচের শেষ দিকে দুই গোল খেয়ে নাপোলির মাঠ থেকে ২-০ গোলে হেরে ফিরেছে প্রিমিয়ার লিগে প্রতাপের সঙ্গে এগিয়ে চলা লিভারপুল। নাপোলির হয়ে গোল করেন বেলজিয়ান তারকা ড্রিয়েস মার্তেন্স ও স্প্যানিশ তারকা ফার্নান্দো ইয়োরেন্তে। একই গ্রæপে বেলজিয়ামের দল কেআরসি হেঙ্ককে ৬-২ গোলে উড়িয়ে দেয় আরবি সালজবুর্গ। সালজবুর্গের হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ অভিষেকে হ্যাটট্রিক করে সাড়া ফেলে দিয়েছেন নরওয়ের এরর্লিং ব্রাট হল্যান্ড। রিয়াল মাদ্রিদের রাউল গঞ্জালেস (১৮ বছর ১১৩ দিন) ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ওয়েইন রুনির (১৮ বছর ৩৪০ দিন) পর তৃতীয় সর্বকনিষ্ঠ হিসেবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে হ্যাটট্রিক করলেন ১৯ বছর ৫৮ দিন বয়সী হল্যান্ড।
‘এইচ’ গ্রæপে নিজেদের মাঠে ভ্যালেন্সিয়ার কাছে ১-০ গোলে হেরেছে চেলসি। একমাত্র গোলটি করেন রদ্রিগো। গ্রæপের অপর ম্যাচে লিলকে ৩-০ গোলে হারায় গতবারের সেমি-ফাইনালিস্ট আয়াক্স।

ভাগ্য সহায় থাকায় বার্সাকে এদিন হেরে ফিরতে হয়নি। দারুণ কিছু ‘সেভ’ করে বার্সেলোনাকে হারের হাত থেকে বাঁচিয়েছেন গোলরক্ষক টের স্টেগেন। আক্রমণে আধিপত্য দেখিয়েও হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় বরুশিয়া ডর্টমুন্ডকে।

ম্যাচজুড়ে গতিময় ফুটবল খেলে বার্সার রক্ষণে ভীতি ছড়ায় ডর্টমুন্ড। বেশ কয়েকটি ভালো সুযোগ তৈরি করে তারা, পেয়েছিল একটি পেনাল্টিও। কিন্তু সাফল্যের দেখা মেলেনি। একবার তাদের গোলবঞ্চিত করে ক্রসবার। বিপরীতে স্বভাবসুলভ বলের দখল রেখে খেললেও আক্রমণে সুবিধা করতে পারেনি আর্নেস্তো ভালভার্দের দল।

শুরুর একাদশে এদিন মাঠে নেমে বার্সার ইতিহাসে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় বনে যান ১৬ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড ফাতি। বিরতির পাঁচ মিনিট আগে বড় ধরনের ধাক্কা খায় বার্সা। হ্যামিস্ট্রিং চোট নিয়ে মাঠ ছাড়েন জর্ডি আলবা। তার বদলি নামের সার্জিও রবের্তো।

দ্বিতীয়ার্ধের তৃতীয় মিনিটে বাম প্রান্ত দিয়ে ভিতরে ঢুকে কাছ থেকে শট নিয়েছিলেন সুয়ারেজ। কিন্তু উরুগুয়া তারকার শট বাঁ-হাত দিয়ে প্রতিহত করেন গোলরক্ষক। ৫৫তম মিনিটে ডি বক্সে নেলসন সেমেদো সানচোকে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় ডর্টমুন্ড। কিন্তু রয়েসের নেওয়া স্পটকিক বাম দিকে ঝাঁপিয়ে রুখে দেন টের স্টেগেন।

৬০তম মিনিটে ফাতির বদলি নামেন মেসি। একই সময়ে সার্জিও বুসকেতসকে তুলে ইভান রাকিটিচকে নামান কোচ। ৭৫তম মিনিটে অনেকটা ফাঁকায় বল পেয়ে ক্রসবারের উপর দিয়ে উড়িয়ে মারেন রিউস। দুই মিনিট বাদে ইউলিয়ান ব্রান্ডটের দূরপাল্লার আচমকা শট ক্রসবার কাঁপিয়ে ফিরে আসলে হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় ডর্টমুন্ডকে। প্রতিযোগিতার গ্রæপ পর্বে এ নিয়ে টানা ১৫ ম্যাচ অপরাজিত রইল বার্সেলোনা।

ডর্টমুন্ডের মতই হতাশায় পুড়তে হয়েছে লিভারপুলকে। গত মৌসুমেও নাপোলির মাঠ থেকে হার নিয়ে ফিরতে হয়েছিল অল রেডদের। সালাহ-ফিরমিনো-মানেদের বেশ কয়েকটি শট রুখে দেন নাপোলি গোলরক্ষক অ্যালেক্স মেরেট। সুযোগও নষ্ট করেছে ইয়ুর্গুন ক্লপের শিষ্যরা। পরীক্ষা দিতে হয়েছে অ্যালিসন বেকারের অনুপস্তিতে লিভারপুলের পোস্ট সামলানো স্প্যানিশ গোলরক্ষক আদ্রিয়ানকেও। তবে লড়াইটা ছিল মূলত দুই দলের রক্ষণে। ভার্গিল ফন ডিকের বিপরীতে ছিলেন কালিদু কুলিবালি। শেষ পর্যন্ত সেই লড়াইয়ে জয়ী হয়েছেন কুলিবালিই।

ম্যাচের ৮২তম মিনিটে অ্যান্ডি রবার্টসনের একটি চ্যালেঞ্জে পড়ে যান নাপোলি উইঙ্গার হোসে কায়েহন। রেফারি পেনাল্টির বাশি বাজান। তা থেকে স্বাগতিকদের এগিয়ে নেন মার্তেন্স। যদিও পেনাল্টিটি ‘বৈধ’ ছিল কিনা এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচনা হচ্ছে। আর ক্লপ তো সরাসরিই বলেছেন, ‘আমি বলব এটা পরিস্কার ও সুম্পষ্টভাবে পেনাল্টি ছিল না।’ ক্ষোভের সঙ্গেই জার্মান কোচ বলেন, ‘আমি অনেকটাই নিশ্চিত যে ঐ পরিস্থিতিটাকে ভিন্ন দৃষ্টিতে দেখা হয়েছে। যখন একজন খেলোয়াড় সংঘর্ষের আগেই লাফায় তখন সেটা পেনাল্টি হয় না।’ ‘নিয়মটা এমনই এবং আমরা নিয়মে বিশ্বাস করি।’

গোল খেয়ে এলোমেলো হয়ে পড়ে লিভারপুল। সেই সুযোগে ম্যাচের যোগ সময়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ইয়োরেন্তে। পেনাল্টি আক্ষেপ নিয়ে মাঠ ছাড়ে চেলসিও। তবে তাদের দুঃখ পেনাল্টি পেয়েও হার এড়াতে না পারায়। ম্যাচের ৭৪তম মিনিটে রদ্রিগোর গোলে এগিয়ে ছিল ভ্যালেন্সিয়া। শেষদিকে পেনাল্টি পেয়েও গোল করতে পারেননি রস বার্কলি। ডি বক্সে ড্যানিয়েল ওয়াস হ্যান্ডবল করলে ভিএআরের সহায়তায় পেনাল্টি পায় চেলসি। কোচ হিসেবে ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ অভিষেকটাও হয়েছে তাই হার দিয়ে।

ইন্টার মিলান ১-১ ¯øাভিয়া প্রাগ
লিঁও ১-১ জেনিত
¯øাজবুর্গ ৬-২ হেঙ্ক
নাপোলি ২-০ লিভারপুল
ডর্টমুন্ড ০-০ বার্সেলোনা
বেনফিকা ১-২ লাইপজিগ
চেলসি ০-১ ভ্যালেন্সিয়া
আয়াক্স ৩-০ লিল

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন